ঢাকা শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ২ আশ্বিন ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

ব্রিটেনে যথাযথো ধর্মীয় মর্যাদার সাথে পালন করা হলো ঈদের নামাজ


Ekushey Sangbad
লন্ডন প্রতিনিধি
০৬:১০ পিএম, ১৩ মে, ২০২১
ব্রিটেনে যথাযথো ধর্মীয় মর্যাদার সাথে পালন করা হলো ঈদের নামাজ

 ব্রিটেনে যথাযথো ধর্মীয় গাম্ভীর্য ও মর্যাদার সাথে বৃহস্পতিবার ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করা হলো।

কভিড-১৯ বা মহামারির কারনে খোলা মাঠে বা পার্কে নামাজ আদায় করাতে না পারলেও মসজিদ গুলিতে ছিলো মুসল্লিদের উপচে পড়া ভীড়। প্রতিবছর ব্রিটেনের অনেক শহরে বেশ কিছু পার্কে বিশেষ করে ইস্ট লন্ডনের মুসল্লিরা খোলা মাঠে, কিংবা পার্কে ঈদের জামাত আদায় করে থাকেন।

কাউন্সেলর পক্ষে থেকে অনুমতি নিয়ে পার্ক গুলিতে বৃহৎ ঈদের জামাত অনুস্ঠিত হয় কিন্তু করোনাভাইরাস মহামারির কারনে এ বৎসর সেই সুযোগ থেকে বন্চিত হচ্ছেন মুসল্লিরা তবে মসজিদ গুলিতে থাকছে একাধিক ঈদের জামাত। ইস্ট লন্ডনে প্রায় প্রতিটি মসজিদে একাধিক ঈদ জামাত অনুষ্টিত হয়েছে।

ইস্ট লন্ডন মসজিদে অনুষ্টিত ৫টি জামাত, ব্রিকলেইনে ৪টি, দারুল উম্মাহ মসজিদে ৪টি, বায়তুল আমান মসজিদ বেথনালগ্রীনে হবে ৪টি ঈদ জামাত। লক্সি কালচারাল সেন্টার এ্যান্ড মসজিদ, সালমন লেইনে ভোর ৫.৩০ মিনিটে প্রথম ঈদের নামাজ শুরু হয়। শুধু ইস্ট লন্ডন নয় সমগ্র ব্রিটেন জুড়ে প্রতিটি মসজিদেই অনুস্ঠিত হয়েছে একাধিক ঈদের জামাত। দীর্ঘ এক মাস সীয়াম সাধনার পর বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর দরবারে ঈদের খুশির বার্তা নিয়ে এলো ঈদ। পবিত্র ঈদের খুশি ধনি, গরীব সবার জীবনে নিয়ে আসুক সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি। এবারের ঈদের দিনের দোয়া যেন হয় করোনাভাইরাস মুক্তি পৃথিবী চাই।

করোনাভাইরাস মহামারির কারনে সামাজিক দূরুত্ব বজায় রেখেই মসজিদ গুলিতে একাধিক ঈদের নামাজ অনুস্ঠিত হয়। বাসা থেকে ওজু করে আসা, সাথে নিজের জায়নামাজ নিয়ে আসা, মুখে মাক্স পড়ে আসা এখন সবার অভ্যাসে পরিনত হয়েছে। সবাই নিজে থেকে সব কিছু সাথে নিয়ে এসেছেন।সেই সাথে সরকারি নিয়মনীতি মেনেই প্রতিটি মসজিদে ঈদের নামাজ অনুস্ঠিত হয়।

এই আনন্দের দিনে ইচ্ছা থাকা সত্যিই কেউ কাউকে বুকে জড়িয়ে ধরতে পারনি।সামাজিক দূরুত্ব বজায় রেখেই এবারের ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নেওয়া হলো।এবারের ঈদের জামাতের জন্য মসজিদ গুলিতে ছিলো উপচে পড়া মুসল্লিদের ভীড়।একটি জামাত থেকে অন্য জামাতের জন্য মানুষ লাইনে দাডিয়ে অপেক্ষা করেন। ইস্ট লন্ডন মসজিদে ছিলো নারী এবং পুরুষদের আলাদা আলাদা হল রুমে ঈদের জামাত।

দুই দিক দিয়ে আলাদা গেইটে প্রবেশের ব্যাবস্থা থাকলেও ছিলো দীর্ঘ লাইন। ইস্ট লন্ডন মসজিদের মরিয়ম সেন্টারের গেইট থেকে শুরু করে মসজিদ ঘুরে মেইন গেইট হুয়াইট চ্যাপেল রাস্তা হয়ে একে বারে নিউ রোড পর্যন্ত দীর্ঘ লাইনে হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতি ছিলো চোখে পরার মত।বৃস্টি হলেও কেউ পিছু পা হয় নাই। কেউ ছাতা মাথায় দিয়ে আবার কেউ ব্যাগ কিম্বা সাথে আনা জায়নামাজ মাথায় দিয়ে দীর্ঘ অপেক্ষার পর মসজিদে প্রবেশ করে অতি আনন্দ এবংতৃপ্তির মধ্য দিয়ে ঈদের নামাজ আদায় করেন ।

সেই সাথে সরকারি বিধিনিষেধের কারনে যেতে পারবেন না আত্মীয় স্বজনের ঘরে। বাহির থেকে দেখা করতে পারলেন তবে পারলেন না কুলাকুলি করতে না পারলেও ঈদের নামাজ আদায়ের আনন্দের কোন কমতি ছিলো না। তারপরও আমরা যারা সুস্থ্য আছি বলি আলহামদুলিল্লাহ। সরকারি বিধিনিষেধ মেনে ঈদ উৎযাপন করা হলো ।

সবাই ভালো থাকুন, সুস্থ্য থাকুন এবং নিরাপদে থাকুন । সাইকে ঈদের অনেক অনেক শুভেচ্ছা ঈদ মোবারক।