AB Bank
ঢাকা বুধবার, ১৭ জুলাই, ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

ইংল্যান্ডের সামনে এবার লড়াকু নেদারল্যান্ডস


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
০৯:১৮ পিএম, ৯ জুলাই, ২০২৪
ইংল্যান্ডের সামনে এবার লড়াকু নেদারল্যান্ডস

আগামীকাল ইউরো চ্যাম্পিয়নশীপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে নেদারল্যান্ডসের মোকাবেলা করবে ইংল্যান্ড। প্রথমবারের বিদেশের মাটিতে বড় কোন টুর্নামেন্টের ফাইনালে খেলতে হলে ইংল্যান্ডকে লড়াকু ডাচ বাঁধা পেরুতে হবে।

থ্রি লায়ন্সরা টানা দ্বিতীয়বারের মত ইউরোর ফাইনালে খেলার সুযোগ কোনভাবেই হাতছাড়া করতে চাইবে না। তার উপর ওয়েম্বলিতে তিন বছর আগে ইতালির কাছে পেনাল্টিতে পরাজিত হয়ে পরাজয়ের হতাশা থেকেও তারা বেরিয়ে আসতে চাইছে। এর আগে ১৯৬৬  বিশ্বকাপে একবারই ঘরের মাটিতে ফাইনালে খেলে শিরোপা জিতেছিল ইংলিশরা।

কোচ গ্যারেথ সাউথগেটের দলের সামনে এখন ৫৮ বছরের শিরোপা খরা কাটানোর বড় সুযোগ। সাউথগেটের অধীনে সাম্প্রতিক সময়ে নিজেদের দারুনভাবে প্রমান করার কারনেই জার্মানিতে আসার আগে তাদের গায়ে ফেবারিটের তকমা লেগে গিয়েছিল। শেষ চারে পৌঁছাতে অবশ্য তাদের বেশ বেগ পেতে হয়েছে। স্লোভাকিয়া ও সুইজারল্যান্ডের বিরুদ্ধে নক আউট পর্বের আগের দুই ম্যাচে পিছিয়ে পড়ে বিদায়ের দ্বারপ্রান্ত থেকে তারা ফিরে এসেছিল। জুড বেলিংহাম ও বুকায়ো সাকার একক কৃতিত্বে দুইবার ইংল্যান্ড রক্ষা পায়। কিন্তু দল হিসেবে এখনো সেভাবে জ¦লে উঠতে পারেনি সাউথগেটের শিষ্যরা। স্লোভাকিয়ার সাথে অতিরিক্ত সময় ও সুইজারল্যান্ডের বিরুদ্ধে পেনাল্টিতে ইংল্যান্ডের জয় নিশ্চিত হয়।

কিন্তু ঐ ম্যাচগুলোতে ব্যক্তিগত পারফরমেন্সের সুবাদে  জয় পাওয়া ইংল্যান্ডকে ফাইনালে যেতে হলে অবশ্যই একতাবদ্ধ হয়ে খেলতে হবে। এখনো পর্যন্ত আসরের কোন ম্যাচেই ইংল্যান্ড তাদের স্বাভাবিক খেলা খেলতে পারেনি। যদিও ইংলিশ বস বড় আসরে তার জয়ের রেকর্ড ঠিকই ধরে রেখেছেন।

সাউথগেটের অধীনে এনিয়ে ইংল্যান্ড চারটি বড় টুর্নামেন্টের তৃতীয় সেমিফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে। আট বছর আগে এই দলটির দায়িত্ব নেবার পর সাউথগেট এভাবে নিজের ভবিষ্যত এগিয়ে নিয়ে গেছেন। যদিও ৫৩ বছর বয়সী সাউথগেটকে এই দীর্ঘ যাত্রায় সমালোচানাও কম শুনতে হয়নি। এবারের আসরেও স্লোভেনিয়ার সাথে গ্রুপ পর্বে গোলশুন্য ড্র করার পর সমর্থকদের তোপের মুখে পড়তে হয়েছে ইংলিশ বসকে। অসম্ভব প্রতিভাবান একটি দলকে পেয়েও নেতিবাচক কৌশলের কারনেই সাউথগেট বারবার সমালোচিত হয়েছেন।

এ সম্পর্কে সাউথগেট বলেন, ‘বিষয়গুলো যখন ব্যক্তিগত ভাবে আসে তখন অবশ্যই খারাপ লাগে। আমি এগুলো অস্বীকার করছি না। ম্যাচের ফলাফল মন:পুত না হলেও এমন হতে পারে। যদিও অতিরিক্ত কোন কিছুই ভাল না। এটাও মনে রাখতে হবে চারটি বড় আসরের তৃতীয় সেমিফাইনাল খেলছি আমরা। আমি বিশ্বাস করি এর মাধ্যমে আমরা সমর্থকদের দারুন কিছু স্মৃতি উপহার দিয়ে যাচ্ছি। এভাবেই আমরা এগিয়ে যেতে চাই। আমরা লড়াই চালিয়ে যাবো একইসাথে এই মুহূর্তগুলো উপভোগও করবো।’ 

সুইজারল্যান্ডের সাথে ১-১ গোলের ড্রয়ের ম্যাচটিতে সাউথগেট ফর্মেশনে পরিবর্তন এনেছিলেন। বিশ^ র‌্যাঙ্কিংয়ের ৪৫তম স্থানে থাকা স্লোভাকিয়ার বিরুদ্ধে নাটকীয় জয়ের পর যে কারনে সুইসদের বিপক্ষে ইংল্যান্ড তুলনামূলক ভাল ফুটবল খেলেছে। সাউথগেট আশা করছেন তিনি তার ৩-৪-২-১ ফর্মেশনেই কালকের ম্যাচেও স্থির থাকবেন। মধ্যমাঠে এজরি কোনসার স্থানে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে দলে ফিরছেন মার্ক গুয়েহি।

সাউথগেট স্বীকার করেছেন তার দল ড্রয়ের অন্যদিকে থাকা ফ্রান্স, স্পেন, জার্মানি ও পর্তুগালের না পড়াটা সৌভাগ্যের। নেদারল্যান্ডস ডি-গ্রুপে অস্ট্রিয়া ও ফ্রান্সের পরে তৃতীয় স্থান নিয়ে নক আউট পর্বে ওঠায় ফাইনালে পথে ইংল্যান্ড তাদেরকে পেয়ে কিছুটা স্বস্তি প্রকাশ করতেই পারে।

অন্যদিকে কোচ নরোনাল্ড কোম্যানের দল নেদারল্যান্ডস  শেষ ষোলতে রোমানিয়াকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে নিজেদের সেরা পারফরমেন্স দেখিয়েছে। বার্লিনে অবশ্য তুরষ্কের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালে পিছিয়ে পড়ে শেষ পর্যন্ত ২-১ গোলের জয় পায়। প্রিমিয়ার লিগের তারকাদের বিপক্ষে মাঠে নেমে নেদারল্যান্ডসকে কিছুটা হলেও নার্ভাস মনে হতে পারে। ডাচ যে খেলোয়াড়রা ইংলিশ শীর্ষ লিগে খেলে থাকে তারা স্বাভাবিক ভাবেই নিজেদের এগিয়ে নেবার লড়াইয়ে মেতে উঠবে।

টটেনহ্যামের ডাচ ডিফেন্ডার মিকি ফন ডি ভেন বলেছেন, ‘উভয় দলের খেলোয়াড়দের মান দেখতে গেলে এই ম্যাচটি ছন্দ ও প্রতিভার দিকে থেকে দারুন একটি ম্যাচ হতে যাচ্ছে।’

এবারের আসরে যে কয়জন ফরোয়ার্ড নিজেদের প্রমান করেছেন তাদের মধ্যে নি:সন্দেহে অন্যতম লিভারপুলের ডাচ তারকা কোডি গাকপো। এখনো পর্যন্ত সর্বোচ্চ তিন গোল করা একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে গাকপো টুর্নামেন্টে টিকে রয়েছেন।

বড় টুর্নামেন্টের শিরোপা জয়ে ডাচরা ৩৬ বছরের খরা কাটাতে মুখিয়ে আছে। সর্বশেষ জয় করা ঐ ইউরো আসরটিও জার্মানিতেই অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ঐ একবারই নেদার‌্যান্ডস ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নশীপের ফাইনালে খেলেছে।

একুশে সংবাদ/ এস কে

Link copied!