AB Bank
ঢাকা শনিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

শেষ মুহূর্তের গোলে এ্যাথলেটিকোর জয়


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
০৩:০৫ পিএম, ২ এপ্রিল, ২০২৪
শেষ মুহূর্তের গোলে এ্যাথলেটিকোর জয়

সাউল নিগুয়েজের ৮৭ মিনিটের গোলে সোমবার ভিয়ারিয়ালকে ২-০ ব্যবধানে  পরাজিত করেছে এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। এই জয়ে দুই পয়েন্টে এ্যাথলেটিক বিলবাওকে পিছনে ফেলে লা লিগা টেবিলের চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছে দিয়েগো সিমিওনের দল।

এর আগে রোববার লিগের শীর্ষ দল রিয়াল মাদ্রিদের কাছে এ্যাথলেটিক বিলবাও পরাজিত হলে তার পুরো সুবিধাটা আদায় করে নিয়েছে এ্যাথলেটিকো। এই জয়ে আবারো তারা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পজিশনে ফিরেছে।এ্যাক্সেল উইটসেল নয় মিনিটে এ্যাথলেটিকোকে এগিয়ে দেন। বিরতির পরপরই সফরকারী ভিয়ারিয়ালকে সমতায় ফেরান আলেক্সান্দার সোরলোথ।

বদলী খেলোয়াড় সাউল মাঠে নামার পাঁচ মিনিটেরও কম সময়ের মধ্যে গোল করে দলের জয় নিশ্চিত করেন। মৌসুম শেষ হতে আর মাত্র আট ম্যাচ বাকি। এই মুহূর্তে তৃতীয় স্থানে থাকা জিরোনার থেকে সাত পয়েন্ট পিছিয়ে রয়েছে সিমিওনের দল।

সিমিওনে বলেছেন, ‘সাউল ম্যাচের চেহারা পাল্টে দিয়েছে এবং অসাধারণ একটি গোল করেছে। আমি তাকে ম্যাচের বেশীরভাগ সময়ই বদলী বেঞ্চে বসিয়ে রেখেছিলাম। কারন তার উপর আমার আস্থা আছে। আশা করছি সে আমাদের এভাবেই এগিয়ে নিয়ে যাবে।’

সিমিওনে জানিয়েছেন আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পজিশন নিশ্চিত করতে হলে তার দলে আরো বেশ কিছু জায়গায় উন্নতির প্রয়োজন রয়েছে, ‘এ্যাথলেটিক দারুন একটি মৌসুম কাটাচ্ছে, জিরোনাও নিজেদের প্রমান করে চলেছে। এ কারনেই আমাদের আরো উন্নতি করতে হবে। ম্যাচের গতি ও গভীরতা সবকিছু নির্ধারণ করে দিবে। সে অনুযায়ী আমাদের উন্নতির জায়গাগুলো খুঁজে বের করতে হবে।

রডরিগো রিকুয়েলমের কর্ণার থেকে ৯ মিনিটে দারুন হেডের গোলে উইটসেল এ্যাথলেটিকোকে এগিয়ে দেন। ৩৫ বছর বয়সী এই বেলজিয়ান এর আগে এ্যাথলেটিকোর হয়ে মাত্র এক গোল করেছেন, সেটাও গত নভেম্বরে এই ভিয়ারিয়ালেরই বিপক্ষে। দ্বিতীয়ার্ধ শুরুর পাঁচ মিনিটের মধ্যে সোরলোথ নিখুঁত লো ফিনিশে ভিয়ারিয়ালকে সমতায় ফেরান। এ্যাঞ্জেল কোরেয়ার শট অল্পের জন্য সাইডবার ঘেঁষে বাইরে চলে যায়। আলভারো মোরাতার শট সরাসরি ভিয়ারিয়ালের গোলরক্ষক ফিলিপ জর্জেনসেনের হাতে ধরা পড়ে। ইয়েসন মসকুয়েরার একটি শট দারুনভাবে রুখে দেন এ্যাথলেটিকো গোলরক্ষক ইয়ান ওবলাক। আক্রমন পাল্টা আক্রমনে ম্যাচটি বেশ উন্মুক্ত হয়ে যায়। বদলী বেঞ্চ থেকে উঠে এসে সাউল যে গোলটি করেছে তা নিয়ে অবশ্য এ্যাথলেটিকো বেশ নার্ভাস ছিল। কারন সম্ভাব্য অফসাইড পজিশনের কারনে ভিএআর’র গোল বাতিলের সম্ভাবনা ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত এ্যাথলেটিকোকে গোল উপহার দেয়া হয়। স্টপেজ টাইমে ভিয়ারিয়াল সমতায় ফেরার দারুন সুযোগ পেয়েছিল। বারট্রান্ড ট্রায়োরের ক্রস সবাইকে ছাপিয়ে শুধুমাত্র ওবলাককে পরাস্ত করতে পারেনি।

এই পরাজয়ে পুরো মৌসুমে নিজেদের ফিরে না পাওয়া ভিয়ারিয়াল টেবিলের ১০ম স্থানেই থাকলো।

 

একুশে সংবাদ/এস কে


 

Link copied!