AB Bank
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই, ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

ভারতে থানায় ঢুকে পুলিশ সদস্যদের পেটাল সেনারা


Ekushey Sangbad
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১০:০২ পিএম, ৩০ মে, ২০২৪
ভারতে থানায় ঢুকে পুলিশ সদস্যদের পেটাল সেনারা

ভারতের একটি থানায় ঢুকে পুলিশ সদস্যদের পেটানোর অভিযোগ উঠেছে কয়েকজন সেনা সদস্যের বিরুদ্ধে। সম্প্রতি দেশটির জম্মু ও কাশ্মীরের কুপাওয়াড়ার একটি থানায় এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় সেনাবাহিনীর তিন লেফটেন্যান্ট কর্নেলসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। ভিডিওতে দেখা যায়, মঙ্গলবার (২৮ মে) গভীর রাতে ওই থানার ভেতরে প্রবেশ করছেন সেনারা। তবে পুলিশকে মারধরের বিষয়টি অস্বীকার করেছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। তাদের দাবি, পুলিশ ও সেনা সদস্যদের মধ্যে ছোটখাটো মতবিরোধ হয়েছে।

ভারতীয় প্রতিরক্ষা বাহিনীর এক মুখপাত্র বলেছেন, পুলিশ ও সেনা সদস্যদের মধ্যে ঝগড়া এবং পুলিশ সদস্যদের মারধরের যে খবর ছড়িয়েছে, তা ভুল। একটি অপারেশনাল বিষয়ে পুলিশ ও আঞ্চলিক সেনা ইউনিটের মধ্যে ছোটখাটো মতবিরোধ হয়েছিল। আর সেটা শান্তিপূর্ণভাবে সমাধান করা হয়েছে।

তবে ভারতীয় সেনাবাহিনীর তরফ থেকে এমন দাবি করা হলেও পুলিশের এফআইআরে লেফটেন্যান্ট কর্নেল পদমর্যাদার তিনজন কর্মকর্তাসহ ১৬ জন সেনার নাম উল্লেখ করেছে। তাদের বিরুদ্ধে থানায় ঢুকে দাঙ্গা, হত্যাচেষ্টা ও পুলিশ সদস্যদের অপহরণের অভিযোগে মামলা করা হয়েছে।

এফআইআরে বলা হয়, একটি মামলার তদন্তের স্বার্থে মঙ্গলবার কুপওয়ারার বাটপোরা গ্রামের এক আঞ্চলিক সেনার বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ। এর জেরে রাত পৌনে ১০টার দিকে ওই ইউনিটের বেশ কয়েকজন সেনা বিনা অনুমতিতে থানায় ঢুকে তাদের ওপর হামলা চালায়। এতে তিনজন সেনা কর্মকর্তা তাদের নেতৃত্ব দেয়।

ভারতীয় পুলিশের দাবি, তাদের তরফ থেকে সেনাদের কোনো উসকানি দেওয়া হয়নি। তারপরও ওই সময় থানায় থাকা পুলিশ সদস্যদের রাইফেলের বাট, লাঠি দিয়ে মারধর করেন সেনারা। এরপর বিষয়টি পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করা হয়। খবর পেয়ে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এলে তাদের দেখে সেনারা চলে যায়। এমনকি চলে যাওয়ার সময় থানার প্রধান কনস্টেবলকে অপহরণ করে নিয়ে যায় বলেও অভিযোগ করেছে পুলিশ।

এদিকে আহত পুলিশ সদস্যদের স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তাদের অবস্থা এখন স্থিতিশীল।


একুশে সংবাদ/আ.ট.প্র/জাহা

Link copied!