ঢাকা রবিবার, ১৭ জানুয়ারি, ২০২১, ৪ মাঘ ১৪২৭
Ekushey Sangbad
Janata Bank
করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

এবার ব্রিটেনে ভ্যাকসিনে প্রাধান্য পাচ্ছেন যারা


Ekushey Sangbad
লন্ডন প্রতিনিধি
০৪:৪০ পিএম, জানুয়ারি ১৩, ২০২১
এবার ব্রিটেনে ভ্যাকসিনে প্রাধান্য পাচ্ছেন যারা

ব্রিটেনে করোনাভাইরস মোকাবেলার জন্য গত বছরের ৮ই ডিসেম্বর থেকে ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হয়। সব সময় প্রাধান্যতার ভিত্তিতেই ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে। ৪ঠা জানুয়ারি ২০২১ অক্সফোর্ড এর ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হয় এবং ৮ই জানুয়ারি থেকে মর্ডানার ভ্যাকসিন অনুমোদন দেয় ব্রিটিশ সরকার।

ব্রিটেনে ফাইজার, অক্সফোর্ড এবং মর্ডানার ভ্যাকসিন দেওয়া যারা অগ্রাধিকার পেয়েছেন-

১. কেয়ার হোমস
২. কেয়ার হোম স্টাফ
৩. প্রবীণ ব্যক্তি
৪. ৮০ উর্ধ বয়সী
৫. ফ্রন্ট লাইন স্বাস্থ্য কর্মীরা
৬. করোনায় আক্রান্ত রোগীরা
৭. বেশী অসুস্থ্য রোগীরা
৮. পর্যায়ক্রমে পঁচাত্তোর্ধ্ব, সত্তোর্ধ এবং অসহায় রোগিদের ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে।

এখন পর্যাপ্ত পরিমানে ভ্যাকসিন আছে ব্রিটেনের এনএইচএস এর তত্ত্বাবধানে। শুধু মাত্র এনএইচএস এর অধিনেই ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে । প্রাইভেট ভাবে কেউ দিতে পারছেন না। সেই সাথে জিপি এবং এনএইচএস এর ড্যাটা ছাড়া ও কেউ এই ভ্যাকসিন দিতে পারবেন না।

দ্বিতীয় ধাপে ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রাধান্য পাচ্ছেন, পুলিশ অফিসার, পুলিশ বাহিনীর সদস্য, টিচার, ব্রিটিশ পারলামেন্টের ৬৫০ এমপি এবং ফ্রন্ট লাইন ওয়ারকাররা।

অবশ্য টরি এমপি স্টেভ ব্রাইন বলেন, প্রাধান্য দেওয়া হোক পারলামেন্টের ৬৫০ এমপিকে কেননা তাদের প্রাধান্য সবার আগে। তারাতো দেশ পরিচালনা করছেন। তাদের সুস্থ্য থাকা বেশী জরুরী।

ব্রানলি ফুটবল টিমের ম্যানেজার সাউন ডেইজ বলেন, ফুটবল খেলোয়ারদের প্রাধান্য দেওয়া হোক ভ্যাকসিন দেওয়ার ক্ষেত্রে। খেলোয়াররা তো জাতীয় সম্পদ।

দি ন্যাশনাল পুলিশ কাউন্সিলের চীফ মার্টিন হেইড বলেন, সবার আগে পুলিশ অফিসার ও পুলিশ সদস্যরা এদের সুস্থতা সবার আগে। এরা তো দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন দেশের আইনশৃংখলা রক্ষার জন্য।

ম্যাট পুলিশ কমিশনার ক্রেটিডা ডিক বলেন, ফ্রন্ট লাইন পুলিশ অফিসাররা সবার আগে ভ্যাকসিন পাবেন। এখানে কারো দ্বিমত থাকার কথা নয়। সেই সাথে সকল ফ্রন্ট লাইন ওয়ারকাররা ভ্যাকসিন দেওয়ার ক্ষেত্রে প্রাধান্য পাবেন।

হোম সেক্রেটারি প্রিতি প্যাটেল বলেছেন, প্রথম থেকেই জিপি এবং এনএইচএস এর ড্যাটা অনুযায়ী ভ্যাকসিনে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। এখন নো সেই ড্যাটা অনুযায়ী অতি বয়স্ক, অসুস্থ্য, বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত রোগীদের পরেই ফ্রন্ট লাইন ওয়ার্কাররা ভ্যাকসিন পাবেন। সেই সাথে পুলিশ অফিসার এবং টিচাররা প্রাধান্য পাবেন। যেসব ওয়ার্কাররা সরাসরি সামনে করোনা রোগী নিয়ে কাজ করেন তাদেরকে সবার আগে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।

ড্যাটা অনুযায়ী বয়স্ক, বেশী অসুস্থ্য, কেয়ার হোম, পুলিশ অফিসার, টিচার এবং ফ্রন্ট লাইন ওয়ারকারদের ভ্যাকসিন ধারাবাহিক ভাবে দেওয়া হচ্ছে। সবার জন্য ভ্যাকসিন পেতে অপেক্ষা করতে হবে আরো অনেক সময়।

একুশে সংবাদ/এআরএম