AB Bank
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৩ মে, ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

কে এই ‘জামাল কুদু গার্ল’?


Ekushey Sangbad
বিনোদন ডেস্ক
১২:৪৩ পিএম, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২৩
কে এই ‘জামাল কুদু গার্ল’?

তানাজ ডাভুডি

চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে সন্দীপ রেড্ডি বঙ্গা পরিচালিত ‘অ্যানিম্যাল’ ছবিটি। এই ছবিতেই ব্যবহার করা হয়েছে ‘জামাল কুদু’ গানটি। ববি দেওলের ‘এন্ট্রি সং’ হিসাবেই ব্যবহার করা হয়েছে গানটি। ধর্মেন্দ্র-পুত্র ববির পাশাপাশি এই গানের দৃশ্যে নজর কেড়েছেন এক অভিনেত্রী। তাকে নিয়ে এখন আলোচনা সর্বত্র। কে এই অভিনেত্রী? তার আসল পরিচয়ই বা কী?

সাম্প্রতিককালে সোশাল মিডিয়ায় যে কোনও স্বল্পদৈর্ঘ্যের ভিডিয়ো পোস্ট করা হলে তার নেপথ্যে অধিকাংশ সময় ‘জামাল কুদু’ গানটিই শোনা যাচ্ছে। এই গানের তালে পা মেলাচ্ছেন শ্রোতাদের অধিকাংশ। ‘অ্যানিম্যাল’ ছবিতে ‘জামাল কুদু’ গানের দৃশ্যে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে তানাজ ডাভুডিকে।

‘অ্যানিম্যাল’ ছবিতে ‘জামাল কুদু’ গানের দৃশ্যে মাইকে গান গাইতে দেখা গিয়েছে তানাজকে। এই গানের বাণী লেখা ইরানের কবি বিজান স্মন্দরের। পুরনো গানকেই নবরূপে ছবিতে তুলে ধরেছেন নির্মাতা। মদের গ্লাস মাথায় নিয়ে ববির নাচ এই গানের মূল আকর্ষণ তো বটেই। তবে তানাজও কোনও অংশে কম যান না।

তানাজ ডাভুডি

‘জামাল কুদু’ গানে অভিনয় করে ‘জামাল কুদু গার্ল’ নামে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন তানাজ। ভারতীয় নয়, ইরানের অভিনেত্রী তিনি। ১৯৯৭ সালের ২৭ জুনে ইরানের তেহরানে জন্ম তানাজের। অভিনেত্রীর বাবার নাম মেহেদি আলিয়ারি এবং মায়ের নাম মারজান ডাইমন্ড।

২০১৪ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত টানা তিন বছর ফ্যাশন নিয়ে কলেজে পড়াশোনা করেন তানাজ়। ফ্যাশন নিয়ে স্নাতকস্তরের পড়াশোনা শেষ করার পর একটি চাকরিও শুরু করেন তিনি। কিন্তু চাকরিতে বেশি দিন মন টেকেনি তানাজ়ের। হিন্দি ফিল্মজগতে নিজের কেরিয়ার গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখেন তিনি। মুম্বইয়ে গিয়ে নৃত্যশিল্পী হিসাবে কাজ শুরু করেন তানাজ।

বলিউডের একাধিক তারকার সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পান তানাজ। বরুণ ধওয়ান, জন আব্রাহম এবং নোরা ফতেহির মতো বলি তারকাদের সঙ্গে কাজ করেন।

তানাজ ডাভুডি

ইরানেই শৈশবের অধিকাংশ সময় কাটান তানাজ। বলিপাড়ার একাংশের দাবি, তানাজ়র বাবা-মা নাকি ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। সেই সূত্রে ইরান থেকে পরিবার-সহ লন্ডনে চলে যান তানাজ। লন্ডনে গিয়েই ফ্যাশন নিয়ে পড়াশোনা শেষ করেন । বলিপাড়া সূত্রে খবর, শৈশব থেকে হিন্দি ছবির গানের দৃশ্য দেখতে পছন্দ করতেন তিনি। সেগুলি দেখে নিজে থেকেই হিন্দি ছবির গানের নাচের ধাপ শিখে ফেলতেন তিনি।

বলিউডে কেরিয়ার গড়বেন বলে মুম্বাইয়ে গিয়ে নাচের প্রশিক্ষণ নেন তানাজ। নিজের সমাজমাধ্যমেও বলিউডি গানের সঙ্গে নাচের ভিডিয়ো পোস্ট করেন তিনি। হিন্দি ছবিতে গানের দৃশ্যে অভিনয়ের জন্য মাঝেমধ্যেই বিদেশি মহিলাদের প্রয়োজন হয়।

বলিপাড়া সূত্রে খবর, ২০১৭ সালে তানাজ এমন একটি সংস্থার সঙ্গে যুক্ত হন, যেখান থেকে তিনি হিন্দি ছবির গানের দৃশ্যে অভিনয়ের সুযোগ পেতে শুরু করেন।

‘অ্যানিম্যাল’ ছবিতে প্রথম অভিনয় করেননি তানাজ। এর আগে একাধিক হিন্দি ছবিতে ‘ব্যাকগ্রাউন্ড ডান্সার’ হিসাবে কাজ করেছেন তিনি।

তানাজ ডাভুডি

দেশ-বিদেশের বিভিন্ন প্রান্তে মঞ্চে নাচের পারফর্ম্যান্সও করতে দেখা যায় তানাজকে। নাচের পাশাপাশি ঘুরতেও ভালবাসেন তানাজ। কোমরে একটি ছোট ট্যাটু রয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তানাজের ভক্ত মহলও নজরকাড়া। ইতিমধ্যেই ইনস্টাগ্রামে তাঁর অনুরাগীর সংখ্যা দু’লক্ষের গণ্ডি পার করে ফেলেছে।


একুশে সংবাদ/এসআর

Link copied!