ঢাকা সোমবার, ১৫ আগস্ট, ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
Janata Bank
Rupalibank

জরুরি প্রাণী চিকিৎসা সেবায় চালু হয়েছে ভ্রাম্যমাণ প্রাণী চিকিৎসা ক্লিনিক: মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী


Ekushey Sangbad
নিজস্ব প্রতিবেদক
১২:২০ পিএম, ২২ জুলাই, ২০২২
জরুরি প্রাণী চিকিৎসা সেবায় চালু হয়েছে ভ্রাম্যমাণ প্রাণী চিকিৎসা ক্লিনিক: মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

 

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক: দ্রুততম সময়ে খামারিদের দোরগোড়ায় জরুরি প্রাণী চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দিতে ভ্রাম্যমাণ প্রাণী চিকিৎসা ক্লিনিক চালু করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

 

বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে পুরাতন বাণিজ্য মেলা মাঠে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন প্রাণিসম্পদ ও ডেইরি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় দেশের ২৯৯ উপজেলায় ভ্রাম্যমাণ প্রাণী চিকিৎসা ক্লিনিক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথা জানান।

 

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার উপহার, প্রাণীর পাশেই ডাক্তার এ প্রতিপাদ্যে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় আধুনিকতাকে সামনে নিয়ে আসতে চেয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় প্রাণীদের প্রতি মমত্বের জায়গা দায়িত্বের অধীনে নিয়ে আসার জন্য মোবাইল ভেটেরিনারি ক্লিনিক চালুর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। মানুষ অসুস্থ হলে অ্যাম্বুলেন্স তাকে দ্রুততার সাথে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া যায়। কিন্তু বড় আকারের গবাদিপশুকে অ্যাম্বুলেন্সে নিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। ফলে তাকে যথাযথভাবে চিকিৎসা দেওয়ার সুযোগ এতদিন ছিল না। সে জন্য সরকার পরিকল্পনা নেয় হাসপাতালে প্রাণী নয়, প্রাণীর কাছে চলে যাবে হাসপাতাল। এটি অত্যন্ত ভালো উদ্যোগ। দেশে এখন পর্যন্ত মানুষের চিকিৎসার জন্য মোবাইল ক্লিনিক হয়নি। কিন্তু পশুপাখি ও প্রাণীর জন্য ভ্রাম্যমাণ চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

 

দেশের উন্নয়নের সব জায়গায় শেখ হাসিনার পরশ পাওয়া যাবে উল্লেখ করে মন্ত্রী  বলেন, এ দেশ ছিল তলাবিহীন ঝুড়ির তকমাযুক্ত দেশ। এ দেশকে বলা হত প্রাকৃতিক দুর্যোগের রাষ্ট্র। আজ সে দেশ বিশ্বের কাছে বিস্ময়, উন্নয়নের রোল মডেল। এ দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বলা হয় দুর্গতদের কণ্ঠস্বর। তাকে বলা হয় মানবতার জননী, উন্নয়নের জাদুকর। তাকে বলা হয় ক্রাউন জুয়েল। তিনি অনেক দূরদৃষ্টি দিয়ে বাংলাদেশকে আজ এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।

 

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতে আমূল পরিবর্তন এসেছে উল্লেখ করে মন্ত্রী আরও যোগ করেন, এ পরিবর্তনের কৃতিত্ব বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার। আমরা সবাই মিলে তার নির্দেশনায় কাজ করেছি বিধায় এখানে আমরা পৌঁছাতে পেরেছি। মাছ, মাংস ও ডিমে আমাদের স্বয়ংসম্পূর্ণতা এসেছে। অদূর ভবিষ্যতে দুধেও স্বয়ংসম্পূর্ণতা আসবে। মৎস্য ও প্রাণিজাত পণ্যের বহুমুখী ব্যবহারেও আমরা পরিকল্পনা গ্রহণ করছি।

 

 

 

 

ভ্রাম্যমান প্রাণী চিকিৎসা ক্লিনিকে ব্যবহৃত গাড়ির যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিতে সংশ্লিষ্টদের এ সময় নির্দেশ দেন মন্ত্রী।

 

প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. মনজুর মোহাম্মদ শাহজাদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মুহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী। স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন প্রাণিসম্পদ ও ডেইরি উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক মো. আব্দুর রহিম। ভ্রাম্যমাণ প্রাণী চিকিৎসা ক্লিনিকের সারসংক্ষেপ উপস্থাপন করেন সংশ্লিষ্ট প্রকল্পের প্রধান কারিগরী সমন্বয়ক ড. মো. গোলাম রব্বানী। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

 

একুশে সংবাদ.কম/জা.হা