ঢাকা শনিবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২২, ১৬ মাঘ ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

কামরাঙ্গীরচরকে বিশ্বমানের বাণিজ্যিক অঞ্চল করা হবে: ব্যারিস্টার তাপস


Ekushey Sangbad
নিজস্ব প্রতিবেদক
০৯:০০ পিএম, ৬ নভেম্বর, ২০২১
কামরাঙ্গীরচরকে বিশ্বমানের বাণিজ্যিক অঞ্চল করা হবে: ব্যারিস্টার তাপস
ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

আল-আমিন এম তাওহীদ: ঢাকা দক্ষিণ সিটির মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নুর তাপস বলেছেন, বর্তমান ও ভবিষ্যতের প্রাসঙ্গিক চাহিদা মেটাতে কামরাঙ্গীরচরে বিশ্বমানের বাণিজ্যিক অঞ্চল গড়ে তোলার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে ‘ভিশন- ২০৪১’ অর্জনে সহায়তা করবে।

ফজলে নূর তাপস বলেন, আমরা কামরাঙ্গীরচরে একটি কেন্দ্রীয় ব্যবসায়িক অঞ্চল (সিবিডি) তৈরি করব। এলাকাটি একটি সম্পূর্ণ ব্যবসায়িক শহরে রূপান্তরিত হবে। এখানে একটি ৫০ তলা বিশিষ্ট আকাশচুম্বী ব্যবসায়িক ভবন, বিশ্বমানের সম্মেলন কেন্দ্র এবং একটি হোটেল তৈরি করা হবে। ঢাকার নতুন কেন্দ্রীয় বাণিজ্যিক অঞ্চলের সম্ভাবনা।

মেয়র বলেন, পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য আদি বুড়িগঙ্গা চ্যানেল অবৈধ দখলমুক্ত করে তা পুনরুদ্ধার করতে হবে। আমরা নদী তীর থেকে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করবো এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অভিপ্রায় অনুযায়ী বুড়িগঙ্গা পুনঃখনন করে এর প্রাচীন রূপ পুনরুজ্জীবিত করবো। অবৈধ দখলদাররা যত শক্তিশালীই হোক না কেন তাদের অবশ্যই উচ্ছেদ করা হবে।

ব্যারিস্টার তাপস বলেন, আদি বুড়িগঙ্গা চ্যানেল পুনরুজ্জীবিত হলে কেরানীগঞ্জের দুই পাশ দিয়ে পানি প্রবাহিত হবে এবং এইভাবে এলাকায় একটি নান্দনিক পরিবেশ তৈরি হবে। একবার সিবিডি বাস্তবায়িত হলে এটি ২০৩১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উচ্চ মধ্যবিত্তের দেশে পরিণত করে এবং ২০৪১ সালের মধ্যে

প্রধানমন্ত্রীর কল্পনায় একটি উন্নত দেশে পরিণত করে ‘ভিশন ২০৪১’ অর্জনে সহায়তা করবে।
কামরাঙ্গীরচর হবে রাজধানীর পরবর্তী বাণিজ্যিক কেন্দ্র এবং এটি হবে নান্দনিক ও আধুনিক স্থাপত্যের উদাহরণ। স্মার্ট প্রবৃদ্ধির প্রতীক হবে এবং অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতার সাথে জীবনযাপন করবে।

খসড়া পরিকল্পনা অনুযায়ী বিজনেস হাব তৈরি করা হবে এমন প্রত্যাশিত উপাদানগুলি হল- একটি সুউচ্চ কনভেনশন সেন্টার, কনডমিনিয়াম, হাই-ইন্ড অফিস বিল্ডিং, অডিটোরিয়াম, সেমিনার হেরিটেজ মিউজিয়াম, রুফটপ ক্যাফে বা রেস্তোরাঁ, আর্ট গ্যালারি, সবুজ ওয়াকওয়ে, সাইকেল লেন এবং স্ট্যান্ড, ওয়াটার ট্যাক্সি জেটি, ওয়াটার গার্ডেন, পুরান ঢাকার জাদুঘর, ড্রামা থিয়েটার এবং অ্যাম্ফিথিয়েটার।

একুশে সংবাদ/আল-আমিন