AB Bank
ঢাকা শুক্রবার, ২১ জুন, ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

বাবররা অনেক বেশি চাপ নিয়ে ফেলেছিল: কার্স্টেন


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
০৫:৪৯ পিএম, ১০ জুন, ২০২৪
বাবররা অনেক বেশি চাপ নিয়ে ফেলেছিল: কার্স্টেন

আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২৪-এর ১৯তম ম্যাচে ভারতের বিরুদ্ধে ছয় রানে পরাজয়ের পরে মুখ খুলেছেন পাকিস্তান দলের প্রধান কোচ গ্যারি কার্স্টেন। তিনি স্বীকার করেছেন যে দল নিজের উপর খুব বেশি চাপ নিয়ে ফেলেছিল। ঋষভ পন্তের দুর্দান্ত ইনিংসের পর, জসপ্রীত বুমরাহের তিনটি উইকেট পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানদের চাপে ফেলে দিয়েছিল এবং সেই কারণেই নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামে ভারত ৬ রানে জয়ী হয়। 

ম্যাচের পরবর্তী সাংবাদিক সম্মেলনে গ্যারি কার্স্টেন বলেন, ‘সেই সব খেলোয়াড়ই আন্তর্জাতিক খেলোয়াড় এবং যারা জানে যে তাদের ওপর কী ধরনের চাপ থাকে যখন তারা তাদের সেরা পারফর্ম করে না।’ তিনি আরও বলেন, ‘এই খেলোয়াড়দের অনেকেই বহু বছর ধরে বিশ্বজুড়ে প্রচুর টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেলেছে এবং তারা কীভাবে তাদের খেলাকে এগিয়ে নিয়ে যাবে সেটা তাদের বিষয়। তবে তারা এদিন রান তাড়া করতে গিয়ে নিজেদের উপর অনেক চাপ নিয়ে ফেলেছিল।’

নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামে খেলার পরে গ্যারি কার্স্টেন বলেছিলেন যে এটি কখনই বড় স্কোর ছিল না। তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি আমাদের ব্যাটসম্যানরা স্কোর করতে সক্ষম ছিলেন এবং আউটফিল্ডও বেশ ধীর ছিল, তাই এটি কখনই বড় স্কোর হতে পারে না। যদি স্কোর ১৪০ হত তাহলে আমি সেটাকে ভালো স্কোর বলতাম।’ গ্যারি কার্স্টেন আরও বলেন, ‘ভেবেছিলাম আমরা ম্যাচ জিতব। আমরা জানতাম এটি একটি কঠিন খেলা হতে চলেছে, কিন্তু কখনও কখনও এই ধরনের গেমগুলি দেখতে মজার হয়। এটা সবসময় ছক্কা মারার কথা নয়, ২৩০ এবং ২৪০ রান করা নয়। ১২০ রানের লক্ষ্য তাড়া করার জন্য আপনি সত্যিই একটি বিনোদনমূলক খেলা করতে পারেন। তাই, আমি মনে করি না এটা খেলার জন্য খারাপ।’

কার্স্টেন বলেছিলেন যে লক্ষ্য তাড়া করার সময়, দলকে দেওয়া বার্তাটি ছিল আলগা বলগুলিকে বাউন্ডারিতে রূপান্তর করা এবং স্ট্রাইকটি ভালোভাবে রোটেড করা। তিনি বলেন, ‘আমরা এটাকে এক বলে এক রানে রেখেছিলাম এবং তারপরে আমরা রান করা বন্ধ করে দিয়েছিলাম এবং তারপরে আমরা বাউন্ডারি খুঁজছিলাম এবং একবার আপনি সেই পয়েন্টে পৌঁছান এটি সবসময়ই কঠিন হয়ে যায়। সুতরাং, বার্তাটি ছিল আমরা ১৫ ওভার পর্যন্ত যা করেছি সেটাই করে যাওয়া।’

পাকিস্তান দলের হেড কোচ বলেছিলেন যে এই জাতীয় মাঠে, স্ট্রাইকটি ভালভাবে ঘোরানোটাই গুরুত্বপূর্ণ। গ্যারি কার্স্টেন বলেন, ‘মাঝে মাঝে এমন খেলা দেখতে মজা লাগে, যেখানে আপনাকে শুধু বাউন্ডারিই স্কোর করতে হবে না, ১২০টি বলও সঠিকভাবে ব্যবহার করতে হবে। আমি যেমন বলেছি, আমরা ১৫ ওভার পর্যন্ত এটি করেছিলাম এবং তারপরে আমরা আমাদের কৌশল থেকে সরে যাই।’

একুশে সংবাদ/ এস কে

 

 

 

Link copied!