AB Bank
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই, ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

উইম্বলডনে নজিরবিহীন ঘটনা


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
১২:৩৯ পিএম, ৯ জুলাই, ২০২৪
উইম্বলডনে নজিরবিহীন ঘটনা

প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে প্রতিপক্ষকে দাঁড়াতে দেননি। ৬-৩, ৬-৪, ৬-২ গেমে প্রায় উড়িয়ে দিয়েছে বলা যায়। কিন্তু সেই ম্যাচ জেতার পর দর্শকদের চরম সমালোচনা করলেন নোভাক জোকোভিচ। সব শেষে সেন্টার কোর্টের গ্যালারিকে কার্যত হুমকি দিয়ে রাখলেন তিনি। উইম্বলডনে সাম্প্রতিক অতীতে এ রকম কোনও ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করতে পারছে না টেনিস মহল।

২৪টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের মালিক জোকোভিচ কোর্টে বরাবরই আগ্রাসী। সোমবার রাতে বিপক্ষ খেলোয়াড় নন, তার আগ্রাসনের শিকার হলেন দর্শকেরা। উইম্বলডনে হোলগার রুনের বিরুদ্ধে ম্যাচে সুযোগ পেলেই দর্শকেরা জোকোভিচকে টিটকিরি দিচ্ছিলেন। স্ট্রেট সেটে জিতেও মেজাজ ঠিক রাখতে পারেননি জোকোভিচ। বলেন, “যে সমর্থকেরা সম্মান জানিয়ে এখানে খেলা দেখতে এসেছিলেন, তাদের হৃদয় থেকে ধন্যবাদ। আর যাঁরা এসেছিলেন এক জন খেলোয়াড়কে, এই ক্ষেত্রে সেই খেলোয়াড়টি আমি, বিদ্রুপ করার জন্য, তাঁদের শুভরাত্রি।” সেই ‘শুভরাত্রি’ বলার মধ্যে বিদ্রুপ স্পষ্ট। জোকোভিচ স্পষ্ট করে বলে দিলেন তিনি অসম্মানিত।

সঞ্চালক সামাল দেওয়ার চেষ্টা করলেও লাভ হয়নি। তিনি জোকোভিচকে শান্ত করার জন্য বলেন, “রুনের জন্য সমর্থকেরা চিৎকার করছিলেন। আপনাকে অসম্মান করা হয়নি।” জোকোভিচ মাথা নাড়তে শুরু করেন। তিনি বলেন, “ওরা বিদ্রুপ করছিলেন। এটা আমি মেনে নেব না। একদমই মানব না। আমি জানি ওঁরা রুনের জন্য চিৎকার করছিলেন। কিন্তু সেটা অজুহাত মাত্র। আমি ২০ বছর ধরে খেলছি। এই সব আমার জানা আছে। কী ভাবে বিদ্রুপ করা হয় জানি। আমি সেই সব দর্শককে সম্মান দিতে চাই, যারা টিকিট কেটে টেনিসকে ভালবেসে খেলা দেখতে এসেছেন।” 

যে দর্শকেরা কটাক্ষ করেছিলেন, তাদের কার্যত হুঁশিয়ারি দিয়ে জোকোভিচ বলেন, “আমি এর থেকেও খারাপ পরিস্থিতিতে খেলেছি। আপনারা আমাকে ছুঁতেও পারবেন না। তবে উইম্বলডন কর্তৃপক্ষের এখানে কিছু করার আছে বলে মনে হয় না। কেউ খারাপ ব্যবহার করছে বলে তারা তো আর দর্শকদের বার করে দিতে পারবেন না।”

জোকোভিচকে আগেও উইম্বলডনে বিদ্রুপ করা হয়েছে। আসলে রজার ফেডেরারে উইম্বলডন এতটাই মুগ্ধ যে, তার থেকে শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট তারা অন্য কাউকে দিতে চায় না। ফেডেরারের রেকর্ড ৮টি উইম্বলডন ট্রফির থেকে মাত্র এক ধাপ দূরে জোকোভিচ। হয়তো সেই কারণেই তাঁকে বার বার বিদ্রুপের মুখে পড়তে হচ্ছে। বিশেষ করে ফেডেরারের অবসরের পর সেই টিটকিরির মাত্রা আরও বেড়েছে।

তবে শুধু উইম্বলডনেই নয়, বিভিন্ন দেশে টেনিস খেলতে গিয়ে এমন ঘটনার সম্মুখীন হয়েছেন ২৪টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের মালিক। ফরাসি ওপেনে চোটের কারণে মাঝপথে সরে যেতে হয়েছিল তাকে। চোট সারিয়ে ফিরে উইম্বলডনে ২৫তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের লক্ষ্যে খেলছেন জোকোভিচ।

রুনকে হারিয়ে উইম্বলডনের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছেন জোকোভিচ। সেখানে তাকে খেলতে হবে অ্যালেক্স ডি মিনাউরের বিপক্ষে। বুধবার হবে সেই ম্যাচ। 

একুশে সংবাদ/ এস কে

Link copied!