AB Bank
ঢাকা রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

ফাইনাল জিতে আমরাও ট্রফিহীনতার শাপমোচন করব: মার্করাম


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
০৩:২১ পিএম, ২৯ জুন, ২০২৪
ফাইনাল জিতে আমরাও ট্রফিহীনতার শাপমোচন করব: মার্করাম

চলতি টি-২০ বিশ্বকাপ একেবারে তার শেষ পর্যায়ে পৌঁছে গিয়েছে। ফাইনালে মুখোমুখি হবে ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকা। দুই দলের কাছেই এই ফাইনালের গুরুত্ব অপরিসীম। ফাইনালে একদিকে যেমন দক্ষিণ আফ্রিকা মুখিয়ে থাকবে তাদের প্রথম আইসিসি ট্রফি জিততে, ঠিক তখন ভারত মুখিয়ে থাকবে তাদের ট্রফি খরা কাটাতে।

২০১৩ সালে ভারত শেষবার কোন আইসিসি ট্রফি জিতেছিল। সেবার তারা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতেছিল ইংল্যান্ড দলকে হারিয়ে। অন্যদিকে দক্ষিণ আফ্রিকাও যে ছেড়ে দেওয়ার পাত্র নয় তা তাদের অধিনায়ক এডেন মার্করাম ফাইনালের আগে শেষ সাংবাদিক সম্মেলনে স্পষ্ট করে দিলেন। তার স্পষ্ট বক্তব্য ভারত খুব ভালো দল। আমরা সেটা জানি। তবে ফাইনাল জিতে আমরাও ট্রফিহীনতার শাপমোচন করতে মুখিয়ে রয়েছি। 

বার্বাডোজে ফাইনালের আগে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মার্করাম জানিয়েছেন, ‘আমরা সবাই জানি ভারত দুর্দান্ত একটি দল। ফাইনাল ম্যাচ অসাধারণ একটা লড়াই হবে। ম্যাচে ক্লোজ মুহূর্ত থাকবে। আমাদেরকে সেই মুহূর্তগুলো জিততে হবে। এর আগেও আমরা ক্লোজ ম্যাচ জিতেছি। অন্ততপক্ষে চারটে এইরকম ম্যাচ আমরা জিতেছি। সাদা বলের ফর্ম্যাটে আমাদের এই স্কোয়াডটা দীর্ঘদিন ধরে খেলছে। তারা বেশ অভিজ্ঞ এই বিষয়টিতে। তাদের ফাইনালে কীভাবে খেলতে হবে সেই বিষয়ে আলাদা করে কিছু বলার নেই। এখানকার পিচ বোলারদের সহায়ক। ব্যাটার হিসেবে এই ধরনের পিচে ব্যাট করাটা কঠিন। অধিনায়ক হিসেবে যদি বোলাররা ভালো বল করে তাহলে আমি তো খুশি হবই। তবে ব্যাটিংয়ের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে বলতে পারি এই ধরনের পিচে ব্যাট করাটা বেশ চ্যালেঞ্জিং।’

তিনি আরও যোগ করে বলেন, ‘ফাইনাল জিততে আমরা মুখিয়ে রয়েছি। আমাদের ট্রফিহীনতার শাপমোচন করতে সবাই তৈরি। ফাইনালে কোয়ালিফাই করার পরে দলের সকলে স্বাভাবিকভাবেই খুব খুশি। আমাদের বিরুদ্ধে বছরের পর বছর অনেক কিছু বলা হয়েছে। আমরা ফাইনাল জিতে এইসব কিছুর জবাব দিতে চাই।’ বার্বাডোজের রানওয়ে বন্ধ থাকার কারণে ত্রিনিদাদ থেকে বার্বাডোজে পৌঁছতে দেরি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘হ্যা আমাদের জন্য লম্বা একটা দিন গেছে। বেশ কয়েক ঘণ্টা আমাদের অপেক্ষা করতে হয়েছে।’ 

প্রসঙ্গত দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম সেমিফাইনালে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে নয় উইকেটের বিরাট ব্যবধানে জয় পেয়ে ফাইনালে যায়। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ইংল্যান্ড দলকে হারিয়ে দিয়ে ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করেছে ভারত। শনিবার ২৯ জুন ভারতীয় সময় রাত আটটার সময়ে বার্বাডোজের ২২ গজে মুখোমুখি হবে এই দুই দল।

একুশে সংবাদ/ এস কে

Link copied!