AB Bank
ঢাকা মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

বুড়ো কার্তিককে টি-২০ বিশ্বকাপে দেখতে চান না ইরফান


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
০৭:০২ পিএম, ১৬ এপ্রিল, ২০২৪
বুড়ো কার্তিককে টি-২০ বিশ্বকাপে দেখতে চান না ইরফান

জাতীয় দলের আঙিনা থেকে দূরে সরে যাওয়ায় একসময় ধারাভাষ্যকার হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করে দেন দীনেশ কার্তিক। তবে আইপিএলে এমন পারফর্ম্যান্স উপহার দেন অভিজ্ঞ উইকেটকিপার-ব্যাটার, তাকে ২০২২ টি-২০ বিশ্বকাপের দলে ফেরাতে বাধ্য হন জাতীয় নির্বাচকরা। 

এবার ফের টি-২০ বিশ্বকাপের বছরে আইপিএলের আঙিনায় ব্যাট হাতে ঝড় তুলছেন কার্তিক। আইপিএল ২০২৪-এর ঠিক পরেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আমেরিকার মাটিতে অনুষ্ঠিত হবে টি-২০ বিশ্বকাপ। চলতি ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে যে রকম ধ্বংসাত্মক ব্যাটিং করছেন কার্তিক, ফের তাকে বিশ্বকাপের দলে ঢোকানোর দাবি তুলতে শুরু করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

কার্তিক চলতি আইপিএলের ৭টি ম্যাচের ৬টি ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ৭৫.৩৩ গড়ে ২২৬ রান সংগ্রহ করেছেন। ২০৫.৪৫ স্ট্রাইক-রেটে রান সংগ্রহ করেন তিনি। হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন ২টি। কার্তিক ১৬টি চার ও ১৮টি ছক্কা মেরেছেন এখনও পর্যন্ত।

সোমবার সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে ৫টি চার ও ৭টি ছক্কার সাহায্যে ৩৫ বলে ৮৩ রানের ধ্বংসাত্মক ইনিংস খেলেন দীনেশ। ঠিক তার আগের ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে ৫টি চার ও ৪টি ছক্কার সাহায্যে ২৩ বলে ৫৩ রান করে অপরাজিত থাকেন কার্তিক।

দীনেশের এমন অবিশ্বাস্য ব্যাটিং দেখে টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন তারকা আম্বাতি রায়াড়ু তাঁকে টি-২০ বিশ্বকাপের জাতীয় দলে জায়গা করে দেওয়ার দাবি জানান। স্টার স্পোর্টসের আলোচনায় কার্তিককে নিয়ে রায়াড়ুর মত, দীনেশ জাতীয় দলে বরাবর মহেন্দ্র সিং ধোনির ছায়ায় থেকেছেন। ধারাবাহিকভাবে সুযোগ পাননি। এখন যে রকম স্বপ্নের ফর্মে রয়েছেন কার্তিক, তাঁকে অবসর নেওয়ার আগে শেষবার নিজের ছাপ রাখার সুযোগ করে দেওয়া উচিত।

এক্ষেত্রে আম্বাতির দাবির সঙ্গে একমত হতে পারেননি ইরফান পাঠান। তিনি বলেন, ‘দীনেশ কার্তিক যে রকম ব্যাট করছে, যত প্রশাংসাই করা হোক, কম হবে। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অন্য পর্যায়ের হয়। ওখানে কোনও ঘরোয়া বোলার বল করে না। অভিজ্ঞ বোলারদের মোকাবিলা করা খুব সহজ হয় না। তাছাড়া কার্তিককে যে রকম ধোনির ছায়ায় থাকতে হয়েছে, এক্ষেত্রে ঋষভ পন্তকে কার্তিকের ছায়ায় ঠেলে দেওয়া যথাযথ হবে বলে আমার মনে হয় না। পন্ত যদি ফর্মে না থাকত, তাহলে না হয় মেনে নেওয়া যেত।’

ইরফান আরও বলেন, ‘এই মুহূর্তে দীনেশের থেকে এগিয়ে থাকবে সঞ্জু স্যামসন এমনকি জিতেশ শর্মাও। কেউ একজন ভালো খেলছে বলে যারা নিয়মিত জাতীয় দলের বিবেচনায় রয়েছে, তাদের সাইডলাইনে ঠেলে দেওয়া ঠিক হবে না।’

ইরফান শেষে মজার ছলে বলেন, ‘আম্বাতি সিএসকের হয়ে খেলত। সিএসকের ক্রিকেটাররে সবসময় চায় দলে সিনিয়র ক্রিকেটারদের দলে থাকুক। ওরা ড্যাডস আর্মি চায়। তবে এটা ভারতীয় দল।’ 

আরসিবি কোচ অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার অবশ্য দীনেশের খেলায় এতটাই অভিভূত যে, তার মনে হয়েছে কার্তিক টি-২০ বিশ্বকাপ দলে ঢোকার যোগ্য দাবিদার। তিনি বলেন, ‘দীনেশ কার্তিক সত্যিই নিজেকে বিশ্বকাপ দলের দিকে ঠেলে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। মাঠে নেমে প্রতি ম্যাচেই নিজের পারফর্ম্যান্সে উন্নতি করে চলেছে ও।’ 

 

একুশে সংবাদ/এস কে

 

 

 

 

Link copied!