AB Bank
ঢাকা শনিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

ডাচদের সাথে জিতল ভারত, সুসংবাদ পেল বাংলাদেশ


Ekushey Sangbad
ক্রীড়া প্রতিবেদক
১০:১৮ পিএম, ১২ নভেম্বর, ২০২৩
ডাচদের সাথে জিতল ভারত, সুসংবাদ পেল বাংলাদেশ

দুই ম্যাচ হাতে রেখেই চলতি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের টিকিট কেটে রেখেছিল ভারত। নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচটি ছিল কেবলই সেমির প্রস্তুতি সেরে রাখা। সেখানেও শতভাগ সফল রোহিত শর্মার দল। বিশ্বকাপে নিজেদের নবম ম্যাচে ডাচদের ১৬০ রানে হারিয়ে টুর্নামেন্টে শতভাগ জয়ের ধারা অব্যাহত রেখেছে ভারত। আগে ব্যাট করতে নেমে শ্রেয়াস আইয়ার ও লোকেশ রাহুলের জোড়া সেঞ্চুরি এবং শুভমান গিল, রোহিত শর্মা ও ভিরাট কোহলির ফিফটিতে ৪১০ রানের পাহাড় গড়ে মেন ইন ব্লু’রা। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ভারতীয় বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ১৩ বল বাকি থাকতেই ২৫০ রানে গুটিয়ে যায় ডাচরা। ডাচদের এই পরাজয়ে বাংলাদেশের ২০২৫ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি খেলা নিশ্চিত হয়েছে।

ব্যাঙ্গালুরুর এম চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা। শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলতে থাকেন ভারতীয় দুই ওপেনার রোহিত ও শুভমান গিল। উদ্বোধনী জুটিতে তারা যোগ করেন ১০০ রান।

ব্যক্তিগত ৫১ রান করে আউট হয়েছেন গিল। তিনি থামলেও আক্রমণ অব্যাহত রেখেছেন রোহিত। দেখে-শুনে খেলে ক্যারিয়ারে ৫৪তম ফিফটি পূরণ করেন রোহিত শর্মা। ফিফটির পর পরেই আউট হয়ে প্যাভিলিয়নের পথে হেঁটেছেন ভারতীয় এই ওপেনার।

দলীয় ১৭.৪ ওভারে বাস ডি লিডের বলে ওয়েসলি বারেসির হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে আউট হয়েছেন রোহিত। যাওয়ার আগে তিনি খেলেন ৫৪ বলে ৬১ রানের ইনিংস। এরপর মাঠে নামেন শ্রেয়স আইয়ার।

রোহিতের আউট হওয়ার পর পিচে বেশিক্ষণ থিতু হতে পারেননি বিরাটও। দলীয় ২৮.৪ ওভারে রুলফ ফন ডার মারউইয়ের বলে বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নের পথে ফিরেছেন বিরাট। যাওয়ার আগে তিনি খেলেন ৫৬ বলে ৫১ রানের ইনিংস। এরপর মাঠে নামেন লোকেশ রাহুল।

লোকেশ রাহুল নামার পর তাকে ভালোভাবে সঙ্গ দেন শ্রেয়স। এই দুইজন ভারতীয় ব্যাটার মিলে গড়েন ১০৫ বলে ১৪৬ রানের জুটি। এরই মধ্যে দেখে-শুনে ক্যারিয়ারে চতুর্থ শতক পূর্ণ করেন চতুর্থ শতক পূর্ণ করেন শ্রেয়স আইয়ার। দলীয় ৪৫.৫ ওভারে বাস লিডের বলে চার মেরে শতক পূর্ণ করেন আইয়ার। এক্ষেত্রে তিনি খেলেন মাত্র ৮৪ বল।

শ্রেয়স আইয়ার শতকের পর অন্যপ্রান্তে দলীয় সংগ্রহ বড় করার জন্য ঝড়ো ইনিংস খেলতে শুরু করেন লোকেশ রাহুল। ঝড়ো ইনিংসের সুফলও পান তিনি। মাত্র ৬২ বলে খেলে তিনি ক্যারিয়ারে ৬ষ্ঠ শতক পূর্ণ করেন রাহুল। এতে তিনি ১১টি চার ও চারটি ছক্কা হাঁকান। তাতে শেষ কে আউট হয়েছেন রাহুল। তাতে ভেঙে যায় ১২৮ বলে গড়েন ২০৮ রানের জুটি। নির্ধারিত ৫০ ওভারের খেলা শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে ৪১০ রান সংগ্রহ করে ভারত। ফলে নেদারল্যান্ডসের লক্ষ্য দাঁড়ায় ৪১১ রান।

ডাচ পেসার বেস ডি লিডি ৮২ রান খরচায় নেন ২টি উইকেট।

 ৪১১ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় নেদারল্যান্ডস। দলীয় ৫ রানের মাথায় মোহাম্মদ সিরাজের বলে উইকেটের পেছনে রাহুলকে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ওয়েসলি বারেসি। এরপর ৬১ রানের জুটি গড়ে শুরুর ধাক্কা সামাল দেয়ার চেষ্টা করেছিলেন ম্যাক্স ও’ডাউড ও কলিন অ্যাকারম্যান। ৩২ বলে ৩৫ রান করা অ্যাকারম্যানকে ফিরিয়ে সেই জুটি ভাঙ্গেন কুলদীপ যাদব।

এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়েছে নেদারল্যান্ডস। বারেসি ছাড়া ডাচদের পরের আট ব্যাটারই পেয়েছেন দুই অঙ্কের দেখা। কিন্তু নিদামানুরু ছাড়া ইনিংস বড় করতে পারেনি কেউ। ৩৯ বলে ৫৪ রান করে শেষ ব্যাটার হিসেবে আউট হয়েছেন তিনি।

ভারতের হয়ে দুটি করে উইকেট নিয়েছেন মোহাম্মদ সিরাজ, জাসপ্রিত বুমরাহ, কুলদীপ যাদব ও রবীন্দ্র জাদেজা। একটি করে উইকেট শিকার করেছেন ভিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মা।

 

একুশে সংবাদ/ন.প্র/জাহা

Link copied!