ঢাকা রবিবার, ০১ আগস্ট, ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

স্টক এক্সচেঞ্জে সাড়ে ৩ বছরে সর্বোচ্চ সূচক 


Ekushey Sangbad
নিজস্ব প্রতিবেদক
০৪:২৯ পিএম, ১৫ জুলাই, ২০২১
স্টক এক্সচেঞ্জে সাড়ে ৩ বছরে সর্বোচ্চ সূচক 

আজ বৃহস্পতিবার সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে মূল্যসূচক বেড়েছে দেশের প্রধান দুই শেয়ারবাজারে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সাড়ে তিন বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থানে উঠে এসেছে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক।

এদিন, লেনদেনের শুরু থেকেই বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার প্রবণতা দেখা যায়। যা অব্যাহত থাকে লেনদেনের শেষ পর্যন্ত। বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়লেও সব থেকে বেশি দাপট দেখিয়েছে মিউচ্যুয়াল ফান্ড ও বস্ত্রখাতের কোম্পানি।

তালিকাভুক্ত ৩৭টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে একটিও দরপতনের তালিকায় নাম লেখায়নি। ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দাম বেড়েছে। আর একটির দাম কমেছে।

অপরদিকে, বস্ত্রখাতের ৫৮টি কোম্পানির মধ্যে ৪৭টির শেয়ার দাম বেড়েছে। বিপরীতে ৯টির দাম কমেছে এবং ২টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

মিউচ্যুয়াল ফান্ড ও বস্ত্রখাতের প্রতিষ্ঠানের দাম বাড়ার ইতিবাচক প্রভাব পড়ে সার্বিক শেয়ারবাজারে। ফলে দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইতে সব খাত মিলে ২৭০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৭৯টির। আর ২৬টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ায় দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৩৪ পয়েন্ট বেড়ে ছয় হাজার ৩০৭ পয়েন্টে উঠে এসেছে। যা ২০১৮ সালের ৩ জানুয়ারির পর সর্বোচ্চ। ২০১৮ সালের ৩ জানুয়ারি সূচকটি ছিল ৬ হাজার ৩১৮ পয়েন্টে।

প্রধান মূল্যসূচকের উত্থানের পাশাপাশি বেড়েছে ডিএসইর অপর দুই সূচক। এর মধ্যে বাছাই করা ভালো কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই-৩০ সূচক দশমিক ২০ পয়েন্ট বেড়ে দুই হাজার ২৭৪ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আর ডিএসইর শরিয়াহ্ সূচক ছয় পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৩৫৯ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

সূচকের এ দিনে ডিএসইতে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণও। দিনভর বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে এক হাজার ৭৮৯ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় এক হাজার ৬৪৮ কোটি ৮৯ লাখ টাকা। সে হিসেবে লেনদেন বেড়েছে ১৪০ কোটি ৯৬ লাখ টাকা।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর শেয়ার। কোম্পানিটির ১৭২ কোটি ৩২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা সাইফ পাওয়ারটেক ৫৫ কোটি ৯৭ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। ৪৩ কোটি ৮৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে লাফার্জহোলসিম।

এছাড়া ডিএসইতে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে- শাইনপুকুর সিরামিক, ফুয়াং ফুড, অ্যাক্টিভ ফাইন, ফুয়াং সিরামিক, পাওয়ার গ্রিড, ওরিয়ন ফার্মা এবং বিডি থাই।

অন্যদিকে অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই বেড়েছে ১১৬ পয়েন্ট। এমনকি ৬৯ কোটি ৭৪ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছে বাজারটিতে। এদিকে ৩২১টি লেনদেনে অংশ নেয়া  প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ২২২টির। এর বিপরীতে দাম 
 ৭৫টির দাম কমেছে  এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪টির দাম ।

একুশে সংবাদ/জা/তাশা