AB Bank
ঢাকা বুধবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

ইঞ্জিন বিকল হয়ে সাগরে ভাসছিল সেন্ট মার্টিনগামী জাহাজ


Ekushey Sangbad
সেন্টমার্টিন প্রতিনিধি, কক্সবাজার
০৩:৪৮ পিএম, ২২ অক্টোবর, ২০২৩
ইঞ্জিন বিকল হয়ে সাগরে ভাসছিল সেন্ট মার্টিনগামী জাহাজ

রোববার বেলা ১১টা। টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌপথে চলাচলকারী কেয়ারি ক্রুজ অ্যান্ড ডাইন নামের একটি পর্যটকবাহী জাহাজ ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায়। এসময় সাড়ে তিনশ’ যাত্রী নিয়ে সোয়া এক ঘণ্টা বঙ্গোপসাগরে ভেসে ছিল। এতে জাহাজে থাকা সাড়ে তিন শতাধিক পর্যটকের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

 

টকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌপথের মিয়ানমারের সীমান্তবর্তী নাইক্ষংদিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে একটি ইঞ্জিন সচল করে সেন্ট মার্টিনের দিকে এগিয়ে যায় জাহাজটি।

 

রোববার সকাল সাড়ে ৯টার নাগাদ টেকনাফের দমদমিয়া ঘাট থেকে পর্যটকবাহী জাহাজটি সেন্ট মার্টিনের উদ্দেশে রওনা দেয়। তবে জাহাজটি দুপুর ১২টার দিকে সেন্ট মার্টিনে পৌঁছানোর কথা থাকলেও বেলা একটা পর্যন্ত সাগরে ছিল।

 

জাহাজের ইঞ্জিন বিকলের তথ্য নিশ্চিত করেছেন কেয়ারি ক্রুজ অ্যান্ড ডাইনের ব্যবস্থাপক (হিসাব) মো. শাহ আলম। তিনি বলেন, ‘যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে এ ঘটনা ঘটেছে। একটি ইঞ্জিন চালু হয়েছে। বর্তমানে সেন্ট মার্টিনের দিকে রওনা হয়েছে জাহাজটি। নির্দিষ্ট সময়ের চেয়ে কিছু দেরিতে জাহাজটি সেন্ট মার্টিন জেটি ঘাটে পৌঁছাবে বলে আশা করছি।’

 

জাহাজের যাত্রী ঢাকা থেকে আসা পর্যটক নুর কবির ও টেকনাফের বাসিন্দা বশির আহমদ মুঠোফোনে জানান, সকালে জাহাজটি টেকনাফ থেকে ছেড়ে আসার পর বেলা ১১টার দিকে মিয়ানমারের পার্শ্ববর্তী নাইক্ষংদিয়া নামক এলাকায় পৌঁছালে জাহাজের ইঞ্জিন বিকল হয়ে পড়ে। তখন সাগরের মাঝখানে জাহাজটি ভাসতে থাকে।

 

এ সময় জাহাজে থাকা নারী-পুরুষদের পাশাপাশি শিশুরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। তবে দুপুর সোয়া ১২টার দিকে জাহাজের একটি ইঞ্জিন সচল হলে এটি ধীরে ধীরে সেন্ট মার্টিনের দিকে রওনা দেয়। বেলা একটা পর্যন্ত জাহাজটি সাগরে ছিল বলে জানান তাঁরা।

 

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) সূত্র জানায়, গত ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে এমভি বার আউলিয়া নামক জাহাজ পরীক্ষামূলকভাবে চালু হয় এই নৌপথে। এরপর কেয়ারি সিন্দাবাদ ও কেয়ারি ক্রুজ অ্যান্ড ডাইন প্রতিদিন পর্যটক পরিবহন করে আসছে। আরও কয়েকটি জাহাজ এ নৌপথে অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে।

 

একুশে সংবাদ/ম.হ.প্র/জাহা

Link copied!