AB Bank
ঢাকা সোমবার, ২৪ জুন, ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

ম্যাচ শেষে বাটলারকে শাহরুখের উষ্ণ আলিঙ্গন


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
১১:৫৪ এএম, ১৭ এপ্রিল, ২০২৪
ম্যাচ শেষে বাটলারকে শাহরুখের উষ্ণ আলিঙ্গন

২০২৪ আইপিএলের রোমাঞ্চকর ৩১তম ম্যাচে রাজস্থান রয়্যালস ২ উইকেটে হারিয়ে দেয় কলকাতা নাইট রাইডার্সকে। সেই সঙ্গে তারা শীর্ষস্থান আরও মজবুত করেছে। ৭ ম্যাচের মধ্যে এটি রাজস্থানের ষষ্ঠ জয়। অন্যদিকে ৬ ম্যাচ খেলে, কলকাতার এটি দ্বিতীয় পরাজয়। ইডেন গার্ডেন্সে অনুষ্ঠিত এই ম্যাচটি শেষ বল পর্যন্ত গড়ায়। তবে ২২৩ রান করার পরেও, সেটা ডিফেন্ড করতে ব্যর্থ হয় কেকেআর।

রাজস্থান রয়্যালসের তারকা ব্যাটার জোস বাটলারের বিস্ফোরক ইনিংসটিই কেকেআর-কে পরাজয়ের দিকে ঠেলে দিয়েছিল। ৬০ বলে বাটলারের ১০৭ রানের অপরাজিত ইনিংসই হয়ে ওঠে কেকেআরের হারের মূল কারণ। এই ভাবে ম্যাচ হারায় কেকেআর ভক্তরা স্বাভাবিক ভাবেই হতাশ। তবে ম্যাচের পরে দলের কর্ণধার শাহরুখ খান যা করলেন, তা সকলের মন ছুঁয়ে গিয়েছে। আর সেই ভিডিওটিও রীতিমতো ভাইরাল হয়েছে।

ম্যাচ শেষ হওয়ার পর শাহরুখ খান মাঠে নেমে আসেন। তিনি কেকেআর-এর প্লেয়ারদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। শুধু নিজের দলের প্লেয়ারই নয়, তিনি রাজস্থান রয়্যালসের ম্যাচ জয়ী ইনিংস হাঁকানো ব্যাটসম্যান জোস বাটলারের সঙ্গেও দেখা করেন। শাহরুখ তাকে জড়িয়ে ধরে পিঠ চাপড়ে দেন। এবং তাঁর চমৎকার পারফরম্যান্সের জন্য বাটলারকে প্রশংসায় ভরান কিং খান। শাহরুখের এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল হয়েছে। ভক্তরাও প্রচুর মন্তব্য করছেন। এক নেটিজেন লিখেছেন, ‘জস বাটলারের প্রশংসা করছেন শাহরুখ। সত্যিই তিনি ভারতের সবচেয়ে নম্র সুপারস্টার।’

শাহরুখ খান তার দল কলকাতা নাইট রাইডার্সকে সমর্থন করতে প্রায় প্রতিটি ম্যাচেই স্টেডিয়ামে উপস্থিত থাকছেন। তিনি ম্যাচের শেষ পর্যন্ত স্ট্যান্ডে উপস্থিত থাকেন এবং দলের জন্য গলা ফাটান। দলের শেষ ম্যাচেও তাকে মেয়ে সুহানা খান এবং ছোট ছেলে আব্রাম খানের সঙ্গে স্ট্যান্ডে দেখা গিয়েছিল। লখনউ সুপার জায়ান্টসের বিরুদ্ধে সেই ম্যাচে সুহানা খানের সঙ্গে ম্যাচ দেখতে এসেছিলেন বলিউড অভিনেত্রী অনন্যা পান্ডেও।

কেকেআর এদিন প্রথমে ব্যাট করে ২২৩ রান করে। ২২৪ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে রাজস্থানের ১৩তম ওভার শেষে সংগ্রহ ছিল ৬ উইকেটে ১২৫ রান। সেখান থেকে বাটলার দায়িত্ব নিয়ে ম্যাচের রং বদলে দেন। শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় রাজস্থান। এটি আইপিএলের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জয়ের নজির।

আর এই জয়ের সুবাদে চার বছর আগে শারজায় যে নজির গড়েছিল রাজস্থান, সেই নজির স্পর্শ করে ফেলল তারা। ২০২০ সালের আইপিএলে প্রথমে ব্যাটিং করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ২ উইকেটে ২২৩ রান তুলেছিল কিংস ইলেভন পাঞ্জাব (বর্তমানে পাঞ্জাব কিংস)। তিন বল বাকি থাকতেই ছয় উইকেটে ২২৬ রান তুলে ম্যাচ জিতে গিয়েছিল আরআর ব্রিগেড।


একুশে সংবাদ/এস কে

Link copied!