AB Bank
ঢাকা শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

নেপালের সামনে পাকিস্তানের রানের পাহাড়


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
০৭:৩০ পিএম, ৩০ আগস্ট, ২০২৩
নেপালের সামনে পাকিস্তানের রানের পাহাড়

অধিনায়ক বাবর আজম ও ইফতিখার আহমেদের জোড়া সেঞ্চুরিতে আজ থেকে শুরু হওয়া এশিয়া কাপের ১৬তম আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে নেপালের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করে ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ৩৪২ রানের পাহাড় গড়েছে পাকিস্তান। বাবর ১৫১ ও ইফতিখার অপরাজিত ১০৯ রান করেন।

 

মুলতানে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নেন পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর। প্রথমে ব্যাট করার সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি পাকিস্তানের দুই ওপেনার ফখর জামান ও ইমাম উল হক। সপ্তম ওভারে ২৫ দলীয় রানের মধ্যে বিদায় নেন তারা। ফখর ১৪ ও ইমাম ৫ রান করেন।

 

শুরুর ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে জুটি বাঁধেন বাবর ও মোহাম্মদ রিজওয়ান। নেপালের বোলারদের সামনে প্রতিরোধ গড়ে ২২তম ওভারে দলের রান ১শতে নেন বাবর-রিজওয়ান।

 

২৪তম ওভারে দলীয় ১১১ রানে রিজওয়ান রান আউট হলে ব্রেক-থ্রু পায় নেপাল। ৫০ বলে ৪৪ রান করেন রিজওয়ান। বাবরের সাথে তৃতীয় উইকেটে ১০৬ বলে ৮৬ রান যোগ করেন তিনি।

 

এরপর ক্রিজে এসে ৫ রানের বেশি করতে পারেননি আগা সালমান। দলীয় ১২৪ রানে সালমান ফেরার পর ক্রিজে বাবরের সঙ্গী হন ইফতিখার। দলের স্কোর শক্ত করার পাশাপাশি ইনিংস বড় করেন দু’জনেই।  ৪২তম ওভারে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ১৯তম সেঞ্চুরি তুলতে ১০৯ বল খেলেন বাবর। ইনিংস  (১০২) হিসেবে দ্রুত ১৯তম সেঞ্চুরির মালিক হলেন বাবর।

 

শ্রীলংকার মাহেলা জয়াবর্ধনে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্রায়ান লারা ও অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড ওয়ার্নারের সমান ১৯তম সেঞ্চুরির মালিক হলেন বাবর।

 

সেঞ্চুরির পর নেপালের বোলারদের উপর চড়াও হন বাবর-ইফতিখার দু’জনেই। ৪৭তম ওভারে দলের রান ৩শতে নেন তারা। ৪৯তম ওভারের পঞ্চম বলে ১৫তম ওয়ানডেতে প্রথম সেঞ্চুরির স্বাদ নেন ইফতিখার। ৬৭ বল মোকাবেলায় শতক হাকিয়ে  এশিয়া কাপে দ্রæততম সেঞ্চুরিতে চতুর্থস্থানে জায়গা করে নেন  ইফতিখার।  

 

শেষ ওভারের চতুর্থ বলে বাবরকে বিদায় দেন পেসার সমপাল কামি। ১৪টি চার ও ৪টি ছক্কায় ১৩১ বলে ১৫১ রান করেন বাবর। পঞ্চম উইকেটে ইফতিখারের সাথে ১৩১ বলে ২১৪ রানের জুটি গড়েন বাবর। ওয়ানডেতে পাকিস্তানের হয়ে পঞ্চম উইকেটে এটিই সর্বোচ্চ রানের জুটি। পঞ্চম উইকেটে আগেরটি ২০০৯ সালে কলম্বোতে শ্রীলংকার বিপক্ষে ১৭৬ রান করেছিলেন ইউনুস খান ও উমর আকমল।

 

শেষ পর্যন্ত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ৩৪২ রানের পাহাড় গড়ে পাকিস্তান। যা এশিয়া কাপে দলটির  তৃতীয় সর্বোচ্চ রান ।  ঝড়ো গতিতে ব্যাট চালিয়ে  ইনিংসের শেষ ১০ ওভারে ১২৯ রান তোলেন  বাবর-ইফতিখার।

 

১১টি চার ও ৪টি ছক্কায় ১০৯ রানে অপরাজিত থাকেন ইফতিখার। নেপালের কামি ৮৫ রানে ২ উইকেট নেন।

 

একুশে সংবাদ/স ক  

Link copied!