ঢাকা রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

তানহা তাসনিয়া নয়, "একাত্তরের তারামন" সিনেমায় নতুন মুখ অপর্ণা কির্ত্তনীয়া


Ekushey Sangbad
একুশে সংবাদ ডেস্ক
০৭:৪১ পিএম, ১১ নভেম্বর, ২০২১
তানহা তাসনিয়া নয়,

বীর প্রতীক তারামন বিবির জীবনের আলোকে মুক্তিযুদ্ধে নারীদের অবদান নিয়ে নির্মিত হচ্ছে চলচ্চিত্র ‘তারামন’। সিনেমাটির নাম ভূমিকায় অভিনয় করবেন চিত্রনায়িকা তানহা তাসনিয়া। এটি নির্মাণ করবেন আমিনুর ইসলাম লিটন।

সিনেমাটির গবেষণা, মূলভাবনা ও চিত্রনাট্য করেছেন ষড়ৈশ্চর্য মুহম্মদ। সিনেমার উপদেষ্টা হিসেবে থাকছেন নাসির উদ্দীন ইউসুফ বাচ্চু। গেল ৩ নভেম্বর সংবাদ সম্মেলন করে সিনেমাটির ঘোষণা দেওয়া হয়।

নতুন এ সিনেমার ঘোষণা আসার পর ‘তারামন’ নিয়ে লিগ্যাল নোটিশ দিয়েছেন সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী আরিফ হোসাইন তালুকদার। শাহরাজ হোসেন আমীরের পক্ষে সর্ব সাধারণের অবগতির জন্য এ নোটিশ দিয়েছেন তিনি।

৮ নভেম্বর জারি করা নোটিশে বলা হয়, বীর প্রতীক তারামন বিবি তার আত্মজীবনী প্রকাশ ও প্রচারের লক্ষে একটি চুক্তি সম্পন্ন করেছেন। ২০১৩ সালে ২৫ জুলাই শাহরাজ হোসেন আমীরের সঙ্গে এ চুক্তিটি করা হয়। চুক্তি অনুযায়ী চলচ্চিত্রের নাম ‘একাত্তরের তারামন’। এতে অভিনয় করবেন নতুন মুখ অপর্না কির্তনিয়া। যার স্বত্বাধকারী শাহরাজ হোসেন আমীর। পরবর্তীতে তারামন বিবিকে নিয়ে অন্য কেউ সিনেমার নির্মাণ করলে তা আইন পরিপন্থি হবে। তাই তারামন বিবিকে নিয়ে চলচ্চিত্র, নাটক, টেলিফিল্ম নির্মাণ করা থেকে সংশ্লিষ্টদের বিরত থাকার অনুরোধ করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে ‘তারামন’ সিনেমার পরিচালক আমিনুর ইসলাম লিটনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি লোক মারফত নোটিশের ব্যাপারে জেনেছি, কিন্তু নোটিশ হাতে পাইনি। আমি যতটুকু জানি ‘একাত্তরের তারামন’ সিনেমা আর আমাদের ‘তারামন’ সিনেমার গল্পের প্লট আলাদা। ওই সিনেমাটি ছিল তারামান বিবির আত্মজীবনী। কিন্তু আমাদের সিনেমাতে মুক্তিযুদ্ধে নাম জানা, অজানা বীর নারীদের অবদান তুলে ধরা হবে। এখানে শুধু তারামন বিবিই না, আরও অনেক নারী মুক্তিযোদ্ধার গল্প থাকবে। গল্পে প্লট আলাদা হলে নির্মাণে কোনো জটিলতা থাকার কথা না।

লিটন আরও বলেন, ‘একাত্তরের তারামন’ সিনেমার জন্য চুক্তি করা হয়েছিল প্রায় দশ বছর আগে। তখন তারামন বিবি জীবিত ছিলেন। তার ইচ্ছা ছিল সিনেমাটি দেখে যাওয়ার। কিন্তু এখন তিনি জীবিত নেই। সে ক্ষেত্রে আশা করি কোনো জটিলতা হবে না।

এদিকে, তারামন বিবির সঙ্গে চুক্তিকারী শাহরাজ হোসেন আমীর বলেন, তারামন বিবির ছেলে তাহের এবং মুক্তিযুদ্ধের কমান্ডার আবদুল হাইসহ অনেকের সঙ্গে আমার যোগাযোগ আছে। আসছে ডিসেম্বরে সিনেমাটির কাজ শুরু করব। তারামন বিবি বেঁচে থাকা অবস্থায় আমি তার স্পটগুলোতে একাধিকবার ভিজিট করেছি। খুব বাস্তবভিত্তিক করে সিনেমাটি বানানোর চেষ্টা করছি। নতুন সিনেমার যে ঘোষণা তারা দিয়েছেন তারামন বিবি বা তার পরিবারের কাছ থেকে তারা কোনো অনুমতিই নেননি।

গল্পের প্লট ভিন্ন হলেও কী কোনো জটিলতা হবে? জানতে চাইলে আইনজীবী আরিফ হোসাইন তালুকদার বলেন, চুক্তি অনুযায়ী কোনো জটিলতা নেই। কিন্তু শাহরাজ হোসেন আমীর চুক্তির সঙ্গে এফিডেভিটও করেছেন। যেটার স্বাক্ষী ছিলেন তারামন বিবির ছেলে। তিনি যদি আপত্তি দেন তাহলে শাহরাজ হোসেন আমীর ছাড়া অন্য কেউ সিনেমা বানাতে পারবেন না।

সংবাদ সম্মেলনে পরিচালক আমিনুর ইসলাম লিটন জানিয়েছিলেন, ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহ কিংবা জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে কুড়িগ্রামে তারামন বিবির গ্রামের বাড়িতে সিনেমাটির শুটিং হবে।

এতে তানহা ছাড়া আরও অভিনয় করবেন- মোমেনা চৌধুরী, শাহানশাহ উল হক, রুহুল আমিন তুহিন, সোনিয়া আকতার প্রমুখ। সারভাইভ মিডিয়া ও ডিসেন্ট ইন্টারন্যাশনালের কারিগরি সহযোগিতায় সিনেমাটি প্রযোজনা করছে আরশিনগর ও উজান। ২০২২ সালের ডিসেম্বরে বিজয় দিবসে সিনেমাটি মুক্তি দিতে চান পরিচালক।

একুশে সংবাদ / আরিফ