AB Bank
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী
উপজেলা নির্বাচন

ভাঙ্গায় দোয়াত কলম ও ঘোড়া প্রতীকে লড়াইয়ের আভাস


ভাঙ্গায় দোয়াত কলম ও ঘোড়া প্রতীকে লড়াইয়ের আভাস

ভাঙ্গায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ২৯ মে। এ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১৫ জন প্রার্থী। চেয়ারম্যান পদে স্বামী স্ত্রী সহ পাঁচজন প্রার্থী রয়েছেন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী রয়েছেন ৬ জন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে চারজন প্রার্থী রয়েছে। 

এদের মধ্যে তিনবারের আলোচিত সাংসদ মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন সমর্থিত চেয়ারম্যান পদে  প্রার্থী হয়েছেন আলহাজ্ব মোঃ কাওছার ভূঁইয়া যার প্রতীক দোয়াতকলম। 

 বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার কাজী জাফর উল্লাহ তিনি সমর্থন দিয়েছেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মুখলেছুর রহমান সুমনকে, তার প্রতীক ঘোড়া।  তার স্ত্রী লোপা রহমানের প্রতীক আনারস।

 লায়ন শহিদুল ইসলাম তার প্রতীক মোটরসাইকেল, মাইনুল ইসলাম খান রিপন তার প্রতীক কৈ মাছ। 

 তবে সাধারণ ভোটাররা জানিয়েছেন দোয়াত কলম ও ঘোড়ার মাঝে লড়াইয়ের আভাস পাওয়া গেছে।

সাধারণ ভোটাররা তারা যোগ্য ব্যক্তি দেখেই এবারের ভোট দিবেন বলে জানান। 

নির্বাচনের শেষ মুহূর্তে প্রার্থী ও তাদের কর্মী সমর্থকরা উপজেলার একপ্রান্ত থেকে অন্যপ্রান্তে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করতে দিনরাত ছুটে চলেছেন। 

বিভিন্ন তথ্য সূত্রে গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে ভালো একটা অবস্থানে রয়েছেন নিক্সন চৌধুরীর সমর্থক  দোয়াতকলম প্রতীক নিয়ে কাওছার হোসেন ভূঁইয়া। দীর্ঘদিন তিনি আলগি ইউনিয়নের দুই দুইবার ইউপি চেয়ারম্যান থাকায় তার বেশ ক্লিন ইমেজ রয়েছে তার ইউনিয়নে। ভাঙ্গা উপজেলার মধ্যে সবচেয়ে ভোটার বেশি তার ইউনিয়নে।  নিক্সন চৌধুরীর তৃণমূল সমর্থকরা তাদের নিজের পকেটের পয়সা খরচ করে তার জন্য প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। উপজেলার প্রতিটি গ্রামের বড় অংশটি নিক্সন চৌধুরীর দখলে রয়েছে। অন্যদিকে নিক্সন চৌধুরী সবেমাত্র তৃতীয়বার এমপি হয়েছেন উন্নয়ন তার হাতে  সেই দিক দিয়ে বিবেচনা বিশ্লেষকে নিক্সন চৌধুরীর সমর্থক কাওছার ভূইয়া এগিয়ে রয়েছেন বলে বিশ্লেষকরা জানান। 

অন্যদিকে কাজী জাফর উল্লাহর সমর্থক মোখলেছুর রহমান সুমন তিনিও উপজেলা আওয়ামী লীগের সমর্থন পেয়েছেন। তিনি তৃণমূল আওয়ামীলীগের একটি অংশ তার দখলে। তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। নির্বাচনের আগে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আকরামুজ্জামান রাজা তিনি দলের গোপন অডিও কথোপকথন ফাস  হওয়ায় নিষ্ক্রিয় করে রেখেছেন দলটি তাকে।

সেই দিক দিয়ে আকরামুজ্জামান রাজার গোপন কিছু সমর্থক আছে তারা হয়তো দলের বিরোধিতার কারণে ভোটের মাঠে তার কিছু প্রভাব পড়বে।

আবার মোখলেসুর রহমান সুমন তিনি রাজনীতিতে নতুন মুখ, তার ইউনিয়ন টি তুলনামূলক অনেক ছোট, তার ইউনিয়নে বড় একটি অংশ তার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন। গ্রামবাসীর সঙ্গে রগ কাটার দুইটি মামলার প্রধান আসামি সুমন। নির্বাচনে তার একটা বিরাট প্রভাব পড়তে পারে। যদি গ্রাম গোছাতে ব্যর্থ হন তাহলে এর মাশুল তাকে দিতে হবে এমনই মন্তব্য করেন অনেকে। সেই দিক দিয়ে মোখলেছুর রহমান সুমন পিছিয়ে রয়েছেন।

ভাঙ্গা উপজেলায় তৃতীয় ধাপের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২৯ মে । এ উপজেলায় ৯৯ টি কেন্দ্রে ৫৯৮টি বুথ থাকবে, মোট পুরুষ ভোটার সংখ্যা এক লক্ষ ২২ হাজার বারোটি, মহিলা ভোটার সংখ্যা এক লক্ষ ১৪ হাজার ২৩ টি, হিজলা ভোটার সংখ্যা তিনটি, মোট ভোটার সংখ্যা ২ লক্ষ ৩৬ হাজার ৩৮ টি। এ উপজেলায় ব্যালটের মাধ্যমে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে নিশ্চিত করেন নির্বাচন অফিসার হাচেন উদ্দিন।

এ বিষয়ে উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা বিএম কুদরত-এ খুদা জানান,ভাঙ্গা  উপজেলায় অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে সব রকমের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।

 

একুশে সংবাদ/বিএইচ

Link copied!