AB Bank
ঢাকা মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

সোনারগাঁয়ে তাঁতশ্রমিক মিরাজ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার ২


সোনারগাঁয়ে তাঁতশ্রমিক মিরাজ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার ২

নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁয়ে তাঁতশ্রমিক মিরাজ (১৬) হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

গতকাল বুধবার রাতে উপজেলার বরগাঁও এলাকায় অভিযান চালিয়ে র‌্যাব-১১ এর সদস্যরা তাদের গ্রেপ্তার করেন।

এরা হলেন- হত্যা মামলার প্রধান আসামি মো. লোকমান হোসেন (৪৫) ও তার সহযোগী আসামি মো. লিটন মিয়া (২৪)। তাদের সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।  

হত্যাকাণ্ডের শিকার মিরাজ ভোলা জেলার শিবপুর গ্রামের মো. মাইন উদ্দিনের ছেলে। সে গত ১৫ মে নিখোঁজ হয়। ১৭ মে শুক্রবার সকালে বরগাঁও এলাকার একটি ডোবা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) দুপুরে র‌্যাব-১১ এর মিডিয়া অফিসার এএসপি মো. হাম্মাদ হোসেনের স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব জানায়, উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের বরগাঁও এলাকার তাঁতমালিক লোকমান হোসেনের বাড়িতে বসবাস করে শ্রমিক মিরাজ (১৬) শাড়ি বোনার কাজ করতো। গত ১৫ মে বুধবার রাতের খাবার খাওয়া শেষে মিরাজ তার রুমে যায়। এরপর থেকে তার খোঁজ মিলছিল না। বিষয়টি মিরাজের পরিবারের কাউকে জানাননি তাঁতমালিক লোকমান। পরে ১৭ মে বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে লোকমান নিখোঁজ মিরাজের বাবাকে মোবাইল ফোনে কল করে জানান, বরগাঁও এলাকায় করিমের বাড়ির পাশে ডোবায় মিরাজের লাশ পাওয়া গেছে। 
খবর সোনারগাঁ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

এ ঘটনায় তাঁতশ্রমিক মিরাজের বাবা মো. মাঈন উদ্দিন বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলাটি র‌্যাব-১১ এর গোয়েন্দা টিম তদন্ত করে তথ্যের ভিত্তিতে গত বুধবার রাতে বরগাঁও এলাকায় অভিযান চালিয়ে তদন্তে প্রাপ্ত প্রধান আসামি লোকমান হোসেন ও তার ভাই লিটনকে গ্রেপ্তার করে।  

লোকমান ও লিটন বরগাঁও গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। 

 

একুশে সংবাদ/বিএইচ

Link copied!