AB Bank
ঢাকা শুক্রবার, ২৪ মে, ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

সান্তাহারে তৃষ্ণার্তদের ফ্রীতে গরীবের রাজার শরবত বিতরণ


Ekushey Sangbad
আদমদীঘি উপজেলা প্রতিনিধি, বগুড়া
০৬:০৯ পিএম, ২৮ এপ্রিল, ২০২৪
সান্তাহারে তৃষ্ণার্তদের ফ্রীতে গরীবের রাজার শরবত বিতরণ

একদিকে তীব্র গরম  ও তাপপ্রবাহ অন্যদিকে ট্রেন নিদিষ্ট সময় থেকে চলছে কয়েক ঘন্টা করে বিড়ম্বে। যার কারণে প্লাটফর্মে অপেক্ষামান যাত্রীরা পড়ছে নানা বিপাকে। সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়ছে গরমের কারণে। আর এইসব ট্রেন যাত্রীদের মাঝে ফ্রীতে শরবত ও পানি বিতরন করছে বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহারের গরীবের রাজা নামে পরিচিত এক সমাজসেবী।গরীবের রাজা নামে খ্যাত আজিজুর হক রাজা তীব্র গরমে ট্রেন যাত্রী, পথশিশু, কুলি, স্টেশনে অপেক্ষা করা দিন মজুর ও  পথচারীদের মাঝে বিনামূল্যে শরবত বিতরণ করছে। 

রবিবার (২৮ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলার সান্তাহার স্টেশনের প্লাটফর্মগুলোতে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় প্লাটফর্মে অবস্থানরত বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের মধ্যে এই ঠান্ডা শরবত বিতরণ করেছেন গরীবের রাজা। শরবত বিতরণ কাজে সার্বিক সহযোগিতা করছেন তার সহযোগী রানা খান।

ট্রেনের জন্য অপেক্ষামান যাত্রী জান্নাত ফেরদৌস জানান, ট্রেন লেট থাকায় আর তীব্র গরম থাকায় স্টেশনে অপেক্ষা করতে খূব কষ্ট হয়। এই কষ্ট আরও বেড়ে যায় তৃষ্ণা পেলে। প্রতি বোতল পানি সর্বনি¤œ ১৫ টাকা আর জুসের বোতল ৩০ টাকা। পানি বা জুস আর কতই কিনে খাওয়া যায়। যাত্রীদের জন্য এই শরবতের ব্যবস্থাতে করাতে অনেকটা সস্তি পাচ্ছে যাত্রীরা। 

স্টেশনের কুলি আজমল আলী জানান, কর্মের জন্য বাহিরে আসতেই হয়। এই প্রচন্ড গরমে আমাদের কাজ করতে খুব সমস্যা হচ্ছে। শরীরে ঘাম ঝরে গলা শুকিয়ে যায়। গরীবের রাজার এমন ব্যতিক্রম উদ্যোগে আমরা এই ঠান্ডা শরবত বিনামূল্যে পান করতে পারি।

পথশিশু আরিফ হোসেন জানান, রাজা ভাই আমাদের নিয়মিত খাওয়ার ব্যবস্থা করে। গরমে খুব তৃষ্ণা লাগে আমরা পানি ঠিক মত পাই না আর শরবত কিনতে পারি না। এই ঠান্ডা লেবুর শরবত খেয়ে শরীরে স্বস্তি ফিরে।

এ বিষয়ে গরীবের রাজা জানান, কয়েকদিন ধরে বাড়ছে তাপপ্রবাহ। তীব্র গরমে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে জনসাধারণ। বিশেষ করে দিনমজুর খেটে খাওয়া মানুষেরা পড়ছে চরম বিপাকে।ট্রেনের জন্য অপেক্ষা প্রচন্ড গরমে তৃষ্ণার্ত হচ্ছেন যাত্রীরা। এতে করে হিটস্ট্রোকের সম্ভবনা রয়েছে। তাদের কথা ভেবেই গুড় ও লেবুর মিশ্রিত ঠান্ডা শরবত তৈরি করে বিনামূল্য তা খাওয়ার ব্যবস্থা করে দিচ্ছি তৃষ্ণাত্বদের।

 

একুশে সংবাদ/বিএইচ

Link copied!