AB Bank
ঢাকা বুধবার, ২২ মে, ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

কেন্দুয়ায় ত্রিমোহনী ঘাটে অষ্টমী স্নানে হিন্দু  পুণ্যার্থীদের ঢল


Ekushey Sangbad
আশরাফ গোলাপ, কেন্দুয়া, নেত্রকোনা
০৩:৫৫ পিএম, ১৬ এপ্রিল, ২০২৪
কেন্দুয়ায় ত্রিমোহনী ঘাটে অষ্টমী স্নানে হিন্দু  পুণ্যার্থীদের ঢল

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার কান্দিউড়া  ইউনিয়নের গোগবাজার এলাকায় ত্রিমোহনী ঘাটে যথাযথ ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ২৫তম মহা অষ্টমী স্নান অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

মঙ্গলবার  ( ১৬ এপ্রিল ) সকাল থেকে বিকেল ৪টা ২০ মিনিট পর্যন্ত এ মহা অষ্টমী স্নান অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে গোগবাজার এলাকায় দিনব্যাপী বসে বারুণীমেলা। এতে দেশীয় নানারকম পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসেন ব্যবসায়ীরা। 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গোগবাজার এলাকায় সাইডুলি, পাটেশ্বরী ও রাজেশ্বরী এই তিনটি নদী একত্রে মিলিত হয়েছে। আর গত ২৫ বছর ধরে এই ত্রিমোহনীতে মহা অষ্টমী স্নানের আয়োজন করে আসছেন উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদ। 

এ অষ্টমী স্নানে অংশ নিতে কেন্দুয়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ছাড়াও পার্শ্ববর্তী ঈশ্বরগঞ্জ, গৌরীপুর, আটপাড়া, মদন ও তাড়াইল উপজেলার পূণ্যার্থীরা ছুটে আসেন। এদিকে নির্বিঘ্নে এ মহা অষ্টমী স্নান সম্পন্ন করতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক দলের নের্তৃবৃন্দ ও কেন্দুয়া থানা পুলিশের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। 

উপজেলা পূজা উৎযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সজল সরকার বলেন সকালে অত্যন্ত উৎসবমুখর পরিবেশে অষ্টমী স্নান অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং দিনব্যাপী বারুণীমেলা চলছে।তিনি আরো বলেন সরকারি ভাবে এখানে ঘাট ও জায়গার ব্যবস্থা করলে গোগ বাজারটি হিন্দু পুণ্যার্থীদের জন্য আরো প্রসিদ্ধ হয়ে উঠবে।

উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অনিল চন্দ্র ভদ্র জানান, প্রতি বছরের মতো এবারও আমরা অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ ভাবে উৎসবমুখর পরিবেশে মহা অষ্টমী স্নান সম্পন্ন করতে পেরেছি। এ জন্য যারা আমাদের সহযোগিতা করেছেন তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।

কান্দিঊড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাহবুব আলম বাবুল বলেন গত ২৫ বছর যাবত গোগ বাজারের ত্রিবেণী ঘাটে অষ্টমী স্নান অনুষ্ঠিত হচ্ছে।তিনি আরো জানান আমার পক্ষ থেকে এখানে একটি স্থায়ী ঘাট ও জায়গার বরাদ্দ দেয়ার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা থাকবে।

 

একুশে সংবাদ/বিএইচ

Link copied!