ঢাকা শুক্রবার, ১২ আগস্ট, ২০২২, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

লক্ষ্মীপুরে শিক্ষক পরিবারের উপর ফের হামলা আহত- ১


Ekushey Sangbad
জেলা প্রতিনিধি, লক্ষিপুর
০১:২০ পিএম, ৫ জুলাই, ২০২২
লক্ষ্মীপুরে শিক্ষক পরিবারের উপর ফের হামলা আহত- ১
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার ১৪ নং মান্দারী ইউনিয়নের রতনপুরে কিশোর গ্যাং এর হামলা এবং স্বর্ণা-অলংকার লুটের জন্য মামলা এবং থানায় (জিডি) করায় খবর পেয়ে ফের শিক্ষক পরিবারের উপর হামলা করেছে কিশোর গ্যাং। হামলায় গুরুতর আহত আরজু বেগমকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

গত ২৯ জুলাই রাতে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার ১৪ নং মান্দারী ইউনিয়নের রতনপুর গ্রামের দানিছ মিঝি বাড়িতে ঘটনা ঘটে বলে জানান শিক্ষক পরিবারের সদস্যরা।

নরসিংহপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মনির হোসেন বলেন, গত ২৫ জুন আমাদের বাসায় হামলা করে শিশুসহ ৩ নারীকে আহত এবং স্বর্ণা-অলংকার লুট করে নিয়ে যায় স্থানীয় কিশোর গ্যাং এর সক্রিয় সদস্য রবিউল, রকি,তুষার, জিদান রনিসহ তাদের পরিবারের অন্য সদস্যরা। পরে এ ঘটনায় ২৭ জুন ল²ীপুর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করি এবং ২৮ জুন আমি চন্দ্রগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করি। এরই জের ধরে তারা পুনরায় হামলা করে। বর্তমানে তাদের ভয়ে আমি পরিবার পরিজন ও বৃদ্ব বাবা মাকে নিয়ে আমরা নিরাপত্তাহীনতায় আছি।

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধিন আরজু বেগম বলেন, গত ২৯ জুন বিকেলে আমি হাসপাতাল থেকে বাড়িতে আসি। ৩০ জুন রাতে আমার শশুরের ঘর থেকে নিজের ঘরে যাওয়ার সময় মাসুদ সহ তারা আমাকে এলোপাথাড়ি মারতে থাকে আমি অচেতন হয়ে যাই। যখন আমার জ্ঞান আসে তখন আমি হাসপাতালের বিছানায়।

প্রসঙ্গত,গত ২৫ জুন তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিক্ষকের পরিবারের উপর সন্ত্রাসীকায়দায় হামলা করে শিশুসহ তিন নারীকে পিটিয়ে আহত এবং স্বর্ণা-অলংকার লুট করে নিয়ে যায় স্থানীয় কিশোর গ্যাং এর সক্রিয় সদস্য রবিউল, রকি,তুষার, জিদান রনিসহ আরো কয়েকজন। এই ঘটনায় আরজু বেগম, জেসমিন আক্তার, বিবি রহিমাসহ সাড়ে তিন বছরের শিশু রাফিকে পিটিয়ে আহত করে তারা। আহত সকলকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এর মধ্যে আরজু বেগমের অবস্থার অবনতি হলে তাকে ওই রাতেই (২৫ জুন) নোয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। ২৭ জুন শিক্ষক মনির হোসেন তাদের বিরুদ্ধে লক্ষ্মীপুর চীপ জুডিশিয়াল ম্যাজেস্ট্রেট আদালতে মামলা এবং ২৮ জুন চন্দ্রগঞ্জ থানায় সাধারন ডায়েরী করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ৩০ জুন তারা আরজু বেগমের উপর হামলা করে। এরই মধ্যে ২৯ জুন বিকেলে আরজুকে হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা শেষে বাড়িতে নিয়ে আসে।

৩০ জুন সন্ধ্যা ৭.৩০ মিনিটের সময় অসুস্থ আরজু বেগম শশুরের ঘর থেকে পাশেই নিজের ঘরের যাওয়ার পথে পূনরায় হামলা করে কিশোর গ্যাং এর সদস্যরা। বর্তমানে এই কিশোর গ্যাং এর হুমকিতে ভয়ে আতঙ্কে দিন যাচ্ছে জানায় শিক্ষক পরিবারের সদস্যরা।

 

 

একুশে সংবাদ/র.খা/এস.আই