ঢাকা রবিবার, ০১ আগস্ট, ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

ড্রেন-নর্দমা পরিষ্কার কার্যক্রম পরিদর্শনে মেয়র তাপস


Ekushey Sangbad
একুশে সংবাদ ডেস্ক
০৩:১৩ পিএম, ২৩ জুন, ২০২১
ড্রেন-নর্দমা পরিষ্কার কার্যক্রম পরিদর্শনে মেয়র তাপস

বুধবার (২৩ জুন) মালিবাগ রেলগেট সংলগ্ন ড্রেন-নর্দমা পরিষ্কারকরণ কার্যক্রম পরিদর্শন করেছেন ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

রাজধানীর জলাবদ্ধতা দূর করতে খাল, ড্রেন, নর্দমা, জলাশয় পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমে জোর দিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। যদিও বৃষ্টি হলেই জলাবদ্ধতার ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে ডিএসসিসি এর নগরবাসীকে, যে কারণে তাদের অভিযোগেরও শেষ নেই। ওয়াসার দায়িত্বে থাকা সব নালা ও খাল দুই সিটি করপোরেশনের কাছে হস্তান্তর করার পর থেকে জলাবদ্ধতা কেন্দ্রীক সব দায়ভার এসে পড়েছে সিটি করপোরেশনের ওপর। এই অবস্থায় জলাবদ্ধতা দূর করতে খাল, ড্রেন, নর্দমা, জলাশয় পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমে জোর দিয়েছে ডিএসসিসি।

পরিদর্শনে এসে তিনি সংশ্লিষ্টদের কড়া নির্দেশনা দিয়ে মেয়র বলেন, জলাবদ্ধতা দূর করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে আমাদের। ড্রেন নর্দমায় কোনো আবর্জনা বা অপরিচ্ছন্নতার জন্য যেন পানি প্রবাহ বাধাগ্রস্ত না হয়। বৃষ্টির হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে যেন পানি নেমে যেতে পারে সেই ব্যবস্থা আমাদের করতে হবে।

মেয়র তাপস বলেন, যেসব ঠিকাদার অবকাঠামোগত কাজ করছেন তারা যেন ভালোভাবে কাজ করেন সে বিষয় মনিটরিং করা হবে। কাজের কোনো গাফলতি পেলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ড্রেনের পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম সঠিকভাবে না করলে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হবে, তাই ড্রেনের লাইনে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম পরিচালনা করে পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা ঠিক করতে ডিএসসিসি সর্বোচ্চ গুরুত্ব সহকারে কাজ করে যাচ্ছে বলে জানান মেয়র।

এদিকে ডিএসসিসির বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ সূত্র থেকে জানা গেছে, গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর সিটি করপোরেশন ওয়াসার কাছ থেকে দায়িত্ব বুঝে নেওয়ার পর চলতি বছরের ২ জানুয়ারি থেকে জিরানি, মান্ডা, শ্যামপুর, কালুনগরসহ খালগুলোর শাখা-প্রশাখা এবং পান্থপথ ও সেগুনবাগিচা বক্স কালভার্ট থেকে বর্জ্য অপসারণ কার্যক্রম শুরু করেছে ডিএসসিসি। এরইমধ্যে এসব খাল ও বক্স কালভার্ট থেকে ১ লাখ ৩৫০০ টনের বেশি বর্জ্য ও ৬ লাখ ৭৯ হাজার টন পলি অপসারণ করা হয়েছে। এছাড়াও ওয়াসার কাছ থেকে বুঝে পাওয়া অচল দুটি পাম্প স্টেশনের তিনটি পাম্প মেশিন সচল করা গেছে। বাকি তিনটি সচল করতে জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তারা। এছাড়াও ওয়াসার কাছ থেকে পাওয়া বন্ধ নর্দমা ও ডিএসসিসির উন্মুক্ত নর্দমাগুলো পরিষ্কারের কাজ চলমান রেখেছে। এজন্য প্রায় ১০৩ কোটি টাকার অবকাঠামো উন্নয়নের কার্যক্রম হাতে নিয়েছে ডিএসসিসি।

অন্যদিকে দীর্ঘদিন দখলে থাকা ঢাকা মহানগরীর নিম্নাঞ্চলের জলপ্রবাহের জায়গা পুনরুদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করেছে ডিএসসিসি। অভিযানে ঢাকার নিম্নাঞ্চলে জলপ্রবাহের জায়গা পুনরুদ্ধারে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হচ্ছে।

পরিদর্শন কালে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমডোর বদরুল আমিন, অঞ্চল-২ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা সুয়ে মেন জ সহ ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নেতৃবৃন্দরা।

 

 

 

একুশে সংবাদ/রাফি