AB Bank
ঢাকা শনিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

রাজশাহীতে দুই বোনের মৃত্যুর কারণ জানাল গবেষকরা


Ekushey Sangbad
জেলা প্রতিনিধি,রাজশাহী
০২:৩৩ পিএম, ১ এপ্রিল, ২০২৪
রাজশাহীতে দুই বোনের মৃত্যুর কারণ জানাল গবেষকরা

রাজশাহীতে বরই খাওয়ার পর অসুস্থ হয়ে দুই বোনের মৃত্যুর কারণ হিসেবে ‘মেনুভো ককটাল মেনুজেটিস’ রোগকে দায়ী করেছে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)। রোববার (৩১ মার্চ) দুপুরে আইইডিসিআরের পরিচালক অধ্যাপক ডা. তাহমিনা শিরীন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ডা. তাহমিনা বলেন, এই মৃত্যুর কারণ বলতে আমরা সরাসরি কোনো এভিডেন্স পাইনি। আমরা এনালাইসিস করে সাসপেক্ট করেছি এই মৃত্যুর কারণ মেনুভো ককটাল মেনুজেটিস।

গত মাসে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনদিনের ব্যবধানে দুই বোনের মৃত্যু হয়। তারা হলো মুনতাহা মারিশা ও মুফতাউল মাশিয়া। মুনতাহা মারিশার বয়স দুই বছর। আর মুফতাউল মাশিয়ার বয়স পাঁচ বছর।

রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার চুনিয়াপাড়া গ্রামের মনজুর রহমানে দুই মেয়ে সন্তান। মনজুর রহমানে রাজশাহী ক্যাডেট কলেজের গণিত বিভাগের প্রভাষক ও তার স্ত্রী পলি খাতুন। তারা রাজশাহীর চারঘাটের সারদায় ক্যাডেট কলেজের কোয়ার্টারে থাকতেন।

তিন দিনের ব্যবধানে দুই বোনের মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধানে কাজ শুরু করে আইইডিসিআর। আইইডিসিআরের একটি প্রতিনিধি দল রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পরিদর্শন করেন। অসুস্থতার লক্ষণ দেখে দুই শিশুর মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছিলো নিপাহ ভাইরাস। তবে নমুনা পরীক্ষার পর আইইডিসিআর জানায়, নিপাহ ভাইরাসে নয়, অন্য কোনো কারণে তাদের মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে।

ঢাকা থেকে আসা আইইডিসিআরের ৩ সদস্যের তদন্ত টিম শিশুদের বাবা-মায়ের সঙ্গে কথা বলেন। দুই শিশু ও তাদের বাবা মায়ের রোগের কেস হিস্ট্রির বিষয়ে বিস্তারিত খোঁজ নেন তারা। এ ছাড়া মৃত দুই শিশুর নমুনাও সংগ্রহ করে প্রতিনিধি দল।

আইইডিসিআরের পরিচালক অধ্যাপক ডা. তাহমিনা শিরীন বলেন, দুই দুই শিশুর মৃত্যুও কারণ জানতে আমরা সেখানে যাই এবং কিছু নমুনা সংগ্রহ করি। এরপর পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সাসপেক্ট হিসেবে মেনুভো ককটাল মেনুজেটিস রোগে মৃত্যু হতে পরে বলে ধরণা করছি। আমরা বিভিন্ন বিশেষজ্ঞ নিয়ে একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করেছিলাম।

 

একুশে সংবাদ/বা.আ/সা.আ
 

           

Link copied!