ঢাকা সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

আদালতে অ্যাঞ্জেলার বিরুদ্ধে হিন্দু মহাজোটের মামলা


Ekushey Sangbad
একুশে সংবাদ ডেস্ক
০৭:২৮ পিএম, ৫ অক্টোবর, ২০২১
আদালতে  অ্যাঞ্জেলার বিরুদ্ধে হিন্দু মহাজোটের মামলা

মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনে'র নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম ও 'বাঁচতে শেখা'র নির্বাহী পরিচালক অ্যাঞ্জেলা গোমেজ প্রায় পাঁচ বছর ধরে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতসহ অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছেন। মঙ্গলবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আয়েশা বেগমের আদালতে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাধারণ সম্পাদক প্রবীর চৌধুরী রিপনের দায়ের করা মামলায় এ অভিযোগ আনা হয়েছে। মামলায় শাহীন আনাম ও অ্যাঞ্জেলা গোমেজকে আসমি করা হয়।

মামলার বাদী অভিযোগ করেছেন, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত ও অপপ্রচারের কারণে সারা দেশ এমনকি বাদীর নিজ গ্রাম ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরের মির্জাপুরেও বিশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ার উপক্রম দেখা দিয়েছে। আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তার পরোয়ানা জারির আবেদনও করা হয়েছে মামলায়।

মামলাটি সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে একটি সূত্র জানিয়েছে। তবে বেলা সাড়ে ৩টা নাগাদ আদেশের বিষয়ে লিখিত তথ্য পাওয়া যায়নি।

মামলায় শাহীন আনাম ও অ্যাঞ্জেলা গোমেজের বিরুদ্ধে হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি, সংবিধান লঙ্ঘন করে সনাতনি হিন্দু আইন সংস্কারের উদ্যোগ, হিন্দু সম্প্রদায়কে সরকারের মুখোমুখি করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি, আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার অপচেষ্টার অভিযোগ আনা হয়েছে। এতে সারা দেশের হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্য ক্ষোভ দেখা দিয়েছে বলে উল্লেখ হয়।

মামলার এজহারে বলা হয়েছে, আসামিরা এনজিও ব্যবসায়ী। ২০১৬ সালের ২৮ এপ্রিল থেকে চলতি বছরের ৬ এপ্রিল পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে তারা দেশের বিভিন্ন স্থানে সেমিনার ও অনলাইন ওয়েবিনার মাধ্যমে হিন্দু ধর্মীয় বিধি বিধান নিয়ে কল্পিত উস্কানিমূলক বক্তব্য প্রধান করে হিন্দু ধর্মের বিধি বিধানের বিরুদ্ধে ঘৃণা ও বিদ্বেষ  সৃষ্টি করেছে। আসামিরা উদ্দেশ্যমূলক বিভেদের বীজ বপন করে বিভিন্ন সম্প্রদায় ও ধর্মালম্বীদের মাঝে বক্তব্য ছড়িয়ে পক্ষ বিপক্ষ তৈরি করে বিভিন্ন ধর্মালম্বী মানুষের উত্তেজনা করে বিশৃংঙ্খল পরিবেশ সৃষ্টি করছে।

আসামি শাহীন আনামের স্বামী ডেইলি স্টার পত্রিকার সম্পাদক মাহফুজ আনাম। তার স্বামীর সহযোগিতায় ডেইলি স্টার পত্রিকায় বিভিন্ন নানা কল্পকাহিনী ছাপিয়ে প্রচার করে হিন্দু ধর্মের বিধি বিধানের বিরুদ্ধে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে হিন্দু জনসাধারণকে বিক্ষুদ্ধ করে তুলছে।

অভিযোগে আরো উল্লেখ করা হয়, শাহীন আনাম ও তার স্বামী মাহফুজ আনাম হিন্দু সম্প্রদায়কে আওয়ামী লীগ সরকারের মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট এবং বিভিন্ন ধর্ম ও সম্প্রদায়ের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করে সরকারকে বিব্রত করার অপচেষ্টায় লিপ্ত আছে। তাদের অপতৎপরতায় হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে সংঘাত ও গৃহবিবাদের পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, আসামি শাহীন আনাম 'খসড়া হিন্দু উত্তরাধিকার আইন ২০২০' নামে একটি হিন্দু উত্তরাধিকার আইন উদ্দেশ্যমূলকভাবে করে প্রচার করে। এতে সারা দেশের হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করে।

 

একুশে সংবাদ/এ/আ