AB Bank
ঢাকা মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

৩৫ বছর বয়সেও এমন ফিল্ডিং, নিখুত থ্রো!


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
০৮:৫১ পিএম, ৫ মে, ২০২৪
৩৫ বছর বয়সেও এমন ফিল্ডিং, নিখুত থ্রো!

আইপিএল ২০২৪-এর ৫২ তম ম্যাচে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু মুখোমুখি হয়ে ছিল গুজরাট টাইটানস। এই ম্যাচে বিরাট কোহলির কাছ থেকে একটি রকেট থ্রো দেখা গিয়েছে। তার থ্রো গুজরাটের সেট ব্যাটসম্যান শাহরুখ খানকে প্যাভিলিয়নের পথ দেখায়। তার দুর্দান্ত রান আউটের ভিডিও এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল হচ্ছে। রাহুল তেওয়াটিয়ার সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝির কারণে শাহরুখ খান রানআউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। তার ব্যাট থেকে এসেছিল ৩৭ রান।  

আসলে, রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু ম্যাচের টস জিতে গুজরাট টাইটানসকে ব্যাট করতে আমন্ত্রণ জানায়। গুজরাটের শুরুটা ভালো হয়নি এবং দলের ৩ ব্যাটসম্যান মাত্র ১৯ রানে আউট হয়ে যায়। এরপর ডেভিড মিলারের সঙ্গে হাফ সেঞ্চুরির জুটি গড়েন ডেভিড মিলার ও শাহরুখ খান। মিলার ৩০ রান করে করণ শর্মার বলে ম্যাক্সওয়েলের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরে যান। এর কিছুক্ষণ পরেই বিরাট কোহলি তার সরাসরি আঘাতে শাহরুখ খানকে পরাজিত করেন। শাহরুখ খান ২৪ বলে ৫ চার ও ১ ছক্কায় ৩৭ রান করেন। বিরাট কোহলির এমন থ্রো দেখে অবাক হয়ে গিয়েছিলেন ক্য়ামরন গ্রিনও। তাঁর এক্সপ্রেসনের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হচ্ছে।

প্রথমে ব্যাট করে গুজরাট দল ১৪৭ রানে অলআউট হয়। গুজরাট মাত্র ১৯.৩ ওভারেই অল আউট হয়ে যায়। শাহরুখ খান (৩৭ রান), ডেভিড মিলার (৩০ রান) এবং রাহুল তেওয়াটিয়া (৩৫ রান) আরসিবি বোলারদের মুখোমুখি হতে পারেন। বাকি ব্যাটসম্যানরা ছিলেন সম্পূর্ণ ফ্লপ। আরসিবির হয়ে মহম্মদ সিরাজ, যশ দয়াল ও বিজয়কুমার ভাশাক ২টি করে উইকেট নেন। একটি করে উইকেট পান ক্যামেরন গ্রিন ও করন শর্মা।

এই ম্যাচেও ফ্লপ ছিলেন শুভমন গিলের ব্যাট। ওপেন করতে আসা গিল মাত্র ৭ বল মোকাবেলা করে মাত্র ২ রান করে চলে যান। গিলকে তার শিকারে পরিণত করেন মহম্মদ সিরাজ। এই ম্যাচেও ফ্লপ ঋদ্ধিমান সাহা। মাত্র ১ রানে ফিরতে হয় তাঁকে। সিরাজও তাকে নড়াচড়া করে। এই ম্যাচে সাই সুদর্শনের ব্যাটও নীরব ছিল। ১৪ বলে মাত্র ৬ রান করে ক্যামেরন গ্রিনের বলে বিরাট কোহলির হাতে ধরা পড়েন তিনি।

১৪৮ রান তাড়া করতে নেমে, মাত্র ১৩.৪ ওভারেই লক্ষ্য অর্জন করে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। ৬ উইকেটের বিনিময়ে ১৫২ রান করে বিরাট কোহলি অ্যান্ড কোম্পানি। ২৭ বলে ৪২ রান করেন বিরাট কোহলি। ২৩ বলে ৬৪ রান করেন ফ্যাফ ডু প্লেসি। দীনেশ কার্তিক ১২ বলে ২১ রান ও স্বপ্নিল সিং ৯ বলে ১৫ রান করেন। চার উইকেটে ম্যাচ জেতে গুজরাট টাইটানস। ম্য়াচের সেরা হন মহম্মদ সিরাজ।

 

একুশে সংবাদ/এস কে    
 

Link copied!