AB Bank
ঢাকা মঙ্গলবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০২৩, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪৩০

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

নির্বাচনে ভরাডুবির জন্য ড. কামাল দায়ী করলেন মোশাররফ


Ekushey Sangbad
নিজস্ব প্রতিবেদক
০৫:০৯ পিএম, ৩ আগস্ট, ২০২২
নির্বাচনে ভরাডুবির জন্য ড. কামাল দায়ী করলেন মোশাররফ

 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভরাডুবির জন্য জোট নেতা ড. কামাল হোসেনকে দায়ী করলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য। প্রায় সাড়ে তিন বছর পর এসে প্রকাশ্যে তিনি এ কথা বলেন।

 

আজ বুধবার বাংলাদেশ ইয়ুথ ফোরাম জাতীয় প্রেস ক্লাবের আয়োজিত এক সভায় ‘সরকার ইভিএম-এ নির্বাচন করতে চায় কেন?’ বিষয়ে এক গোলটেবিল আলোচনায় বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন মোশাররফ।

 

মোশাররফ বলেন, ‘বিএনপির মতো একটি জনপ্রিয় দল গিয়ে ড. কামাল হোসেনকে ইমাম বানিয়েছিল। কিন্তু নির্বাচনের আগে, তিনি বললেন নির্বাচনই করবেন না। এই ফ্রন্টে আমরা এত কষ্ট করে যে রূপরেখা বানালাম, ড. কামাল হোসেনের নির্বাচন না করার কারণে ভবিষ্যৎ চিন্তাভাবনা সেদিন ধূলিসাৎ হয়ে গেছে। ফলে বিএনপির মতো একটি দলকে এই ফ্যাসিবাদ সরকার পাঁচ বা ছয়টি আসন দিয়ে বিদায় করে দেয়।’

 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি তার জোট ২০ দলের পাশাপাশি গণফোরাম, জেএসডি, নাগরিক ঐক্য, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগকে নিয়ে গঠন করে আলাদা জোট। ব্যক্তি হিসেবে যোগ দেন গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা জাফরুল্লাহ চৌধুরী এবং তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেন।

 

নির্বাচনের পর বিএনপির নেতা-কর্মীরা ড. কামাল হোসেনের প্রতি নানাভাবে অসন্তোষ প্রকাশ করেন। তবে কেন্দ্রীয় নেতারা বিষয়টি নিয়ে অনেকটাই চুপ ছিলেন।

 

বিএনপির চলমান সংলাপ নিয়ে মোশারফ বলেন, ‘সরকারবিরোধী অন্য দলগুলোর সাথে আমরা আলোচনা করছি। তাদের মতামত নিয়ে এটা সমৃদ্ধ করতে চাই। সেজন্য এখনও সেই রূপরেখা জনগণের সামনে আসেনি।

 

‘আজও আমাদের মহাসচিব একটি দলের সঙ্গে আলোচনা করছেন। এই আলোচনা শেষে অবশ্যই দেশে একটা মঞ্চ করতে পারব; যুগপৎ আন্দোলন করতে পারব কি না, এর একটা সিদ্ধান্ত হবে।’

 

আন্দোলনের জন্য জনগণ মুখিয়ে আছে বলেও মনে করেন বিএনপির এই নেতা। বলেন, ‘এখন শুধু রাস্তায় মানুষের ঢল নামা বাকি। আমরা রাস্তায় সংকটের সমাধান করব ইনশাআল্লাহ। সেই ইতিহাস ও অভিজ্ঞতা আমাদের আছে।

 

‘ইয়াহিয়া খানের মতো শাসক টিকতে পারেনি। সুতরাং কারফিউ বা অন্য কোনোভাবেই ক্ষমতা রক্ষা করতে পারবেন না। রাস্তায় নামলে তদের পতন হবেই হবে।

 

‘শ্রীলংকায় দুই ভাই ১৮ বছর শাসন করেও শেষ রক্ষা হয়নি। অতএব রাস্তায় নামার বিকল্প নেই। মানুষ দুরবস্থার মধ্যে আছে। তারা একটা পরিবর্তন চায়। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাস্তায় নামতে হবে।’

 

একুশে সংবাদ.কম/ন.ব.জা.হা

Link copied!