AB Bank
ঢাকা শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

অর্ধেকের বেশি আসনের ফলাফল ঘোষণা, এগিয়ে ইমরান সমর্থিতরা


Ekushey Sangbad
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
০৫:৫০ পিএম, ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
অর্ধেকের বেশি আসনের ফলাফল ঘোষণা, এগিয়ে ইমরান সমর্থিতরা

পাকিস্তানের জাতীয় নির্বাচনে অর্ধেকের বেশি আসনের ফল এরই মধ্যে প্রকাশ করেছে দেশটির জাতীয় নির্বাচন কমিশন (ইসিপি)। এতে এখনো এগিয়ে আছে সাবেক প্রধানমন্ত্রী কারাবন্দী ইমরান খানের দল পিটিআই। নওয়াজ শরিফের পিএমএল–এন আছে দ্বিতীয় অবস্থানে।

 

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বলছে, এ পর্যন্ত ১৩৯টি আসনের ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৫৫টি আসনে জিতেছে স্বতন্ত্ররা। এই স্বতন্ত্র নেতাদের বেশিরভাগই ইমরান খানের দলের। বাকিরা ইমরান খানের সঙ্গে আছেন বলে নির্বাচনের আগে জানান। সেই হিসেবে ইমরানের পক্ষে আসন এল ৫৫টি।

নির্বাচনের আগে বিশ্লেষকরা বলেছিলেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের দল পিএমএল–এন এবার সরকার গঠন করবে। একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পেলেও তারা জোট গঠন করে সরকারে যেতে পারে। ১৩৯টি আসনের মধ্যে তারা পেয়েছে ৪৩টি।

যে দলের সঙ্গে নওয়াজের জোট গঠনের কথা, বিলাওয়াল ভুট্টোর সেই পিপিপি পেয়েছে ৩৫ আসন। এই জোটের মোট আসন এখন পর্যন্ত ৭৮টি। এই সংখ্যা ইমরানের দলের চেয়ে বেশি।  আরও ১২৬টি আসনের ফল প্রকাশ বাকি।

এককভাবে সরকার গঠন করতে হলে কোনো দলকে ১৩৪টি আসনে জিততে হবে। পাকিস্তানের এবারের নির্বাচনে পিএমএল-এন সবচেয়ে বেশি আসন জিতবে বলে ধারণা করা হয়েছিল। বিশ্লেষকেরা বলছেন, ৭৪ বছর বয়সী সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজের ওপর সামরিক বাহিনীর আশীর্বাদ রয়েছে।

কিন্তু স্থানীয় টিভি চ্যানেলগুলো বলছে, নওয়াজের এই দলটি নির্বাচনে ভালো করতে পারেনি। এমনকি নওয়াজ শরিফ নিজেও একটি আসনে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে ভোটের সংখ্যায় পিছিয়ে পড়েছেন।

নির্বাচনে কোনো দল একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে না বলে ধারণা বিশ্লেষকদের। সেক্ষেত্রে হতে পারে জোট সরকার। তবে নির্বাচনে নিরঙ্কুশ জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের প্রধান নওয়াজ শরিফ।

৩৩৬টি আসন নিয়ে পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদ গঠিত। সরাসরি ভোট হয়েছে ২৬৬ আসনে। সংরক্ষিত আসন ৭০টি। এর মধ্যে ১০টি আসন অমুসলিমদের জন্য। ভোটের নির্বাচনে প্রতিটি দলের গ্রহণযোগ্যতার ভিত্তিতে সংরক্ষিত আসনগুলো বরাদ্দ দেওয়া হয়।

 

একুশে সংবাদ/এনএস

Link copied!