ঢাকা সোমবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

প্রথমে ধর্ষণ,পরে গরম পানি ঢেলে হত্যা!


Ekushey Sangbad
একুশে সংবাদ ডেস্ক
০৭:৩৭ পিএম, ২ অক্টোবর, ২০২১
প্রথমে ধর্ষণ,পরে গরম পানি ঢেলে হত্যা!

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে এক কিশোরীর। পুলিশ ধারণা করছে ধর্ষণের পর  তাকে গরম পানি ঢেলে শারীরিক নির্যাতনে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে।

শনিবার (২ অক্টোবর) দুপুরে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই ইউনিয়নের পালপাড়া গ্রামের একটি পতিত জমি থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। ওই কিশোরীর বয়স আনুমানিক ১৫ বছর বলে ধারণা করা হচ্ছে।
 
মির্জাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, সকালে পালপাড়া কুরনীটেক নুর মোহাম্মদের খালি প্লটে রক্তাক্ত অবস্থায় অজ্ঞাত ওই কিশোরীর মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন স্থানীয়রা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি শেষে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

পুলিশের ধারণা, ধর্ষণের পর গরম পানি ঢেলে শারীরিক নির্যাতনে ওই কিশোরীকে হত্যা করা হয়েছে। কিশোরীর দেহের বিভিন্ন স্থানে ফুসকা ও জখমের চিহ্ন রয়েছে। দুর্বৃত্তরা কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা করে মরদেহ ওই স্থানে ফেলে রাখে।
 
এ ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত ও গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এখনও কিশোরীর পরিচয় পাওয়া যায়নি।
 
এদিকে শুক্রবার (১ অক্টোবর) মানবাধিকার সংগঠন আইন ও সালিশ কেন্দ্রের প্রতিবেদনে জানা গেছে, গত ৯ মাসে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক হাজার ৮৫ নারী, যার মধ্যে একক ধর্ষণের শিকার হয়েছেন ৮৭৯ জন এবং সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন ২০৩ জন নারী। ধর্ষণের পর হত্যার শিকার হয়েছেন ৩৯ জন এবং আত্মহত্যা করেছেন ৮ জন নারী। 

 গত বছরের জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর পর্যন্ত নয় মাসে ধর্ষণচেষ্টার ঘটনা ঘটেছে ২৫৬টি। আর ধর্ষণের শিকার হয়েছেন ৯৭৫ জন নারী। এ ছাড়া গত ৯ মাসে যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন ১০১ নারী, এর মধ্যে ১০ নারী আত্মহত্যা করেছেন এবং হত্যার শিকার হয়েছেন ৩ নারী।
 
যৌন হয়রানির প্রতিবাদ করতে গিয়ে আক্রান্ত হয়েছেন ৭১ জন পুরুষ, যার মধ্যে ৪ জন খুন হয়েছেন। এ ছাড়া গত ৯ মাসে পারিবারিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ৫২৭ নারী। যাদের মধ্যে স্বামী, স্বামীর পরিবার এবং নিজ পরিবারের হত্যার শিকার হন ৩০৩ নারী এবং পারিবারিক নির্যাতনের ফলে আত্মহত্যা করেছেন ১১৮ নারী।
 
অন্যদিকে যৌতুককে কেন্দ্র করে নির্যাতন ও হত্যার শিকার হয়েছেন মোট ১৮২ নারী। যৌতুকের জন্য নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে ৬০ জনকে এবং নির্যাতনের শিকার হয়ে আত্মহত্যা করেছেন ১২ জন নারী। এর মধ্যে যৌতুকের কারণে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ৯৮ জন।
 
গত নয় মাসে হত্যা ও নির্যাতনের শিকার হয়েছে ১ হাজার ৬৩৬ শিশু। এরমধ্যে হত্যার শিকার হন ৪৭১ জন এবং শারীরিক ও যৌন নির্যাতনসহ নানাভাবে সহিংসতার শিকার হন এক হাজার ১৬৫ শিশু। এই ১১৬৫ জনের মধ্যে ধর্ষণের শিকার হয় ৬৪৮ কন্যাশিশু এবং বলাৎকারের শিকার হয়েছে ৬৪ জন ছেলে শিশু। গত বছরের একই সময়ে হত্যা ও নির্যাতনের শিকার হয়েছিল এক হাজার ৫২৩ শিশু।


একুশে সংবাদ/স/তাশা