ঢাকা সোমবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেও বহিস্কার তালিকা থেকে রেহায় পাননি শহিদুল্লাহ


Ekushey Sangbad
একুশে সংবাদ ডেস্ক
০৭:১২ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেও বহিস্কার তালিকা থেকে রেহায় পাননি শহিদুল্লাহ

কক্সবাজারের পেকুয়ার টইটং ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামি ২০ সেপ্টেম্বর। টইটং ইউপিতে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী নৌকা প্রতীক নিয়ে ভোট করছেন টইটং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও বহিস্কৃত চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী। 

বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে ঘোড়া প্রতীক নিয়ে মনোনয়ন নিয়েছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান শহিদুল্লাহ বিএ। তফসিল ঘোষণার পর এলাকায় মিটিং,প্রচার প্রচারনায় ব্যস্ত ছিল শহিদুল্লাহ বিএ। তবে নির্বাচনের সময় যত ঘনিয়ে আসছে নির্বাচনী মাঠ থেকে এক প্রকার উধাও হয়ে গেছেন তিনি। 

বলতে গেলে এক প্রকার প্রচার প্রচারনা নেই বললে চলে। নির্বাচনী মাঠ থেকে সরে গেলেও মনোনয়ন প্রত্যাহার করেনি আওয়ামীলীগ নেতা শহিদুল্লাহ। তিনি বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় দলের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দেয়। 

টানাপোড়েন চলে দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে। তিনি এক প্রকার নির্বাচনের মাঠ থেকে সরে গেলেও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বহিষ্কার তালিকা থেকে রেহায় পায়নি বিদ্রোহী প্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি 
শহিদুল্লাহ বিএ। 

এদিকে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে নির্বাচনে অংশ নেয়ায় বিদ্রোহী প্রার্থী শহিদুল্লাহকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করেছে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ।

 বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

 এ ব্যাপারে বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী শহিদুল্লাহ বিএ বলেন,ইতিমধ্যে সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমি ভোট করবো না। আর্থিক সংকটে আছি। আমি দলের বাহিরে নেই। দল যেহেতু করি অবশ্যই নৌকার পক্ষে ভোট করবো। নৌকার প্রার্থীকে জেতাতে সর্বোচ্চ সহযোগিতা করবো। বহিস্কারাদেশ প্রত্যাহারের জন্য আমি জেলা আওয়ামীলীগ নেতাদের বরাবর আবেদন করবো।

এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাসেম বলেন  শহিদুল্লাহ বিএ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ায়েছেন বলে ওনার বহিস্কারের আদেশ প্রত্যাহারের জন্য আমি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সম্পাদকের কাছে সুপারিশ করেছি। 

একুশে সংবাদ/জুবাইদ/আরিফ