AB Bank
ঢাকা শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

ম্যাচ শুরুর আগে নারিনের সঙ্গে যা করলেন কোহলি


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
০৬:৫১ পিএম, ২১ এপ্রিল, ২০২৪
ম্যাচ শুরুর আগে নারিনের সঙ্গে যা করলেন কোহলি

রবিবার আইপিএলের ৩৬তম ম্যাচে কলকাতা নাইট রাইডার্সের মুখোমুখি হয়েছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে এই ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এই ম্যাচে টস জিতে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর অধিনায়ক ফ্যাফ ডু প্লেসি।

টস জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেন ফ্যাফ। এই ম্যাচে আরসিবি দলে তিনটি পরিবর্তনও হয়েছিল। এই ম্যাচে দলে ফিরেছেন মহম্মদ সিরাজ, ক্যামরন গ্রিন ও করন শর্মা। কেকেআর অবশ্য নিজেদের দলকে অপরিবর্তিত রেখেছিল।  

ম্যাচ শুরুর সময়ে এমন একটি ঘটনা ঘটেছে যা দেখে সকলেই বেশ অবাক হয়ে গিয়েছিলেন আর বেশ মজাও পেয়েছিলেন। আসলে কলকাতার হয়ে যখন ব্যাট করতে আসেন সুনীল নারিন এবং ফিল সল্ট, তখন নারিনের সঙ্গে মজা করেন বিরাট কোহলি। ইনিংসের শুরু থেকেই বিরাট কোহলি আম্পায়ারের সঙ্গে দারুণ প্র্যাঙ্ক করে শো চুরি করেন। আসলে, ম্যাচ শুরুর আগে, বিরাট কোহলি হাস্যকরভাবে আম্পায়ারকে তার কমলা ক্যাপ দিয়েছিলেন এবং তিনি সকলকে বোঝান তিনি ব্যাট করতে নামবেন। এই সময়ে বল করার জন্য সম্পূর্ণ প্রস্তুত ছিলেন বিরাট কোহলি। যা দেখে সকলেই অবাক হয়ে যান। এটি করার আগে সুনীল নারিনের সঙ্গেও কথা বলেছিলেন বিরাট কোহলি। ঠিক আছে, কোহলি কেবল মজা করেই এটি করছিলেন কারণ আরসিবির হয়ে প্রথম ওভারটি করেছিলেন মহম্মদ সিরাজ।

আম্পায়ারের কাছে যাওয়ার আগে বিরাট কোহলি সুনীল নারিনের সঙ্গে কথা বলতে গেলে নারিন জোরে হাসতে শুরু করেন। মজার এই ঘটনার সময়ে একটা সময়ে সুনীল নারিনকে ভয়ও দেখিয়েছিলেন বিরাট কোহলি। বিরাট কোহলি তাঁকে আন্ডারটেকারের বিখ্যাৎ মুখ দেখান। এই ভিডিও দেখার পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় কমেন্ট সেকশন হাস্যকর প্রতিক্রিয়ায় ভরে গেছে। কেউ কেউ এই বলেন কোহলির খেলাধুলার প্রশংসা করেছেন যে তিনি সর্বদা নিজের চারপাশে একটি ভালো পরিবেশ বজায় রাখেন। সেই সঙ্গে কেউ বলেছেন, কোহলি বোলিং না করলেই তার দলের জন্য ভালো হবে। ঠিক আছে, আমরা আপনাকে বলি যে এই ম্যাচে আরসিবি খেলোয়াড়রা সবুজ জার্সি পরে খেলছেন।

প্রথমে ব্য়াট করতে নেমে শুরুটা খুব একটা ভালো করতে পারেনি কলকাতা নাইট রাইডার্স। এর কারণ অবশ্য এদিন সুনীল নারিনের ব্যাট সেভাবে কাজ করেনি। তবে দারুণ শুরু করেছিলেন ফিল সল্ট। মাত্র ১৪ বলে ৪৮ রান করেন ফিল সল্ট। এই ইনিংসে তিনি সাতটি চার ও তিনটি ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন। তবে ১৫ বলে মাত্র ১০ রান সুনীল নারিন। যশ দয়ালের বলে তিনি আউট হন। এরপরে অংকৃষ রঘুবংশীকেও ফেরান যশ দয়াল। এই সময়ে দুরন্ত ক্যাচ নেন ক্যামরন গ্রিন।

৫৬ রানের মধ্যে প্রথম উইকেট হারায় কলকাতা নাইট রাইডার্স। এরপরে দলের ৬৬ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারায় কেকেআর। অংকৃষ রঘুবংশী আউট হওয়ার সময়ে দলের রান ছিল ৭৫। এরপরে ৮.২ ওভারে চতুর্থ উইকেট হারায় কলকাতা নাইট রাইডার্স। ৯৭ রানে চতুর্থ উইকেট হারায় কেকেআর। বেঙ্কটেশ আইয়ারের উইকেটের শিকার করেন ক্যামরন গ্রিন। এরপরে ইনিংস এগিয়ে নিয়ে যান শ্রেয়স আইয়ার ও রিঙ্কু সিং। রিঙ্কু ১৬ বলে ২৪ রান করে ফেরেন। মাঠে নামেল রাসেল। ১৪ ওভারে কলকাতা নাইট রাইডার্সের রান হয় ১৪২/৫। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ২২২ রান করে কলকাতা নাইট রাইডার্স। শ্রেয়স আইয়ার ৩৬ বলে ৫০ রান করেন। এরপরে আন্দ্রে রাসেল ২০ বলে ২৭ রান ও রমনদীপ সিং ৯ বলে ২৪ রান করে অপরাজিত ছিলেন।

একুশে সংবাদ/এস কে  
 

Link copied!