AB Bank
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

বিশ্বকাপের বাকি ম্যাচগুলো জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী শ্রীলংকা


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
০৩:৪৩ পিএম, ১৭ অক্টোবর, ২০২৩
বিশ্বকাপের বাকি ম্যাচগুলো জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী  শ্রীলংকা

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পরাজয়  থেকে দল শিক্ষা নিয়েছে বলে জানিয়েছেন শ্রীলংকান ওপেনার পাথুম নিশাঙ্কা। একইসাথে তিনি  আরো জানিয়েছেন টুর্ণামেন্টে নিজেদের  বাকি ম্যাচগুলোতে তার দল ঘুড়ে দাঁড়ানোর ব্যপারে আত্মবিশ্বাসী।

 

অস্ট্রেলিয়ার কাছে গতকাল ৫ উইকেটের পরাজয়ের মাধ্যমে শ্রীলংকা এবারের বিশ্বকাপে টানা তিন ম্যাচে হারের স্বাদ পেয়েছে। প্রতিটি দল ৯টি করে লিগ ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে। পয়েন্টের ভিত্তিতে শীর্ষ চারটি দল সেমিফাইনালে উন্নীত হবে।

 

প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে  নিশাঙ্কা আরেক ওপেনার কুশাল পেরেরাকে নিয়ে ১২৫ রানে শক্তিশালী জুটি গড়ে তুলেছিল। কিন্তু হঠাৎ করেই লংকান ইনিংসে ধ্বস নামে। ৪৩.৩ ওভারে তারা ২০৯ রানে অল আউট হয়ে যায়।

 

কাল ম্যাচ শেষে নিশাঙ্কা  বলেছেন, ‘এটাই ক্রিকেট। আগের দুই ম্যাচে আমরা ভাল খেলেছি। কিন্তু কোনভাবেই পরাজয়ের বৃত্ত থেকে বেরিয়ে আসতে পারছি না। এখন আমাদের মূল দায়িত্ব ভুল থেকে শিক্ষা নেয়া ও আসন্ন ম্যাচগুলোতে শক্তিশালী পারফরমেন্স দেখানো।’

 

নিশাঙ্কা  কাল ৬১ রান করেছেন। তার সাথে জুটি বেঁধে বাঁ-হাতি আরেক ওপেনার পেরেরা খেলেছেন ৭৮ রানের ইনিংস। দুজনই অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক প্যাট কামিন্সের শিকারে পরিনত হয়। লেগ স্পিনার এ্যাডাম জাম্পা ৪৭ রানে ৪ উইকেট দখল করে শ্রীলংকার ইনিংস বড় হতে দেননি।

 

পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া ১৪.৪ ওভার বাকি থাকতে ২১০ রানের জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায়। দলের  সামনে এই মুহূর্তে সেমফিাইনালই একমাত্র লক্ষ্য উল্লেখ করে নিশাঙ্কা বলেন   ‘আমাদের মানসিক দৃঢ়তা বজায় আছে। আশা করছি ভাল খেলে বাকি ম্যাচগুলোতে জয় আদায় করে নিতে পারবো।’

 

কামিন্স ও বাঁ-হাতি পেসার মিচেল স্টার্ক প্রত্যেকেই দুটি করে উইকেট নিয়েছেন। অফ স্পিনার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল নিয়েছেন ১ উইকেট। নিশাঙ্কা  বলেন, ‘মিডল ওভারে প্রতিপক্ষ বোলররা  সঠিক জায়গায় বল ফেলেছে যা খেলা খুবই কঠিন ছিল। আমাদের ব্যাটারদের বেশ কঠিন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হয়েছে। দূর্ভাগ্যবশত: আমরা শেষ পর্যন্ত চাপ সামলাতে পারিনি। ঠিকমত সবকিছু সামলে উঠতে পারলে ৩০০ রান করা কোন ব্যপার ছিলনা।’

 

ডেভিড ওয়ার্নারকে ১১ ও স্টিভ স্মিথকে শুন্য রানে ফিরিয়ে দিয়ে লংকান ফাস্ট পেসার দিলশান মাদুশানকা কিছুটা লড়াইয়ের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। কিন্তু মিচেল মার্শের ৫২ ও উইকেটরক্ষক-ব্যাটার জস ইংলিসের ৫৮ রানের পর ম্যাক্সয়েলের ২১ বলে ৩১ রানে অস্ট্রেলিয়ার জয় নিশ্চিত হয়।

 

নিশাঙ্কা  বলেছেন, ফ্লাডলাইটের আলোতে ব্যাটিং ভাল হওয়া শুরু করেছিল। কিন্তু শ্রীলংকা শেষ পর্যন্ত বড় স্কোর করতে না পারায় দলের পরাজয় ঘটেছে। সন্ধ্যার আলোতে অস্ট্রেলিয়ান বোলাররা বেশী সুবিধা পেয়েছে। অন্যদিকে লংকান বোলাররা লাইন ও লেংথ বজায় রাখতে পারেনি বলেও স্বীকার করেছেন নিশাঙ্কা।

 

আগামী শনিবার এই একই ভেন্যুতে পরবর্তী ম্যাচে শ্রীলংকা নেদারল্যান্ডসের  মোকাবেলা করবে। শেষ চার নিশ্চিত করতে হলে বাকি  ছয়টি ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই লংকার।

একুশে সংবাদ/স ক 

Link copied!