ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

লক্ষীপুর রামগঞ্জে সরকারি জমিতে আলিশান বাড়ি 


Ekushey Sangbad
জেলা প্রতিনিধি
০৬:৩৭ পিএম, ২৩ জানুয়ারি, ২০২২
লক্ষীপুর রামগঞ্জে সরকারি জমিতে আলিশান বাড়ি 
ছবি: একুশে সংবাদ

ছবি: একুশে সংবাদ

লক্ষীপুর প্রতিনিধি: লক্ষীপুরজেলার রামগঞ্জে সরকারের ১নং খতিয়ান ভুক্ত খাস জমি দখল করে দ্বীতল ভবন নির্মাণ করেছেন জাকির হোসেন নামের এক প্রভাবশালী।

 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা ভূমি অফিসের কর্মকর্তারা। জানা গেছে, উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের দক্ষিণ পূর্ব নোয়াগাঁও গ্রামের তালিমূল কোরআন নূরানী মাদ্রাসার উত্তর পার্শ্বে সরকারের আশ্রয়ন প্রকল্পের জন্য নির্ধরিত  জমিতে এ ভবন নির্মাণ করেছেন তিনি। অভিযুক্ত জাকির পার্শ্ববর্তী পাঠান বাড়ির আনোয়ার হোসেন পাঠানের ছেলে। 

 

নোয়াগাঁও ইউনিয়নের ভূমি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নোয়াগাঁও মৌজার ৫৯৩৮ নং হাল দাগে ৮ শতাংশ ও  ৫৯৩৯ দাগে ৬ শতাংশ জমি সরকারের ১নং খতিয়ানভুক্ত রয়েছে যা আশ্রয়ন প্রকল্পের জন্য নির্ধারন করেন ইউএনও। উক্ত দুই দাগে জাকিরের কোন সম্পত্তি নেই। তবে ৫৯৩৭ দাগে জাকিরের তিন (৩) শতাংশ জমি রয়েছে। কিন্তু নিজের জমিতে বাড়ি না করে সুকৌশলে সরকারি জমিতে বাড়ি নির্মান করে সরকারের সম্পত্তি জবর দখল করে জাকির।


       
ইউনিয়ন ভূমি অফিসের তহসিলদার কাজী সাহাবুদ্দিন বলেন, নির্মিত ভবনটি উচ্ছেদ করে সরকারি সম্পত্তি উদ্ধারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে উর্ধতন কর্মকর্তাকে লিখিত ভাবে জানিয়েছি।


উপজেলা ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, সরকারের আশ্রয়ন প্রকল্পের জন্য  নির্ধারিত জমি হওয়ায় পরিমাপের প্রয়োজন হয়। বারবার পরিমাপ করেও দেখেছি জাকিরের বিল্ডিং এর ভিতরে সরকারের জমি রয়েছে। এব্যাপারে ইউএনও সিদ্ধান্ত দিবে।

 

অভিযুক্ত জাকির হোসেন সরকারি জমিতে বাড়ি নির্মানের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, পিছনে আমার জমি রয়েছে। ভুলবশত বাড়িটি সরকারি জমিতে নির্মান করেছি। ইউএনও সহ সংশ্লিষ্টদের সাথে আলোচনা চলছে।


উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও তাপ্তি চাকমা বলেন, জাকিরের বিল্ডিংএর একাংশ সরকারি সম্পত্তি রয়েছে। তাই জাকিরকে সরকারি সম্পত্তি খালি করতে মৌখিক ভাবে বলেছি। সে নিজে ভেঙে না নিলে আমরা ভেঙে ফেলবো।

 

একুশে সংবাদ/রবিউল ইসলাম খান/এইচআই.