ঢাকা সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভারত থেকে আগত ১১ সাইক্লিস্টকে সম্মাননা


Ekushey Sangbad
একুশে সংবাদ ডেস্ক
১১:৫৭ পিএম, ২৫ নভেম্বর, ২০২১
মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভারত থেকে আগত ১১ সাইক্লিস্টকে সম্মাননা
ছবি: একুশে সংবাদ

ছবি: একুশে সংবাদ

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি: বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং ভারতের স্বাধীনতার ৭৫তম বছর উদযাপন উপলক্ষে ভারতের স্বনামধন্য বেসরকারি সংস্থা স্নেহালয় গত ২ অক্টোবর দেশটির মহারাষ্ট্রের আহমেদনগর থেকে বাংলাদেশের উদ্দেশে এক সদ্ভাবনা সাইকেল র‌্যালি শুরু করে। বৃহস্পতিবার(২৫ নভেম্বর) সন্ধ্যায় তাঁরা নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(নোবিপ্রবি) ক্যাম্পাসে এসে পৌঁছান।


ক্যাম্পাসে পৌঁছালে তাঁদের স্বাগত জানিয়ে সম্মাননা স্মারক ও উপহারসামগ্রী প্রদান করে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তরের সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ আব্দুস সালামের সঞ্চালনায় ও একই বিভাগের পরিচালক বিপ্লব মল্লিকের সভাপতিত্বে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ভারতীয় সাইক্লিস্টদের হাতে এ সম্মাননা স্মারক ও উপহারসামগ্রী তুলে দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আব্দুল বাকী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. ফারুক উদ্দিন। 

এসময় গান্ধী আশ্রম ট্রাস্টের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন ডিরেক্টর রাহা নব কুমার ও পিস কো-অর্ডিনেটর অসীম কুমার বক্সি। 

অনুষ্ঠানে ভারতীয় সাইক্লিস্টরা বাংলাদেশ-ভারতের ফ্রেন্ডশিপকে আরো দৃঢ় করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করার পাশাপাশি নোবিপ্রবি ও বাংলাদেশের সাইক্লিস্টদের ভারত ভ্রমণে সর্বোচ্চ সহযোগিতার আশ্বাস দেন। 

এদিকে ভারতীয় সাইক্লিস্টরা ক্যাম্পাসে পৌঁছালে তাদের পুরো ক্যাম্পাস ঘুরে দেখান বিশ্ববিদ্যালয়ের সাইক্লিস্ট ক্লাবের সদস্যরা। 

উল্লেখ্য, ভারতের বেসরকারি এই সংস্থাটি এ বছরটিকে মুজিববর্ষ হিসেবে উদযাপন করছে। মহাদেশে রাইজিং বাংলাদেশ, গণতন্ত্র, ধর্মনিরপেক্ষতা, শান্তি ও সমৃদ্ধি গঠনে বঙ্গবন্ধুর অবদান সম্পর্কে সচেতন করার জন্য কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে তারা। স্নেহালয় তাদের যাত্রার শুরু থেকেই মহাত্মা গান্ধী ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মূল্যবোধে দৃঢ়ভাবে বিশ্বাসী। সংস্থাটি তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে সমাজের অধিকাংশ সুবিধাবঞ্চিত অংশের উন্নয়ন ও পুনর্বাসনের জন্য কাজ করছে। এছাড়াও তারা বিশ্বাস করে যে, ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্ব উভয় দেশকে এগিয়ে নেবে।  


একুশে সংবাদ/আল-আমিন