ঢাকা রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

বাড়ি ফিরছেন চমেকের আলোচিত সেই আকিব


Ekushey Sangbad
জেলা প্রতিনিধি
০৩:২৫ পিএম, ১৯ নভেম্বর, ২০২১
বাড়ি ফিরছেন চমেকের আলোচিত সেই আকিব
ছবি: একুশে সংবাদ

ছবি: একুশে সংবাদ

রাজিব শর্মা, চট্টগ্রাম: ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের সময় মারাত্মক আহত চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ছাত্র মাহাদি জে আকিব সুস্থ হয়ে চমেক ছেড়ে বাড়ী ফিরেছেন।

বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) বিকেলে মেডিকেল বোর্ডের সিদ্ধান্ত তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। পরে স্বজনরা তাকে কুমিল্লার বুড়িচং থানার গ্রামের বাড়ীতে নিয়ে যান।

কুমিল্লার বুড়িচং এলাকার গোলাম ফারুক মজুমদারের দুই সন্তানের মধ্যে ছোট মাহাদি জে আকিব (২১) চমেক এর দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

গত ৩০ অক্টোবর আহত হওয়ার পর থেকে আকিব ১৯ দিন ধরে চমেক হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এস এম হুমায়ন কবীর আকিব ছাড় পাওয়ার বিষয়টি জানিয়ে বলেন, আজ আকিবকে হাসপাতাল থেকে রিলিজ দেওয়া হয়েছে। সে এখন অনেকটা ভালো হয়ে গেছে, বিকেলে তার বাবা ও ভাইয়ের সঙ্গে বাড়ি চলে গেছে। তিনি বলেন, সুস্থ হলেও এক -দেড় মাস পরে আরেকটা ছোট অপারেশন তাকে করা হবে।

উল্লেখ্য গত ৩০ অক্টোবর শনিবার সকালে চমেক হাসপাতাল হোটেল ও ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষকালে প্রতিপক্ষ গ্রুপের হাতে আহত হন চমেক'র ছাত্র আকিবসহ ৩ জন। এর মধ্যে আকিবের আঘাত ছিল গুরুতর। ভারীর বস্তু দিয়ে আঘাত করার কারণে তার মাথার হাড় ভেঙ্গে গুড়ো হয়ে যায়। সংজ্ঞাহীন অবস্থায় আকিবকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তির পর চিকিৎসকরা তার মাথায় ব্যান্ডেজি করে তাতে লেখা হয়-‘হাঁড় নেই, চাপ দেবেন না’। এ ছবি দেশের সব মিডিয়ায় প্রকাশ হওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সারাদেশে বেশ আলোচনা সমালোচনার ঝড় উঠে। পরে চমেক হাসপাতালের নিউরোসার্জারি বিভাগে তার অপারেশন করা হয়।

চিকিৎসকরা জানান, মাথায় আঘাত বেশি হওয়ায় আর্টিফিশিয়াল ডুরামেটার দিয়ে ব্রেইনের পর্দা তৈরি করেন চিকিৎসকরা। সেখানে থাকা হাড়টি পেটের চামড়ার নিচে আলাদা একটা কক্ষ তৈরি করে রাখা হয়। দ্বিতীয় অপারেশন করে হাড়টি প্রতিস্থাপন করা হয় চিকিৎসকদের অক্লান্ত চেষ্টায় ক্রমান্বয়ে সুস্থ হয়ে উঠেন আকিব।


জানাগেছে, চমেক ছাত্রলীগের দীর্ঘদিনের বিবদমান দুটি পক্ষ শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এবং সাবেক মেয়র নগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী। আকিব চমেক ছাত্রলীগের নওফেল অনুসারী হিসেবে পরিচিত।

সংঘর্ষের পর বিবাদমান দুই পক্ষ পরষ্পরের বিরুদ্ধে তিনটি মামলা দয়ের হয়েছে।

একুশে সংবাদ/আল-আমিন