AB Bank
ঢাকা মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ, ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

৭২ শতাংশ তরুণ-তরুণী নির্বাচনে ভোট দিতে চান


Ekushey Sangbad
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
০৯:২৯ পিএম, ১৬ নভেম্বর, ২০২৩
৭২ শতাংশ তরুণ-তরুণী নির্বাচনে ভোট দিতে চান

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৭২ শতাংশ তরুণ-তরুণী ভোট দেওয়ার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন। বাংলাদেশ ইয়ুথ লিডারশিপ সেন্টারের (বিওয়াইএলসি) এক জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) রাজধানীর মহাখালীতে মেডোনা সেন্টারে বাংলাদেশ ইয়ুথ লিডারশিপ সেন্টার (বিওয়াইএলসি) আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ সংক্রান্ত জরিপের তথ্য তুলে ধরা হয়। জরিপের ফলাফল উপস্থাপন করেন আবুল খায়ের সজীব ও হোসাইন মোহাম্মদ ওমর খৈয়াম।

চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাস জুড়ে নির্দিষ্ট প্রশ্নের মাধ্যমে ১৬ থেকে ৩৫ বছর বয়সী ৫ হাজার ৬০৯ জনের ওপর এই জরিপটি পরিচালনা করা হয়।

জরিপে বলা হয়, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৭২ শতাংশ তরুণ-তরুণী ভোট দেওয়ার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন। তবে দেশের সার্বিক পরিস্থিতিতে ৪২ শতাংশ তরুণ দেশের বাইরে চলে যেতে চান। সার্বিক পরিস্থিতি বলতে বোঝানো হয়েছে- সামাজিক ও রাজনৈতিক পরিস্থিতি, দক্ষতা অনুযায়ী চাকরি না পাওয়া, চাহিদা অনুযায়ী শিক্ষা না পাওয়া, উদ্ভাবনী প্রযুক্তির ঘাটতি প্রভৃতি। এসব ক্ষেত্রে কাঙ্ক্ষিত পরিবর্তন আসলে ৮৫ শতাংশ যুবকই আবার দেশে ফিরে আসতে চান।

জরিপে দেখা যায়, ৭১ দশমিক ৫ শতাংশ তরুণ-তরুণী খোলাখুলিভাবে যেকোনো প্ল্যাটফর্মে তাদের মতামত দিতে ভয় পান বা নিরাপদ মনে করেন না। যুবকদের ৪৪ শতাংশ মনে করেন বাংলাদেশ শান্তিপূর্ণ দেশ। তবে ৬৩ শতাংশ বলছেন গত পাঁচ বছরে দেশ শান্তির দিকে এগোয়নি। অন্যদিকে ৬০ শতাংশ তরুণ দেশকে নিয়ে আশাবাদী।

বিওয়াইএলসি প্রতি পাঁচ বছর পর পর নির্বাচনের আগে তরুণদের নিয়ে এই জরিপ পরিচালনা করে থাকে। সমসাময়িক বাংলাদেশে যুব সমাজের অবস্থান এবং ভবিষ্যৎ চিন্তা নিয়ে বিওয়াইএলসি ও ব্র্যাক সেন্টার ফর পিস অ্যান্ড জাস্টিস (সিপিজে) যৌথভাবে এই জরিপ পরিচালনা করে।

জরিপে বলা হয়, দেশে আগামীতে যেকোনো নির্বাচনে ৭৪ শতাংশ তরুণ (১৬-৩৫ বছর বয়সী) ভোট দিতে চান। তবে ১৮-৩৫ বছর বয়সীদের ৭২ শতাংশ আগামী বছর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া নির্বাচনে ভোট দিতে চান।

এতে বলা হয়েছে, ৮৮ দশমিক ৮ শতাংশ যুবক মনে করেন দেশে দুর্নীতি রোধ করা হোক। এটা তাদের প্রধান চাওয়া। ৬৭ দশমিক ৩ শতাংশ চান বেকারত্ব দূর হোক ও দক্ষতাকেন্দ্রিক চাকরির বাজার তৈরি হোক। ৪৪ দশমিক ৭ শতাংশ মনে করেন বাংলাদেশ শান্তিপূর্ণ দেশ। তবে ৫৫ দশমিক ৩ শতাংশ মনে করেন বাংলাদেশ শান্তিপূর্ণ নয়। ৪২ দশমিক ৭ শতাংশ মনে করেন দেশে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠিত হয়নি। ৪২ শতাংশ বাংলাদেশ ছাড়তে চান, এদের মধ্যে ৮৫ শতাংশ বাংলাদেশে ফিরতে চান যদি বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক ও রাজনৈতিক পরিস্থিতি, চাকরি, শিক্ষা- এগুলোর উন্নতি হয়।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ইয়ুথ লিডারশিপ সেন্টারের (বিওয়াইএলসি) নির্বাহী পরিচালক তাহসিনাহ আহমেদ বলেন, দেশের বিশাল সংখ্যক যুবক দেশের বাইরে চলে যেতে চান। তবে আশার কথা হচ্ছে দেশের আর্থ-সামাজিক পরিস্থিতি, চাকরি, শিক্ষার মান উন্নয়ন হলে তাদের প্রায় ৮৫ শতাংশই দেশে ফিরতে চান। তারা দেশের জন্য কাজ করতে চান। এটি বড় একটি বিষয়। এছাড়া যুবকদের সামাজিক, রাজনৈতিক সব প্রেক্ষাপট মিলিয়েই যে মত প্রকাশের স্বাধীনতা তা কম মনে করছেন অনেকে। এ বিষয়ে আমাদের দেশের নীতি-নির্ধারকরা ব্যবস্থা নেবেন।

তিনি বলেন, আমাদের এই জরিপ কারও পক্ষে কিংবা বিপক্ষে গিয়ে নয়। যারা সিদ্ধান্ত নেন তাদের কাছে বিষয়গুলো তুলে ধরাই উদ্দেশ্যে। এতে করে তাদের সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজ হবে।

জরিপে গবেষক হিসেবে কাজ করেন বিওয়াইএলসি থেকে সাকির আহমেদ, ইমতিয়াজ উদ্দীন আহমেদ ও আবুল খায়ের সজীব। ব্র্যাক সিপিজে থেকে হোসাইন মোহাম্মদ ওমর খৈয়াম ও আল মুক্তাদির ইলাহী ইশমাম জরিপে গবেষক হিসেবে কাজ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ইয়ুথ লিডারশিপ সেন্টারের (বিওয়াইএলসি) প্রতিষ্ঠাতা ও এক্সিকিউটিভ চেয়ারপার্সন এজাজ আহমেদ, ব্র্যাক সিপিজের গবেষণা পরিচালক ড. এম সানজীব হোসেন, গবেষণা সহযোগী তাসনিয়া খন্দকার বক্তব্য রাখেন।


একুশে সংবাদ/জ.ন.প্র/জাহা/এসআর

Link copied!