ঢাকা মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২২, ৫ মাঘ ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

ইনফিনিক্স হট ১১এস: ১৬ হাজারের কম বাজেটে সেরা গেমিং স্মার্টফোন?


Ekushey Sangbad
তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
০৪:৫০ পিএম, ৩ নভেম্বর, ২০২১
ইনফিনিক্স হট ১১এস: ১৬ হাজারের কম বাজেটে সেরা গেমিং স্মার্টফোন?
ছবি: একুশে সংবাদ

ছবি: একুশে সংবাদ

বিশ্বের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ইনফিনিক্স তার নতুন গ্রাহক শ্রেণি তৈরির উদ্দেশ্যে ২০২১ সালে ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে বেশ কিছু ‘মিড-রেঞ্জ’ ও ‘লো-এন্ড’ মোবাইল  বাজারে এনেছে। বিগত এক বছর যাবৎ ইনফিনিক্স নজর দিয়েছে স্মার্টফোন গেমিং ইন্ডাস্ট্রিতে । তারই ধারাবাহিকতায় বাজারে এসেছে গেমিং ও বিনোদনের জন্য কাঙ্ক্ষিত ও ইনফিনিক্স হট সিরিজের একেবারেই নতুন স্মার্টফোন ‘হট ১১এস’।   

এর আগে গ্রাহকদের চাহিদা মেটাতে বিশেষ সব ফিচারের ‘হট ১০এস’ বাজারে আনার উদ্যোগ ছিল ইনফিনিক্সের উল্লেখযোগ্য প্রচেষ্টা। ডিভাইসটি হাতে পাওয়ার পর ব্যবহারকারীরা এটির বৈচিত্র্যময় ফিচার সমূহ দেখে অভিভূত হয়ে যান। এর কয়েক মাস পর এবার সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ইনফিনিক্স হট ১১এস স্মার্টফোনটি তাদের কাছে আরো অতুলনীয় হয়ে ধরা দিয়েছে।

ইনফিনিক্স হট ১১এস এর নানাবিধ সুবিধা, নান্দনিকতা, সক্ষমতা ও অভিনবতার মিশেল, এটিকে অন্যান্য ডিভাইসের তুলনায় অনন্য করে তুলেছে। স্মার্টফোনটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে নিচের তথ্যে আপনিও চোখ বুলিয়ে নিতে পারেন:


শক্তিশালী মিডিয়াটেক হেলিও জি৮৮ প্রসেসর দিবে ব্যতিক্রমী অভিজ্ঞতা:

দুটি আর্ম কর্টেক্স-এ৭৫ সিপিইউ সম্বলিত মিডিয়াটেক হেলিও জি৮৮ হচ্ছে একটি উচ্চ-সক্ষমতার চিপসেট, যেটি মোবাইলের কার্যকারিতা বৃদ্ধি করে সর্বোচ্চ ২ গিগাহার্জ পর্যন্ত এবং গেমিংয়ের ক্ষেত্রে গেমারদের অসাধারণ অভিজ্ঞতা এনে দেয়। এই ডিভাইসটিকে  আরো ‘রেসপন্সিভ’ অর্থাৎ কর্মক্ষম করে তুলতে, দ্রুত অ্যাপ লোডিং ও ক্যামেরায় ছবি তোলার ক্ষেত্রে ইনফিনিক্স হট ১১এস ‘স্টেট অব আর্ট’ টেকনোলজি ব্যবহার করে। সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের ফলে ডিভাইসটির মাধ্যমে গেমাররা বাধা-বিঘ্নহীনভাবে ‘ভারী ভারী গেম’ সমূহ দীর্ঘসময় ধরে খেলতে পারবেন।

প্রায় সমমূল্যের অন্যান্য স্মার্টফোনের প্রসেসরের তুলনায় হেলিও জি৮৮ পারফরম্যান্সে অনেক এগিয়ে ও এটি  ‘অন্তুতু’ সূচকে সর্বোচ্চ স্কোরেরও অধিকারী। তাই বাজেটের দিকটা ভেবে দেখলে হেলিও জি৮৮ প্রসেসর একই দামের অন্য স্মার্টফোনের সঙ্গে ইনফিনিক্স হট ১১এস’র পার্থক্য গড়ে দেয়।


উন্নত ৯০ হার্টজ ৬.৭৮” এফএইচডি+ কমনীয় ডিসপ্লে:

ইনফিনিক্স ভক্তরা এখন ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সম্বলিত ৬.৭৮” এফএইচডি + ডিসপ্লেতে আরো বাস্তবিক ভিডিও উপভোগের অভিজ্ঞতা লাভ করতে পারবেন। স্ক্রিনে দ্রুত কাজ করা বা গেম খেলার ক্ষেত্রে ইনফিনিক্স হট ১১এস রয়েছে বাড়তি সুবিধা। স্মার্টফোনটির  ১৮০ হার্টজ টাচিং স্যাম্পলিং রেট সক্ষমতা স্ক্রিনে যেকোনো স্পর্শ দ্রুত শনাক্ত করতে সক্ষম। ৯০ হার্টজ এফএইচডি+ রেজ্যুলশন এবং  ৬.৭৮” ডিসপ্লে গেমিং, ছবি, ভিডিওসহ মিডিয়া ব্যবহারে অত্যন্ত কার্যকরী। সবমিলিয়ে স্ক্রিন ‘সোয়াইপ’ কিংবা ‘হাই-স্পিড’ মুভি চলাকালে ৯০ হার্জ এফএইচডি+ ডিসপ্লেতে কোনো ‘ল্যাগিং’ অর্থাৎ ‘ক্রুটি’ অথবা ফ্রেম ড্রপ পরিলক্ষিত হয় না। 

৫০ মেগাপিক্সেল ট্রিপল এআই নাইটস্কেপ ক্যামেরায় দিনে বা রাতে যেকোনো আলাতে তোলা যায় উজ্জ্বল ছবি এবং ম্যাক্রো ফটোগ্রাফি:

ইনফিনিক্স হট ১১এস ক্যামেরায় রয়েছে ১.৬ ওয়াইড-অ্যাপারচার সমৃদ্ধ ৫০ মেগাপিক্সেল ট্রিপল লেন্স ও এআই (আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স) সক্ষমতায় ছবি তোলার সুযোগ। স্মার্টফোনটির সুপার নাইটস্কেপ ব্যবহারকারীদের কম আলোতে কিংবা অন্ধকারে মনোমুগ্ধকর ছবি তোলার সুযোগ করে দেয় এবং এআই ‘ইন্টেলিজেন্ট সিন রিকগনিশনের’ মাধ্যমে ছবির মান বাড়িয়ে দেয় বহুগুণ।

এই স্মার্টফোন ব্যবহার করে ২৪০এফপিএস স্লো-মোশন শ্যুটও করতে পারবেন গ্রাহকরা। এছাড়া গতিশীল ভিডিও ধারণের পাশাপাশি ২কে কোয়ালিটির ভিডিও রেকর্ডিং ফিচার ব্যবহারকারীদের বাস্তবিক অভিজ্ঞতা লাভের সুযোগ করে দেবে ।

হট ১১এস এ আরো রয়েছে ‘এআই’ পোট্রেট যুক্ত ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা, যাতে উচ্চ রেজ্যুলেশনের ছবি তোলা যায়। ইনফিনিক্সের সর্বশেষ সিরিজের এই ফোনে আই অটো ফোকাস, অটো ব্লার ভিডিও, নাইট সিন ফটোগ্রাফি মুড, স্মার্ট বিউটি টেক ফিচার সহ বিভিন্ন সুবিধা রয়েছে।

৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি ও নিরাপদ চার্জ সুবিধা:

ইনফিনিক্স হট ১১এস এ রয়েছে ৫০০০ এমএএইচ দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি, যা এই মূল্যের মধ্যে স্ট্যান্ডার্ড ফিচারে এ পরিণত হয়েছে। এই ব্যাটারির ফলে ব্যবহারকারীরা নিরবচ্ছিন্নভাবে স্মার্টফোনটি ব্যবহার করতে পারবেন এবং ইচ্ছেমতো সার্বক্ষণিক মেতে উঠতে পারবেন গেমিং এ। ইনফিনিক্স ডেটা ল্যাব টেস্টিং অনুসারে পূর্ণ চার্জের পর মোবাইলটি একনাগাড়ে  ৬০ দিন ‘স্ট্যান্ডবাই টাইম’ অর্থাৎ টানা চলতে পারবে, ১৪২ ঘণ্টা গান শোনা যাবে, ১৩ ঘণ্টা এক নাগাড়ে গেম খেলা যাবে অথবা ফোনে কথা বলা যাবে ৫১ ঘণ্টা। 

এছাড়া বিল্ট-ইন নিরাপদ চার্জ টেকনোলজির ফলে ডিভাইসটি সম্পূর্ণ চার্জযুক্ত হলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে পাওয়ার নিষ্ক্রিয় হয়ে যাবে। এতে ফোন ওভারহিটিং থেকে রক্ষা পাবে ও বিদ্যুৎ অপচয় রোধ হবে। এছাড়া স্মার্টফোনের পাওয়ার ম্যারাথন টেকনোলজি ৫ শতাংশ চার্জেও অতিরিক্ত ২ ঘণ্টা কথা বলার সুযোগ করে দেয়। এতে আরো রয়েছে ২৫ শতাংশ ইমার্জেন্সি ব্যাটারি লাইফ। হট ১১এস এর সঙ্গে আরো আছে টাইপ সি চার্জার, যেটি ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং এ সক্ষম। এটির মাধ্যমে ৫০ মিনিটে ব্যাটারি লাইফ বাড়বে ৫০ শতাংশ।


ডিজাইন:

স্মার্টফোনের অভিনব ওয়েভি গ্র্যাডিয়েন্ট ডিজাইন হট ১১এস’কে দেখতে স্বতন্ত্র করে তুলেছে। এতে আঙুলের ছাপ-প্রতিরোধী ডিসপ্লে রয়েছে। ফলে স্মার্টফোনে সহজে দাগ পড়ে না। এছাড়া হট ১১এস তার পূর্ববর্তী মডেল এর ডিজাইন থেকেও আলাদা। বৃত্তাকার বড় একটি প্রধান ক্যামেরাকে ঘিরে সাজানো ক্যামেরা মডিউলটি। তাই ফোনটিকে অতিরিক্ত স্ফীত মনে হয় না। নতুন ডিজাইনে হট ১১এস চমৎকার ও আকর্ষণীয়।

আরো অন্যান্য সুবিধা সমূহ: ইনফিনিক্সের হট ১১এস ফোনটি চলবে অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এক্সওএস ৭.৬ অপারেটিং সিস্টেমে এবং ব্যবহারকারীদের এটি ভিন্ন অভিজ্ঞতা দেবে। নেটওয়ার্ক পারফরম্যান্সের ক্ষেত্রে ডুয়েল  ৪জি সিম ইন্টিগ্রেশন ভিওএলটিই/ভিআইএলটিই সার্ভিসের মাধ্যমে অসাধারণ ভয়েস ও ভিডিও কল সুবিধা পাবেন ব্যবহারকারীরা। স্মার্টফোনে রয়েছে ৪জিবি/৬জিবি র্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ সুবিধা। আরো আছে ডেডিকেটেড মাইক্রো এসডি কার্ড স্লট, যেটি ৫১২জিবি পর্যন্ত বর্ধিত করা যাবে। এই মোবাইলে আরো রয়েছে ডার-লিংক আল্টিমেট গেমার বুস্টার, ফেসিয়াল অ্যান্ড ফিঙ্গার আনলোক, ডিটিএস সহ সিনেম্যাটিক ডুয়েল স্পিকার, যেটি সাউন্ড ইফেক্ট নিয়ন্ত্রণ এবং গেমিং, মিউজিক ও মুভি উপভোগে ব্যতিক্রমী অভিজ্ঞতা এনে দেয়। ক্রেতারা গ্রিন ওয়েভ অ্যান্ড পোলার ব্ল্যাক দুটি রঙে ডিভাইসটি কিনতে পারবেন। 

এবার ভাবুন গ্রাহকদের সর্বাধুনিক প্রযুক্তির এই ফোনটিই কেনা উচিত নয় কি?  

এতসব আকর্ষণীয় ফিচারের সঙ্গে পরিচিত হয়ে এই সিদ্ধান্তে কি আসা যায় না যে, সমৃদ্ধ ইনফিনিক্স হট ১১এস বেস্ট গেমিং স্মার্টফোন? হেলিও জি৮৮ প্রসেসর, ৯০ হার্টজ ৬.৭৮” এফএইচডি+ এবং ৫০ মেগাপিক্সেল ট্রিপল এআই নাইটস্কেপ ক্যামেরার সঙ্গে স্থিতিশীল পারফরম্যান্স ও ব্যাটারি লাইফ নিশ্চিতভাবে এটিকে অন্যতম আকর্ষণীয় অপশনে পরিণত করেছে। অন্য ব্র্যান্ডগুলোর সঙ্গে ইনফিনিক্স হট ১১এস কে ভালো প্রতিযোগিতায় পড়তে হলেও ১৬ হাজারের কম বাজেটে এটিই নিশ্চিতভাবে গেমিংপ্রেমীদের জন্য সেরা স্মার্টফোন। ব্যবহারের পর গ্রাহকরা নির্দ্বিধায় স্বীকার করবেন এই দামের মধ্যে এটি একটি অভাবনীয় স্মার্টফোন যেটির মাধ্যমে সহজে বাস্তবিক জীবনের অভিজ্ঞতা লাভ করা যায়। সবমিলিয়ে হট ১১এস এর  মাধ্যমে ইনফিনিক্স এবার নিশ্চিতভাবে “ছয় হাঁকিয়েছে।”     

ইনফিনিক্স হট ১১এস দেশজুড়ে পাওয়া যাচ্ছে রিটেইল ও ব্র্যান্ড স্টোরগুলোতে। হট ১১এস এর ৪জিবি র্যাম ভার্সনটির দাম মাত্র ১৪ হাজার ৯৯০ টাকা ও ৬জিবি র্যাম ভার্সনটির দাম পড়বে মাত্র ১৫ হাজার ৯৯০ টাকা।

একুশে সংবাদ/আল-আমিন