ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর, ২০২১, ৬ কার্তিক ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

বগুড়ার চাঞ্চল্যকর মিনতি হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার করলো পিবিআই


Ekushey Sangbad
নিজস্ব প্রতিবেদক
০১:১৭ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১
বগুড়ার চাঞ্চল্যকর মিনতি হত্যা মামলার  আসামী গ্রেফতার করলো পিবিআই

পিবিআই জানায় বগুড়ার চাঞ্চল্যকর মিনতি হত্যা হ্যার বিষয়টি বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার পর ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি হয়। পরে মামলাটি পিবিআই তদন্ত শুরু করে। পুলিশ জানায়  বগুড়া গাবতলী থানার মামলা নং-৪ তারিখ ৮/০৯/২০২১ ধারা ৩০২/৩৪ পেনাল কোড এর এজাহারনামীয় ৩। আসামী শ্রী নয়ন কুমার কে গত ২১/০৯/২০২১ তারিখ রাত্রি অনুমান ১.৩০ ঘটিকায় আসামী নয়নের নিজ বসত বাড়ী হইতে গ্রেফতার করলো পিবিআই বগুড়া জেলা পুলিশ। 

ডিসিসিড শ্রীমতি মিনতি রানীর (২২) বগুড়া জেলার সোনাতলা থানাধীন হাসরাজ গ্রামের শ্রী ভবেশ প্রাং এর কন্যা। গত  ১০/১২/২০১৬ তারিখে অত্র মামলার এজাহার নামীয় ১। আসামী শ্রী মিলন কুমার সরকারের সহিত  শ্রীমতি মিনতি রানীর বিবাহ হয়। বিবাহের সময়  শ্রীমতি মিনতি রানীর পিতা-মাতা তাদের জামাই এজাহার নামীয় ১। আসামী মিলন কে নগদ ১,২০,০০০ টাকা ও শ্রীমতি মিনতি রানীকে দেড় ভরি স্বর্নের গয়না প্রদান করে।  শ্রীমতি মিনতি রানীর মাতা পূর্ব হইতে একটি দামড়া গরু প্রতিপালন করে, সেই গরুটি তিনি গত কুরবানীর সময় ৭৩,০০০ টাকা বিক্রয় করে। বিষয়টি জানার পর আসামী শ্রী মিলন কুমার সরকার ডিসিসিড শ্রীমতি মিনতি এর নিকট ব্যবসা করার জন্য উক্ত টাকা দাবী করে এবং তাকে তার মায়ের নিকট হতে উক্ত টাকা এনে দেওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকে। এক পর্যায়ে শ্রীমতি মিনতি তার স্বামীর দাবীকৃত টাকা দিতে ব্যার্থ হলে আসামী শ্রী নয়ন চন্দ্র সরকারের সহযোগিতায় অত্র মামলার ১/২ নং আসামী ডিসিস্ডি শ্রীমতি মিনতি রানীকে গত  ২৬/০৭/২০২১ তারিখ রাত্রি ৭ ঘটিকায় মারধর করে আহত করে এবং বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে। উক্ত ঘটনায়  শ্রীমতি মিনতি রানীর মাতা শ্রীমতি মধু বালারানী, স্বামীঃ শ্রীভবেশ বাদী হয়ে  শ্রীমতি মিনতি রানীর স্বামীসহ ৪ জনকে আসামী করে বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়ের করলে বিজ্ঞ আদালত মামলাটি তদন্তের জন্য পিবিআই বগুড়া জেলা কে নির্দেশ প্রদান করেন। বিজ্ঞ আদালতের আদেশে পিবিআই বগুড়া জেলা মামলাটির তদন্ত কার্যক্রম শুরু করে। বিজ্ঞ আদালতের নিদের্শে পুলিশ সুপার পিবিআই বগুড়া জেলা মহোদয়ের হাওলা মতে পুলিশ পরিদর্শন (নিঃ)  আনোয়ার হোসেন বিধি মোতাবেক মামলাটির তদন্তভার গ্রহণ করে তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেন।

ডিআইজি পিবিআই প্রধান জনাব বনজ কুমার মজুমদার এর সঠিক তত্ত্ববধান ও দিক নির্দেশনায় পিবিআই বগুড়া জেলা ইউনিট ইনচার্জ পুলিশ সুপার আকরামুল হোসেন এর সার্বিক সহযোগিতায় মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শন (নিঃ)  আনোয়ার হোসেন  গত ২১/০৯/২০২১ তারিখ রাত্রি অনুমান ১.৩০ ঘটিকায় এজাহার নামীয় ৩। আসামী শ্রী নয়ন কুমার কে তার নিজ বসত বাড়ী হইতে গ্রেফতার করে।

এ বিষয়ে পিবিআই বগুড়া জেলার ইউনিট ইনচার্জ পুলিশ সুপার জনাব মোঃ আকরামুল হোসেন জানান, দায়িত্ব পাওয়ার পর আমরা দীর্ঘ সময় তদন্ত করে এজাহার নামীয় ৩। আসামী শ্রী নয়ন কুমার কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হই। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামী শ্রী নয়ন কুমার ঘটনার সাথে জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করলে গত ২১ সেপ্টেম্বর  বিধি মোতাবেক বিজ্ঞ আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে।

 

একুশে সংবাদ/বেলাল দেওয়ান /আ