ঢাকা সোমবার, ১৫ আগস্ট, ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
Janata Bank
Rupalibank

ছাত্রলীগের সভাপতির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন


Ekushey Sangbad
জেলা প্রতিনিধি,বাগেরহাট
০৩:৫৪ পিএম, ২৬ জুলাই, ২০২২
ছাত্রলীগের সভাপতির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বাগেরহাটের শরণখোলায় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকের উপর হামলার ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান আসাদকে জড়িয়ে মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন ও ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে (২৬ জুলাই) মঙ্গলবার বেলা ১টার দিকে উপজেলা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

লিখিত বক্তব্যে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, খোন্তাকাটা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন খাঁন মহিউদ্দিন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক তাজু সরদার সহ কতিপয় নেতা কর্মী আমার ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতে গত ২৫ জুলাই তাকে জড়িয়ে শরণখোলা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করেন। সেখানে আমার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, জমিদখল ও আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের উপর হামলা সহ বিভিন্ন অভিযোগ তুলে ধরা হয়। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। আমি রাজনৈতিক গ্রুপিং প্রতিহিংসার স্বীকার।

গত (২৩ জুলাই) শনিবার উপজেলার খোন্তাকাটা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জসিম উদ্দিন সিদ্দিক গাজী তার ভাই মনির গাজী ও বাবুল হাওলাদার ৩৭নং পশ্চিম বানিয়াখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আমার ভগ্নিপতি আঃ মালেক হাওলাদারকে উপবৃত্তি সংক্রান্ত ঘটনার জেরে মারধর করেন। খবর পেয়ে শিক্ষকের স্ত্রী ও আমার বোন নাসিমা বেগম, ছেলে রাসেল ও বায়েজিদ ছুটে আসলে তাদেরকেও পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। আহতদের শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে ওই শিক্ষক বিদ্যালয়ে গেলে পুনরায় সিদ্দিক গাজী, তার ভাই মনির গাজী ও বাবুল হাওলাদার বিদ্যালয়ের মধ্যেও তাকে মারপিট করে। একটি দোকানের মধ্যে আটকে রাখে। 

পরে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে শিক্ষকের পুত্র রাসেল ৯৯৯ এ ফোন করলে শরণখোলা থানা পুলিশের একটি দল স্কুল শিক্ষক আঃ মালেক হাওলাদারকে উদ্ধার করেন। একজন শিক্ষক ও তার পরিবারের উপর হামলার ঘটনা ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে ও ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন খাঁন মহিউদ্দিন আমার ভগ্নিপতির বাড়িঘর জালিয়ে দিতে ইউপি সদস্য সিদ্দিক গাজীকে হুকুম দেয়। এ সকল ঘটনা আমি জেনে ফেলায় ও প্রতিবাদ করায়  ইউপি চেয়ারম্যানসহ আওয়ামী লীগের একটি অংশ ষড়যন্ত্র করে আমাকে ফাঁসাতে মিথ্যা অভিযোগ তোলেন বলে আসাদ দাবী করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে খোন্তাকাটা ইউপি চেয়ারম্যান মো. জাকির হোসেন খাঁন মহিউদ্দিন বলেন, ছাত্রলীগ সভাপতি আসাদুজ্জামান তার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ এনেছে তা সত্য নয়। বরং আসাদের বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগের প্রমাণ তার কাছে রয়েছে। 

 

 

 

একুশে সংবাদ/মা.বি/এস.আই