AB Bank
ঢাকা রবিবার, ২৩ জুন, ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

রেমালের তান্ডব, ইবিতে প্রভাব নেই বলছে রেজিস্ট্রার


রেমালের তান্ডব, ইবিতে প্রভাব নেই বলছে রেজিস্ট্রার

পুরো শক্তি নিয়ে দেশের উপকূলীয় এলাকায় তাণ্ডব চালাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’। ঝড়ের প্রভাবে ঘর-বাড়ি, দোকান-পাট তছনছ হয়েছে, ভেঙে পড়েছে গাছপালা। ‘রেমালের’ প্রভাবে দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি এবং ঝোড়ো বাতাস শুরু হয়েছে। রোববার মধ্যরাত থেকে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) কুষ্টিয়া এলাকায়ও তীব্র বাতাসসহ বৃষ্টি হচ্ছে। এতে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে গাছপালা ভেঙে পড়েছে। উড়ে গেছে নির্মাণ শ্রমিকদের আবাস্থলের টিনের ছাউনি। তবুও ইবিতে ঘূর্ণিঝড় রেমালের তেমন কোনো প্রভাব নেই বলে জানিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এইচ এম আলী হাসান।  

এদিকে এমন বৈরী আবহাওয়ায়ও সোমবার বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ক্লাস-পরীক্ষা চালু রেখেছে। এতে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। 

জানা যায়, রোববার মাঝরাত থেকে শুরু হওয়া তীব্র বাতাসে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন জায়গার গাছপালা ভেঙে পড়েছে। প্রধান ফটকের সামনের কুষ্টিয়া-খুলনা মহাসড়কের উপর গাছের ডাল ভেঙে পড়ায় রাস্তার একপাশ ব্লক হয়ে গেছে। সকাল থেকে ঝড়ো বাতাস ও বৃষ্টির মাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ায় কুষ্টিয়া ও ঝিনাইদহ শহরে অবস্থান করা শিক্ষার্থীদের পক্ষে ক্যাম্পাসে আসা কঠিন হয়ে পড়েছে। 

এদিকে হলে অবস্থান করা শিক্ষার্থীরাও বৈরী আবহাওয়ার কারণে বাইরে বের হতে পারছে না। রোববার রাত থেকে বিদ্যুৎ না থাকায় হলগুলোতে তীব্র পানির সংকট দেখা দিয়েছে। ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়েছে হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা।

তারা জানান, হলে দীর্ঘসময় ধরে বিদ্যুৎ না থাকায় টয়লেটে পানি নেই। বাহিরে তুমুল ঝড়-বৃষ্টি হচ্ছে। এরমধ্যে অনেকেরই ক্লাস-পরীক্ষা আছে। পানি না থাকায় সকালে উঠে ফ্রেশ হওয়া এবং গোসল করতে পারছি না। সবমিলিয়ে খুব বাজে পরিস্থিতির মধ্যে আছি।

এমন পরিস্থিতিতেও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ক্লাস-পরীক্ষা চালু রাখায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। প্রশাসনের এমন সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন শিক্ষার্থীরা। এমন পরিস্থিতিতে ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ রাখার দাবি জানিয়েছেন অনেকেই।

এ বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এইচ এম আলী হাসান বলেন, আমাদের এখানে তেমন কোনো প্রভাব নেই। স্বাভাবিক ভাবেই ক্লাস-পরীক্ষা চলবে। এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষ আমাকে কিছু জানাইনি। পরে যদি পরিস্থিতির অবনতি হয় তখন সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে জানতে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমানের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

 

একুশে সংবাদ/এস কে
 

Link copied!