AB Bank
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

২০ বছর আগের প্রতিশোধ নেয়ার সুযোগ ভারতের সামনে


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
০৭:১৫ পিএম, ১৮ নভেম্বর, ২০২৩
২০ বছর আগের প্রতিশোধ নেয়ার সুযোগ ভারতের সামনে

ওয়ানডে বিশ্বকাপ ফাইনালে দ্বিতীয়বারের মত মুখোমুখি হবে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। আগামীকাল আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে শিরোপা নির্ধারনী ম্যাচটি।২০ বছর আগে ২০০৩  বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলেছে ভারত-অস্ট্রেলিয়া। দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গে অনুষ্ঠিত সেই ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ১২৫ রানে লজ্জার হার বরণ করেছিলো ভারত।

ফাইনালে টস জিতে প্রথমে অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাটিংয়ে পাঠান ভারতের তৎকালীন  অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী। দলকে ১০৫ রানের সূচনা এনে দেন অস্ট্রেলিয়ার দুই ওপেনার এডাম গিলক্রিস্ট ও ম্যাথু হেইডেন।  গিলক্রিস্ট ৪৮ বলে ৫৭ রান করে প্রথম ব্যাটার হিসেবে আউট হন। ৫৪ বলে ৩৭ রানে ফিরেন হেইডেন। ২০ ওভারে ১২৫ রানের মধ্যে অসি দুই ওপেনারকে বিদায় করেন ভারতের স্পিনার হরভজন সিং।

এরপর ভারতয়ি বোলারদের উপর তান্ডব চালান অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক রিকি পন্টিং ও ড্যামিয়েন মার্টিন। তৃতীয় উইকেটে অবিচ্ছিন্ন ২৩৪ রান যোগ করে অস্ট্রেলিয়াকে ৩৫৯ রানের বড় সংগ্রহ এনে দেন দু’জনে। ৪টি চার ও ৮টি ছক্কায় ১২১ বলে অপরাজিত ১৪০ রান করেন পন্টিং। ৮৪ বলে অনবদ্য ৮৮ রান করেন মার্টিন। আটজন বোলার ব্যবহার করে অস্ট্রেলিয়ার রান বন্যা আটকাতে পারেনি ভারত।

জবাবে অস্ট্রেলিয়া বোলারদের সামনে নিজেদের মেলে ধরতে পারেনি পুরো বিশ^কাপে দারুন পারফরমেন্স করা ভারতীয় ব্যাটাররা। ৬৪ বল বাকী থাকতে ২৩৪ রানে অলআউট হয় ভারত। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৮২ রান করেন ওপেনার বিরেন্দার শেবাগ। ফাইনালে সুপার ফ্লপ ছিলেন টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় ভারতের শচীন টেন্ডুলকার। মাত্র ৪ রান করেছিলেন তিনি। বল হাতে অস্ট্রেলিয়ার গ্লেন ম্যাকগ্রাথ সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন। 

এবার ঐ ফাইনালে হারের প্রতিশোধ নেওয়ার সুবর্ন সুযোগ ভারতের সামনে।

২০০৩ সালের ফাইনালের কথা মনে করিয়ে দিতেই, ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা বলেন, ‘এটা ছিল ২০ বছর আগের ফাইনাল ম্যাচ । তার সাথে কালকে শিরোপা নির্ধারনী ম্যাচের কোন মিল নেই। তারপরও বিষয়টি  সবাই জানে। আমরা চেষ্টা করবো, নিজেদের সেরাটা দিয়ে এবার ঘরের মাঠের বিশ্বকাপ ট্রফি জিততে।’

বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার রেকর্ড সাফল্য ও সমৃদ্ধ ইতিহাস নিয়ে গর্বিত অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। তিনি বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া পাঁচবার শিরোপা জিতেছে। এমন সাফল্য যে কাউকে গর্বিত করবে। আরও একবার ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে সাফল্যে মোড়ানোর সুযোগ আমাদের সামনে। আমরা আশাবাদি, কালকের ফাইনালেও জিতবো  আমরা।’ 

একুশে সংবাদ/এস কে 

 

Link copied!