ঢাকা মঙ্গলবার, ২৪ মে, ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

ফারুক আহমেদের হাতে ‍‍`বিদ্রোহী‍‍` কবিতার শতবর্ষ 


Ekushey Sangbad
নিজস্ব প্রতিবেদক
০৪:১১ পিএম, ১৭ মার্চ, ২০২২
ফারুক আহমেদের হাতে ‍‍`বিদ্রোহী‍‍` কবিতার শতবর্ষ 
ছবি: একুশে সংবাদ

ছবি: একুশে সংবাদ

সাম্যবাদী কবি কাজী নজরুল ইসলামের লেখা অবিস্মরণীয় কবিতা 'বিদ্রোহী'-এর প্রকাশের শতবর্ষে, ৪৫ তম আন্তর্জাতিক কলকাতা পুস্তক মেলার মুক্ত মঞ্চে ৪ মার্চ, ২০২২ তারিখে ছায়ানট (কলকাতা) আয়োজন করে বিশেষ অনুষ্ঠান 'চির উন্নত মম শির'। অনুষ্ঠানের শুরুতেই সুদীপা রায়ের পরিচালনায় 'বিদ্রোহী' কবিতা সমবেতভাবে আবৃত্তি করা হয়। একক কবিতা আবৃত্তি করেন প্রণমি ব্যানার্জী, মল্লিকা রায়, সুস্মিতা মুখার্জী দাস, তাপসী হালদার, তাপসী দাস, ক্যামেলিয়া চক্রবর্তী নন্দী, ইন্দ্রাণী লাহিড়ী, কল্যাণী ভট্টাচার্য ও কৃতি বড়ুয়া। সমগ্র অনুষ্ঠানটির পরিকল্পনা ও পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন ছায়ানট (কলকাতা)-এর সভাপতি সোমঋতা মল্লিক।

৬ মার্চ জাগো বাংলার মঞ্চে ছায়ানটের শিল্পীরা সমবেতভাবে কাজী নজরুল ইসলামের দেশাত্মবোধক ও জাগরণমূলক গান পরিবেশন করেন। এই অনুষ্ঠানে দর্শকদের অংশগ্রহণ ছিল লক্ষ্যনীয়। ছায়ানটের পক্ষে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন সোমঋতা মল্লিক, সোমা রায় বর্মন, গৌরী ধর, শুভ্রা ভট্টাচার্য ও সুরূপা মল্লিক। ঐ দিন বইমেলার শঙ্খ ঘোষ মঞ্চে ছায়ানটের পক্ষ থেকে উদার আকাশ পত্রিকার সম্পাদক, নজরুল প্রেমী ফারুক আহমেদ-এর হাতে 'বিদ্রোহী' কবিতার শতবর্ষ উপলক্ষে বিশেষ স্মারক তুলে দেন ছায়ানটের সভাপতি সোমঋতা মল্লিক। ভারতের স্বাধীনতা-সংগ্রামের অগ্নিপুরুষ নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মবার্ষিকী ও সাম্যবাদী কবি কাজী নজরুল ইসলামের অবিস্মরণীয় সৃষ্টি 'বিদ্রোহী' কবিতা-প্রকাশের ১০০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে সম্প্রতি প্রকাশিত হয় ছায়ানট (কলকাতা)-র বিনম্র শ্রদ্ধার্ঘ্য 'নেতাজী, নজরুল ও একটি আজাদ ভারতের স্বপ্ন' শীর্ষক একটি মূল্যবান ডেস্ক ক্যালেন্ডার। এই ক্যালেন্ডারের প্রতিটি পাতায় রয়েছে নজরুল-প্রেমী নেতাজী-বিষয়ক বিভিন্ন প্রাসঙ্গিক তথ্য ও বিশিষ্টজনদের উক্তি, সাথে ওঁদের বিভিন্ন বয়সের নানা ছবি। এই ক্যালেন্ডারটি ঐ অনুষ্ঠানে তুলে দেওয়া হয় সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ফারুক আহমেদ-এর হাতে। 

৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে, আন্তর্জাতিক কলকাতা পুস্তক মেলায় ছায়ানট (কলকাতা) আয়োজন করে বিশেষ অনুষ্ঠান "জাগো নারী জাগো বহ্নিশিখা"। কাজী নজরুল ইসলামের লেখা অত্যন্ত জনপ্রিয় নারী জাগরণমূলক গানের লাইন থেকেই এই অনুষ্ঠানের নামকরণ। প্রায় ১৪ বছর ধরে কাজী নজরুল ইসলামের সৃষ্টিকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দেওয়ার কাজে নিরলস পরিশ্রম করছেন ছায়ানটের সদস্যরা। আন্তর্জাতিক কলকাতা পুস্তক মেলার শঙ্খ ঘোষ মঞ্চে ছায়ানট আয়োজিত এই বিশেষ অনুষ্ঠানে বহ্নিশিখা সম্মান ২০২২ প্রদান করা হয় বিশিষ্ট নজরুল সঙ্গীতশিল্পী শ্রীমতী সুস্মিতা গোস্বামী এবং অধ্যাপক, নিউটাউন বই মেলার সাধারণ সম্পাদক, বাচিকশিল্পী শ্রীমতী ঊর্মিলা সেনকে। সাংস্কৃতিক জগতে বিশেষ অবদানের জন্য এই সম্মান প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠান শুরু হয় শ্রী দর্পনারায়ণ চট্টোপাধ্যায়ের পরিচালনায় পুনশ্চর শিল্পীদের সমবেত রবীন্দ্র সঙ্গীত পরিবেশনার মধ্য দিয়ে। 'আমি তোমার মাটির কন্যা' এবং 'তোমায় সাজাব যতনে'- এই দুটি গান সমবেতভাবে পরিবেশন করেন পুনশ্চর শিল্পীরা। 

একক কবিতা আবৃত্তি করেন সুস্মিতা মুখার্জী দাস, তাপসী হালদার, ক্যামেলিয়া চক্রবর্তী নন্দী, দেবারতি দাস সিনহা, টুটুন দাস, অর্ণব মুখার্জী এবং ইন্দ্রানী লাহিড়ী। শৌভিক শাসমলের পরিচালনায় দলীয় পরিবেশনায় ছিলেন বলাকার শিল্পীবৃন্দ। ছায়ানট (কলকাতা)-এর শিল্পীরা সমবেতভাবে ২টি নজরুলসঙ্গীত 'জাগো নারী জাগো বহ্নিশিখা' এবং 'জয় হোক জয় হোক-শান্তির জয় হোক, সাম্যের জয় হোক, সত্যের জয় হোক' পরিবেশন করেন। সমগ্র অনুষ্ঠানটির পরিকল্পনা ও পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন ছায়ানট (কলকাতা)-এর সভাপতি সোমঋতা মল্লিক।

একুশে সংবাদ/রা