ঢাকা শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭
Ekushey Sangbad
Janata Bank
করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

কিশমিশ ভেজানো পানির গুনাগুন  


Ekushey Sangbad

অক্টোবর ১৭, ২০২০, ১১:৫১ এএম
কিশমিশ ভেজানো পানির গুনাগুন  

কিশমিশ খুবই পরিচিত একটি খাবার। নানা রকমের উপাদেয় খাবার তৈরীতে এর জুড়ি নেই।কেক, ডেজার্টসহ এমন  অসংখ্য রেসিপি আছে যা তৈরিতে কিশমিশ দরকার।আর এটি এমনি খেতেও বেশ লাগে।কিশমিশ যে খাবারে শুধু স্বাদই এনে দেয় তা নয়।এর রয়েছে অনেকরকম স্বাস্থ্য উপকারিতা। অসংখ্য গুণে ভরা এই কিশমিশ।

রক্তস্বল্পতা দূর করতে কিশমিশ উপকারী। কিশমিশ শরীরে নতুন রক্ত তৈরিতে সাহায্য করে। লিভার বা যকৃত্পরিষ্কার রাখতেও কিশমিশের জুরি নেই। নিয়মিত কিশমিশ ভেজানো পানি পান করলে লিভার পরিষ্কার হয়।


গবেষণায় দেখা গেছে, কিশমিশ ভেজানো পানি পান করলে লিভারে জৈব রাসায়নিক প্রক্রিয়া শুরু হয়। ফলে শরীরের অভ্যন্তরে দ্রুত রক্ত পরিশোধন হতে থাকে। অন্তত টানা চারদিন কিশমিশ ভেজানো পানি পান করলে, পেট একদম পরিষ্কার হয়ে যাবে। পেটের সমস্যা থাকবে না। সেইসঙ্গে শরীর হবে সতেজ।

কিশমিশ হার্ট রাখতেও সাহায্য করে। এটি শরীরের জন্য ক্ষতিকারক কোলেস্টেরল দূর করে। কিশমিশে আছে নানা ধরনের ভিটামিন ও মিনারেল। শুধু কিশমিশ ভেজানো পানি পান করলেও সেই ভিটামিন ও মিনারেল শরীরে প্রবেশ করে। পানিতে ভেজানোর আরেকটি কারণ হলো, এতে শর্করার মাত্রা কমে। রক্ত পরিষ্কার করতে কিডনির পাশাপাশি লিভারকেও ভালোভাবে কাজ করতে হবে। তাই লিভার ও কিডনির সমস্যা হলে, ক্ষতিকারক পদার্থ শরীরে জমে আমাদের অসুস্থ করে তোলে। তাই লিভার ও কিডনিকে সবসময় চাঙ্গা রাখতে হবে।


 খুব চকচক করছে, এমন কিশমিশ কিনবেন না।চেষ্টা করুন গাঢ় রঙের কিশমিশ কিনতে।কী ধরনের কিশমিশ কিনছেন, সেটা খুব গুরুত্বপূর্ণ।২ কাপ পানি ও ১৫০ গ্রাম কিশমিশ নিন।  কিশমিশগুলোকে ভালো করে কয়েকবার ধুয়ে নিন। এরপর একটি পাত্রে দু-কাপ পানি দিয়ে সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। সকালে কিশমিশ ছেকে নিয়ে, সেই পানি হালকা গরম করে সকালে খালি পেটে পান করে নিন। অন্তত মিনিট ত্রিশেক অন্যকিছু খাবেন না। এভাবেই পরপর চারদিন খেতে হবে। শরীরে যে পরিবর্তনটা আসবে তা  নিজেই উপলদ্বি করবেন।

একুশে সংবাদ/তাশা 

Side banner