ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০২১, ৩ মাঘ ১৪২৭
Ekushey Sangbad
Janata Bank
করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

হাওরবাসীর স্বপ্নের সড়ক আজ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী


Ekushey Sangbad

১২:০১ এএম, অক্টোবর ৮, ২০২০
হাওরবাসীর স্বপ্নের সড়ক আজ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

৮৭৪ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত কিশোরগঞ্জের হাওর উপজেলা ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রামের মধ্যে সংযোগ স্থাপনকারী দৃষ্টিনন্দন 'অলওয়েদার' সড়ক আজ বৃহস্পতিবার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে সড়কটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করবেন তিনি।

বিস্তীর্ণ হাওর-জলাভূমির বুকচিড়ে সরীসৃপের মতো এঁকেবেঁকে চলা এ সড়কপথের অপরূপ নৈসর্গিক সৌন্দর্য ইতিমধ্যেই পর্যটকদের বিশেষভাবে আকৃষ্ট করেছে। সিটি বাজিয়ে চলছে নানা ধরনের গাড়ি। হাজারো পর্যটকদের ভিড়ে মুখরিত এখন এ হাওর সড়কপথ পর্যটন এলাকা।

প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক হাওরবাসীর স্বপ্নের এ বিস্ময়কর সড়কপথের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের ঘোষণা হাওরবাসীকে আরও উজ্জীবিত করে তুলেছে। এবার ওই সড়কপথ রাজধানী ঢাকা ও সিলেট মহাসড়ক পথের সঙ্গে সংযুক্তির অপেক্ষা হাওরবাসীর।

হাওরবাসীর কষ্ট লাঘবে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের অভিপ্রায় অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগে ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম উপজেলার মধ্যে সারা বছর চলাচলের লক্ষ্যে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর কর্তৃক ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম সড়ক নির্মাণ প্রকল্প গৃহীত হয়।

জানা গেছে, দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্জলের বৃহত্তর হাওরাঞ্চলের গেটওয়ে হিসেবে পরিচিত কিশোরগঞ্জের এ হাওরাঞ্চলের মধ্যযুগীয় জীবন ধারায় পরিবর্তন আনতে তাদের জীবনমান উন্নয়নে সরকার ব্যাপক কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। যোগাযোগ ও নৌপথ উন্নয়ন-রক্ষণাবেক্ষণ ব্যবস্থার পাশাপাশি চলছে সামাজিক অবকাঠামোগত উন্নয়নের বিশাল কর্মযজ্ঞ। দিনে দিনে পাল্টে যাচ্ছে মধ্যযুগীয় পীড়াদায়ক জীবনধারা ও সকল দৃশ্যপট।

এর মধ্যে কিশোরগঞ্জের হাওর উপজেলা ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রামের মধ্যে সংযোগ স্থাপনকারী দৃষ্টিনন্দন 'অলওয়েদার' সড়কপথ প্রকল্প অন্যতম। বর্ষায় নৌকা এবং শুকনোকালে পায়ে হেঁটেই যোগাযোগ রক্ষার সহজ উপায় ছিল তাদের। এ কারণে পরিবহন ও যোগাযোগের ভোগান্তি ছিল এ অঞ্চলের মানুষের নিত্যদিনের সঙ্গী।

এ তিন উপজেলার দিগন্তবিস্তৃত হাওর-জলাভূমির বুক চিড়ে সরীসৃপের মতো এঁকেবেঁকে বয়ে চলেছে শুকনো ও বর্ষা উভয় মৌসুমে চলাচল উপযোগী এ সড়কপথ। প্রথমবারের মতো চলছে নানা রকমের দ্রুতগদামী গাড়ি। এবারের বর্ষার শুরুতেই দেশ-বিদেশের হাজারো পর্যটকের ভিড় এ সড়কপথে অপার পর্যটন সম্ভাবনার হাতছানি দেয়।

কিশোরগঞ্জের সড়ক ও জনপথ বিভাগগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রাশেদুল আলম জানান, কিশোরগঞ্জের হাওরের আর্থসামাজিক ও জীবনমান উন্নয়নে ১২২৬ কোটি টাকা ব্যয়ে চারটি প্রকল্প বাস্তবায়িত হয়েছে।

প্রকল্পগুলো হচ্ছে, ইটনা-বড়িবাড়ি-চামড়াঘাট সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প, চামড়াঘাট মিঠামইন সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প, উজানচর-বাজিতপুর সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প এবং ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প।

এ চারটি প্রকল্পের আওতায় ফ্ল্যাক্সিবল বেজমেন্ট, ৩৪ কিলোমিটার আরসিসি বেজমেন্ট এবং চামড়াঘাট মিঠামইন সড়কে ২টি ফেরি সার্ভিস এবং ইটনা, বড়িবাড়ি চামড়া ঘাট সড়কে তিনটি ফেরি সার্ভিসসহ পাঁচটি ফেরি সার্ভিস চালু করা হয়েছে।

একুশে সংবাদ/বা.জা/এআরএম