AB Bank
ঢাকা সোমবার, ২০ মে, ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

আইপিএলে আর ফিরছেন না


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
০৯:৪৪ পিএম, ২২ এপ্রিল, ২০২৪
আইপিএলে আর ফিরছেন না

দিল্লি ক্যাপিটালসের জন্য বড় ধাক্কা! আইপিএল ২০২৪-এর বাকি ম্যাচ খেলতে আর অস্ট্রেলিয়া থেকে ফিরবেন না তাদের দলের অলরাউন্ডার মিচেল মার্শ। বলা যেতে পারে আইপিএল ২০২৪-এর বাকি সময়টা মিস করবেন মার্শ। আসলে আসন্ন টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে সুস্থ হতে চান মিচেল মার্শ।

আইপিএলের চলতি মৌসুমের পর আমেরিকা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরিপ্রেক্ষিতে, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া মার্শকে তাদের দেশে রাখতে চায়। সেখানেই মিচেল মার্শকে শীঘ্রই সুস্থ করে তুলতে চায় টিম অস্ট্রেলিয়া। আসলে বৈশ্বিক টুর্নামেন্টের জন্য মার্শকে পুরোপুরি ফিট করতে চায় অস্ট্রেলিয়ার টিম ম্যানেজমেন্ট।  

জানা গিয়েছে, হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে ভুগছেন মিচেল মার্শ। চিকিৎসার জন্যই কয়েকদিন আগে দেশে ফিরে গিয়েছিলেন তিনি। জানা যাচ্ছে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মিচেল মার্শের কাঁধে দলের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে। তবে এমন অবস্থায় বেশ চাপে পড়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস।

মিচেল মার্শ এই মৌসুমের দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে মাত্র চারটি ম্যাচ খেলেছেন এবং তারপর হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কারণে খেলতে পারেননি। মিচেল মার্শ সর্বশেষ ৩ এপ্রিল দিল্লি ক্যাপিটালস বনাম কলকাতা নাইট রাইডার্সের ম্যাচে খেলেছিলেন। এই ম্যাচে ঋষভ পন্তের নেতৃত্বাধীন দল ১০৬ রানে পরাজিত হয়েছিল। সেই ম্যাচে কেকেআর ২৭২ রান করেছিল।  

এই মৌসুমের মার্শের পারফরম্যান্স ভালো ছিল না এবং তিনি ২০, ২৩, এবং ১৮ রান করেছিলেন, যখন কেকেআরের বিরুদ্ধে কোনও রান না নিয়েই প্যাভিলিয়নে ফিরেছিলেন। সাত এপ্রিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে ম্যাচ শেষে মার্শ অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে আসেন এবং বাকি মৌসুমের তার অংশগ্রহণ নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছিল।    

মিডিয়া রিপোর্ট অনুসারে, দিল্লি ক্যাপিটালসের প্রধান কোচ রিকি পন্টিং কোথাও নিশ্চিত করেছেন যে আইপিএল ২০২৪ মৌসুমের দ্বিতীয় পর্বে মার্শকে পাওয়া যাবে না।

রিকি পন্টিং বলেন, ‘আমার মনে হয় না মার্শ ফিরবেন। প্রতিস্থাপন খেলোয়াড়দের জন্য একটি সীমিত কাট অফ সময় আছে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া মার্শকে তার পুনরুদ্ধারের প্রক্রিয়া শুরু করতে দেশে পাঠাতে চেয়েছিল এবং আমরা তাকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সেখানে পাঠিয়েছিলাম। তারা গত কয়েক সপ্তাহ ধরে তার পুনর্বাসন প্রক্রিয়া দেখছেন। আমি মার্শের সঙ্গে কথা বলেছি এবং মনে হচ্ছে তার পুনরুদ্ধারে প্রথম চিন্তার চেয়ে বেশি সময় লাগবে। আমি মনে করি না টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তার কোনও সমস্যা হবে।’

 

একুশে সংবাদ/এস কে  

Link copied!