AB Bank
ঢাকা সোমবার, ২৪ জুন, ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

সব সময় অ্যাথলিটদের পাশে থাকুন: সানিয়া


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
০৩:৫৪ পিএম, ৭ এপ্রিল, ২০২৪
সব সময় অ্যাথলিটদের পাশে থাকুন:  সানিয়া

অ্যাথলিটদের পাশে দাঁড়িয়ে সানিয়া মির্জা বলছেন‍‍` অলিম্পিক গেমস এলেই সোনা আশা করা উচিত নয় প্রতিযোগীদের থেকে, যদি আমরা তাকে সারাবছর সমর্থন না করি। একটা কথা বুঝতে হবে যে সোনার পদক এক রাতে আসে না।

অলিম্পিক্সে সাফল্য পেতে গেলে অ্যাথলিটদের পাশে দাঁড়াতে হবে , নাহলে কোনোভাবে সাফল্য পাওয়া সম্ভব নয়, বলছেন ভারতের টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা। সামনেই অলিম্পিক্স। প্যারিসে কে কে সোনা আনতে পারে এই নিয়ে ইতিমধ্যেই আলোচনা শুরু হয়ে গেছে ভারতীয় ক্রীড়াক্ষেত্রে। আইপিএল চলছে, সামনে টি২০ বিশ্বকাপ আসছে। এই দুই প্রতিযোগিতা চলে গেলে আরো আলোচনা হবে অলিম্পিক গেমসে পদক জয়ের দাবিদারদের নিয়ে। একই সঙ্গে প্রত্যাশার চাপ বাড়বে সেই খেলোয়াড়দের ওপর। প্রত্যেকবারই দেখা যায়, অলিম্পিক গেমসের আগে দুরন্ত ছন্দে থাকা অনেক অ্যাথলিটই খেই হারিয়ে ফেলে। আসলে আসরটা যে অলিম্পিক্স , দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ। এবার সব অ্যাথলিটদের পাশে দাড়িয়েই বার্তা দিলেন টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা। নিজের জীবনের অভিজ্ঞতা থেকে বললেন শুধু প্রত্যাশা করলেই হবে না, প্রতিযোগীদের পাশে দাঁড়াতে হবে সারা বছর। চার বছর ধরে যেমন প্রতিযোগীদের নিজের রক্ত জল করে কঠিন পরিশ্রম করে অলিম্পিক্সের যোগ্যতা অর্জন করতে হয়, তেমন তাদের থেকে শুধু পদকের আশা করার আগে সব প্রতিযোগীর পাশে থাকা প্রয়োজন, বলছেন ৬টি গ্র্যান্ডস্লামের মালিক।

অলিম্পিক্স অনেকটা একটা দিনের খেলার মতো। ইভেন্টের দিন স্নায়ুচাপ ধরে রাখতে পারলে বদলে যেতে পারে ভাগ্য।তবে প্রতিভা, দৃঢ়তার পাশাপাশি প্রয়োজন পর্যাপ্ত সমর্থনও। গতবার একমাত্র সোনার পদক এনেছিলেন ভারতের নীরজ চোপড়া। মিরাবাই চানু এনেছিলেন রূপো। টোকিও অলিম্পিক্সে মোট ৭টি পদক জিতেছিল ভারত, যা সর্ব্বোচ। এরপর এশিয়ান গেমসে অনবদ্য ফল করেন ভারতীয় প্রতিযোগীরা। ১০০-র গণ্ডি টপকে যায় ভারতের পদক সংখ্যা। ১০৭টি পদক জেতে ভারত যায় মধ্যে ছিল ২৮টি সোনা, ৩৮টি রূপো।

এই সাফল্যের পরই স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন আসে তাহলে কি এবারে প্যারিস অলিম্পিক্সে আরো ভালো কিছু আশা করা যেতে পারে? এরই উত্তর দিতে গিয়ে ৩বারের অলিম্পিয়ান সানিয়া মির্জা বলেন, ‍‍`আমার মনে হয় অলিম্পিক এলেই সোনা আশা করা উচিত নয় প্রতিযোগীদের থেকে, যদি আমরা তাকে সারাবছর সমর্থন না করি।

গতবছর টেনিস থেকে বিদায় নিয়েছেন। নিজের অভিজ্ঞতা থেকেই সানিয়া বলছেন কতটা সমর্থন প্রয়োজন লাগে কঠিন সময়। অলিম্পিক্স আর এশিয়ান গেমসে ভারতের গতবারের পারফরম্যান্স দেখে সানিয়া বলছেন, ‍‍` অলিম্পিক্স আর এশিয়ান গেমসে উন্নতি হচ্ছে এটা ভালো দিক। আসতে আসতে পদক বাড়ছে। কিন্তু উন্নতির কোনো শেষ হয় না। তাই শুধু সেই সময় নয়, মাঝের চার বছর অ্যাথলিটদের পাশে থাকলে তারা আরও উদ্বুদ্ধ হবে ও বড় মঞ্চে আরো ভালো ফল করবে‍‍`।

আরেক টেনিস তারকা নাওমি ওসাকার সুরে সুর মিলিয়ে তিনি বলছেন, মানসিকভাবে সুস্থ থাকাটা অত্যন্ত জরুরি। অবসাদে ভুগলে তার থেকে দ্রুত বেরিয়ে আসতে হবে। সকলেরই বোঝা উচিত, খেলোয়াড়রাও দিনের শেষে মানুষ, তাদেরও সুখ, দুঃখ, ভালো লাগা, খারাপ লাগার ব্যাপার আছে।


একুশে সংবাদ/এস কে

Link copied!