ঢাকা রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank

৯ম শ্রেণীতে থাকতেই প্রেগন্যান্ট হন করিনা কাপুর


Ekushey Sangbad
বিনোদন ডেস্ক
০২:৫৮ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২
৯ম শ্রেণীতে থাকতেই প্রেগন্যান্ট হন করিনা কাপুর

করিনা কাপুর খান এমন একজন ব্যক্তিত্ব যাকে নিয়ে চর্চা লেগেই থাকে। নিজের জীবনে বহু বিতর্কে জড়িয়েছেন বলি সুন্দরী। কখনও নিজের কর্মজীবনের কারণে, আবার কখনও নিজের ব্যক্তিগত জীবনের কারণে।

 

রণধীর কাপুরের মেয়ের জীবনে এমন বহু কেচ্ছা রয়েছে যে বিষয় হয়তো অনেকেই জানেন না। আজকের প্রতিবেদনে করিনার এমনই ৭ কেচ্ছা তুলে ধরা হল।

 

শাহিদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি ফাঁস – বলি অভিনেতা শাহিদের সাথে করিনার সম্পর্কের কথা কারোরই অজানা নয়।

 

একবার ‘জব উই মেট’এর সেট থেকে দু’জনের ছবি ফাঁস হয়েছিল। সেখানে দু’জনকে বেশ ঘনিষ্ঠ অবস্থায় দেখতে পাওয়া গিয়েছিল। আর ব্যস, মুহূর্তে তা ছড়িয়ে পড়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

 

MMS বিতর্ক– ‘হিরোইন’ ছবিতে করিনার বেশ কিছু ঘনিষ্ঠ দৃশ্য ছিল। আর সেই দৃশ্যগুলিই পরবর্তীকালে ক্লিপিংয়ের আকারে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছিল। আর সেখান থেকে MMS বিতর্কে নাম জড়িয়ে গিয়েছিল করিনার। যদিও অভিনেত্রী এই বিষয়ে কোনোদিন কোনও মন্তব্য করেননি।

 

ঋত্বিকের সাথে প্রেম – বলিউডের ‘গ্রিক গড’এর সাথে করিনার পর্দার রসায়ন ছিল দুর্দান্ত। সেখান থেকেই শুরু হয়েছিল তাঁদের প্রেমের জল্পনা। যদিও দু’জনে বরাবরই দাবি করতেন, তাঁদের মধ্যে মোটেই প্রেমের সম্পর্ক নেই। পরে অবশ্য পথ আলাদা হয়ে যায় ঋত্বিক এবং করিনার।

 

ক্লাস নাইনে প্রেগন্যান্ট – করিনার জীবনের নিঃসন্দেহে সবচেয়ে বড় কেচ্ছা হল এটি। বলিউডের অন্দরের গুঞ্জন, বেবো নাকি ক্লাস নাইনে পড়াকালীন প্রেগন্যান্ট হয়ে গিয়েছিলেন। যা নিয়ে পরবর্তীকালে কম চর্চা হয়নি।

 

সইফের সঙ্গে বিয়– ডিভোর্সি সইফের সাথে যখন করিনা সাত পাক ঘোরার সিদ্ধান্ত নেন তখন প্রচুর বিতর্ক হয়েছিল। অনেকে নাকি অভিনেত্রীকে এও বলেছিলেন যে একজন ডিভোর্সিকে বিয়ে করলে তাঁর কেরিয়ার একেবারে শেষ হয়ে যাবে। তবে করিনা সেসব কথাকে ভুল প্রমাণ করে সইফের সাথে চুটিয়ে সংসার করছেন।

 

ছেলের নাম নিয়ে বিতর্ক – করিনা যখন তাঁর প্রথম সন্তানের নাম তৈমুর রেখেছিলেন, তখন তা নিয়েও প্রচণ্ড বিতর্ক হয়েছিল। পরে অভিনেত্রী জানান, তৈমুর নামটি তাঁদের পছন্দ বলেই রেখেছেন। এর নেপথ্যে কোনও ‘লুকনো’ কারণ নেই।

 

সীতা চরিত্রের জন্য আকাশছোঁয়া পারিশ্রমিক দাবি– বি টাউনের অন্দরের গুঞ্জন ছিল, আসন্ন ‘রামায়ণ’ সিনেমায় মা সীতার চরিত্রের জন্য নাকি করিনাকে নির্বাচন করা হয়েছিল। এরপর জানা যায়, ছবির জন্য নাকি আকাশছোঁয়া পারিশ্রমিক চেয়েছেন বলি সুন্দরী।

 

জানা যায়, ‘রামায়ণ’এর জন্য নাকি ১২ কোটি টাকা চেয়েছিলেন বেবো। আর তা জেনেই চটে গিয়েছিলেন অনেকে। তাঁদের বক্তব্য ছিল, এমন একটি চরিত্রের জন্য কেন এত টাকা দাবি করছেন অভিনেত্রী।

 

একুশে সংবাদ.কম/আ.ক.জা.হা