ঢাকা শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারি, ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. পডকাস্ট

উলিপুরে চাঞ্চল্যকর হত্যার রহস্য উদঘাটন, আটক ২


Ekushey Sangbad
কামরুজ্জামান স্বাধীন, উলিপুর, কুড়িগ্রাম।
০১:৪৮ পিএম, ২৩ জানুয়ারি, ২০২৩
উলিপুরে চাঞ্চল্যকর হত্যার রহস্য উদঘাটন, আটক ২

কুড়িগ্রামের উলিপুরে চাঞ্চল্যকর অটোচালক হত্যার ২৪ ঘন্টার মধ্যে রহস্য উদঘাটনসহ আলামত উদ্ধার করে হত্যার সাথে জড়িত দুই জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার ধরনীবাড়ি তেলীপাড়া এলাকার অটোচালক রফিকুল ইসলাম (৩২) গত বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুরে গুনাইগাছ আমিন মোড়ে "আশা এনজিও" থেকে লোনের ৫০ হাজার টাকা উত্তোলনের জন্য বাড়ী থেকে বের হয়ে যায়। বিকেলে লোনের টাকা উত্তোলন করে তার স্ত্রীকে ফোন দিয়ে উলিপুর বাজারে ডেকে নেয়। তখন তার স্ত্রী স্টিলের বাক্স কিনতে চাইলে প্রতিবেশী রফিকুলকে স্টিলের বাক্স কিনতে নিষেধ করে। এরপর তিনি তার স্ত্রীকে সন্ধ্যায় নিজ বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। পরে তিনি প্রতিবেশী অভিযুক্ত রফিকুল ইসলামের সাথে চলে যায়। এ সময় তার কাছে লোনের ৫০ হাজার টাকাসহ অটো বিক্রির টাকা ছিল। রফিকুল বাড়ি ফিরে না আসায় তাকে তার পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। একপর্যায়ে গত শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) ভোরে ধরণীবাড়ী ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ধরণীবাড়ী তেলীপাড়া গ্রামের একটি পুকুরের পাড়ে কাঁচা রাস্তার উপর রফিকুলের গলা কাটা মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন থানা পুলিশকে খবর দেয়। এ ঘটনায় উলিপুর থানায় মামলা করা হয়।

 

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শাহ আলম জানান, আসামী রফিকুল হত্যার শিকার রফিকুলের চাচা। গ্রেফতারকৃত আসামী ফেরদৌস আলম আদালতে হত্যার পরিকল্পনা, কিভাবে হত্যাকান্ডটি ঘটিয়েছে তার জবানবন্দি দিয়েছে।

 

উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) শেখ আশরাফুজ্জামান জানান, গোপন তথ্য সংগ্রহ করে তদন্তের মাধ্যমে ঘটনার সাথে জড়িত ধরনীবাড়ি তেলিপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলাম (৩৫) ও একই গ্রামের ফেরদৌস আলম (৩৫)কে গ্রেফতার করা হয়। তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী মৃত রফিকুলকে হত্যার কাজে ব্যবহৃত একটি চাকু, একটি মোবাইল ও ৭ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম জানান, বিভিন্ন তথ্যের ভিত্তিতে তদন্ত সাপেক্ষে দু‍‍`জনকে গ্রফতার করা হয়েছে। ঘটনার সাথে আরো যারা জড়িত, তাদেরকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

একুশে সংবাদ/এসএপি