ঢাকা শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১ আশ্বিন ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

তেঁতুলিয়ায় ভারী বর্ষণে ভেঙ্গে পড়লো কালভার্ট


Ekushey Sangbad
পঞ্চগড় প্রতিনিধি
০৬:৪৩ পিএম, ২৯ আগস্ট, ২০২১
তেঁতুলিয়ায় ভারী বর্ষণে ভেঙ্গে পড়লো কালভার্ট

পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলায় অতিবৃষ্টি ও পানির চাপে একটি সুরক্ষা বাধের কালভার্ট ভেঙ্গে পড়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় বাধসহ কালভার্টটি দ্রুত সংস্কারের দাবি স্থানীয়দের। এদিকে নিম্নমানের সামগ্রীদিয়ে তৈরিসহ ছোট ভাবে তৈরি করায় অতিবৃষ্টিতে ভেঙ্গে পড়েছে কালভার্টটি বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

গত শনিবার (২৮ আগস্ট) দিনগত গভির রাতে তেঁতুলিয়া উপজেলার ভজনপুর ইউনিয়নের গোলাব্দিগছ গ্রামের করতোয়া নদী সংলগ্ন পূর্বপাশে গ্রামের রাস্তার এই কালভার্টটি ভেঙ্গে পড়ে। পরে রোববার (২৯ আগস্ট) সকালে স্থানীয়রা ভাঙ্গা অবস্থায় কালভার্টটি দেখতে পান।

সরেজমিন ঘুরে জানা গেছে, গত কয়েক দিন ধরে লাগাতার বৃষ্টিপাতের কারনে ওই এলাকার নিম্নাঞ্চল তলিয়ে যায়। আর অতিরিক্ত বর্ষণে পানির স্রোত বেশি হওয়ায় এবং কালভার্টটি দৈর্ঘ-প্রস্ত ছোট হওয়ায় হঠাৎ করে বাধসহ গভির রাতে ভেঙ্গে পড়ে যায়। 

এদিকে ওই কালভার্ট এর রাস্তা দিয়ে যাতায়াত বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চরম দূর্ভোগে পড়েছে আশপাশের বসাবাসরত চলাচলকারীরা। অনেকে এখন দীর্ঘ পথ ঘুরে যাতায়াত করতে হচ্ছে৷ তাই দ্রুত কালভার্টটি সংস্কারণের দাবি জানান স্থানীয়রা।

অন্যদিকে স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, নিম্নমানের সামগ্রীদিয়ে তৈরিসহ অপরিকল্পিতভাবে কালভার্টটি নির্মাণ ও নির্দিষ্ট আকারের ছেয়ে ছোট আকারে নির্মাণ করায় পানির স্বাভাবিক প্রবাহ প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হওয়ায় বাধসহ কালভার্টতি ভেঙে গেছে।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, পানি নিষ্কাসনের জন্য কালভার্টটি ২০২০-২১ অর্থবছরে লোকাল গভর্ন্যান্স সাপোর্ট প্রজেক্ট-৩ (এলজিএসপি-৩) প্রকল্পের আওতায় তৈরি করা হয়। যার অডিট এখনো হয় নি। এরি মাঝে কালভার্টটি ভেঙ্গে পড়ায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন ইউপি চেয়ারম্যানসহ সদস্যরা।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হামিদুল ইসলাম জানান, ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে কালভার্ট তৈরিতে বাজেট লাখের কাছাকাছি। মূলত সরকারি ভাবে বাজেট কম থাকায় ছোট ভাবে তৈরি করা হয়। বরাদ্দ বাড়িয়ে বড় করে দ্রুত এই কালভার্টটি তৈরি করা হলে এমন ঘটনা পুনরাবৃত্তি হবে না।

ভজনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোকসেদ আলী জানান, কম বরাদ্দের কারণে কালভার্টটি ছোট ভাবে তৈরি করা হয়। পানির অতিরিক্ত স্রোত ও চাপের কারণে ভেঙ্গে গেছে। আমরা অতিদ্রুত ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে কালভার্টটি নতুন করে বড় তৈরি করার চেষ্টা করছি।

এ বিষয়ে তেঁতুলিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সোহাগ চন্দ্র সাহা জানান, খবরটি আপনার মাধ্যমে জানলাম। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগ করে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশ দিচ্ছি।

একুশে সংবাদ/বাদশা/আর